দুনিয়া কাঁপানো তৈমুর লং (বই)

দুনিয়াকাঁপানো তৈমুর লং বা Tamerlane The Earth Shaker হ্যারল্ড ল্যামের ইতিহাস আশ্রিত উপন্যাস, যেখানে তিনি ইতিহাস খ্যাত সেনাধ্যক্ষ তৈমুর লং এর জীবন চিত্রায়িত করেন। বইটিতে তিনি তৈমুর লঙের শৈশব থেকে তার জীবনের শেষ অংশ পর্যন্ত নানা বিষয় গল্পের ঢঙে তুলে ধরেন।

দুনিয়াকাঁপানো তৈমুর লং
তৈমুরলং দ্যা আর্থ শেকার.jpg
তৈমুরলং দ্যা আর্থ শেকারের প্রচ্ছদ
লেখকহ্যারল্ড ল্যাম
মূল শিরোনামTamerlane The Earth Shaker
অনুবাদকযায়নুদ্দিন সানী
প্রচ্ছদ শিল্পীমোবারক হোসেন লিটন
ভাষাইংরেজি
ধরনঐতিহাসিক উপন্যাস
প্রকাশককেসিঞ্জার প্রকাশনা, দিব্যপ্রকাশ
প্রকাশনার তারিখ
ফেব্রুয়ারি ২০১৫
বাংলায় প্রকাশিত
১৯২৮
মিডিয়া ধরনকাগজ
পৃষ্ঠাসংখ্যা৩৫৬ (পেপারব্যাক)
আইএসবিএন৯৭৮-৯৮৪-৯১৪৭৪-১-১

বর্ণনাসম্পাদনা

হ্যারল্ড ল্যাম্ব অ্যাডভেঞ্চার ম্যাগাজিনের একজন লেখক এবং বিখ্যাত ইতিহাস আশ্রিত ঔপন্যাসিক। এসব সময়ের লেখার জন্যে তাকে একজন বিশেষজ্ঞ মানা হয়। বইটি পারস্য কল্পকাহিনী তামের লেঙের পশ্চিমা সংস্করণ।

কাহিনী সংক্ষেপসম্পাদনা

যখন শিশুটির প্রথম জন্ম হয় তার মা-বাবা তাকে পবিত্র শেখের কাছে নিয়ে যায়া আশির্বাদের জন্যে। ক্বোরয়ানের যে অংশ শেখ পড়ছিলেন সেখানকার এক শব্দ থেকে তিনি তার নাম তামুরু রাখেন। তার জীবনে তৈমুর আলেকজান্ডার ব্যতীত যে কারও চেয়ে বেশি রাজ্য দখল করেছেন। একজন হিংস্র আক্রমণকারী ছাড়াও তিনি ছিলেন একজন বুদ্ধিমান ও জ্ঞানী লোক। তিনি বেশ কিছু ভাষা বলতে পারতেন এবং কবিতা, সংগীত ল, শিল্পের একজন বড় সমাঝদার ছিলেন। [১]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. বিশ্ববিজেতা তৈমুর লং(পিপিলিকা), সংগ্রহের-তারিখ ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮