থমসন পরমাণু মডেল

থমসন পরমাণু মডেল বলতে বুঝায় বিজ্ঞানী জে জে থমসন কর্তৃক পদার্থের পরমাণু সম্পর্কিত ধারণাটিকে।

PlumPuddingModel ManyCorpuscles.png

ইতিহাসসম্পাদনা

১৮৯৮ সালে বিজ্ঞানী জে জে থমসন যে কিশমিশ পুডিং মডেল প্রস্তাব করেন তাতে তিনি বলেন যে, পুডিংয়ের ভিতরে কিশমিশ যেমন বিক্ষিপ্ত ভাবে ছড়িয়ে থাকে পরমাণুতে ঠিক তেমনি নিরবিচ্ছিন্ন ভাবে বন্টিত ধনাত্মক আধানের মধ্যে ইলেকট্রন ছড়িয়ে আছে। দেশজভাবে এ মডেলকে তরমুজ মডেল বলা যেতে পারে। তরমুজের রসালো অংশকে যদি ধনাত্মক আধান বিবেচনা করা হয় এবং তরমুজের বিচিকে যদি ঋনাত্মক আধানযুক্ত ইলেকট্রন মনে করা হয় তাহলে তরমুজের রসালো অংশের মধ্যে এর বীচিগুলো বিক্ষিপ্তভাবে ছড়িয়ে থাকাকে থমসন পরমাণু মডেলের সাথে তুলনা করা যেতে পারে। থমসন বলেছিলেন যে ইলেকট্রন গুলোর মধ্যে তড়িত মিথস্ক্রিয়ার দরুন এরা এক আ্যঙ্গস্ট্রম পর্যা্যের ব্যাসার্ধের কল্পিত গোলাকৃতি পরমাণুর ভিতর সুবিন্যস্ত থাকে।[১]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. উচ্চ মাধ্যমিক পদার্থবিজ্ঞান,শাহজাহান তপন। ১৩ তম অধ্যায়। পৃষ্ঠা ৪৮২।