তার

ধাতুর তৈরি বেলনাকৃতি সম্পন্ন একক ও নমনীয় সুতা বা দড়ি তথা রডের ন্যায় দীর্ঘাকার বস্তু বিশেষ

মূলত ধাতুর তৈরি লম্বা, সরু, বেলনাকৃতি ও নমনীয়তা গুণ সম্পন্ন একক সুতা বা দড়ি তথা রডকে তার বলা হয়। এটি গাঠনিক লোড যেমন— কোন কিছু বাঁধাইয়ের কাজ ছাড়াও তড়িৎ ও টেলিযোগাযোগ সংকেত আদান-প্রদানে ব্যাবহার করা হয়। সাধারণত ছাঁচ (ডাই) বা ড্র প্লেটের সরু ছিদ্রপথে ধাতব খণ্ড টেনে টেনে তার তৈরি করা হয়। এই পদ্ধতিকে ড্রয়িং বলে। তারের ব্যাস পরিমাপে ওয়্যার গজ ব্যবহার করা হয়। এছাড়া বৈদ্যুতিক ক্যাবল ও বহুগুচ্ছাকার তারের দড়ি অর্থাৎ অনেকগুলো তার পেচিয়ে যে মোটা দড়ির ন্যায় তৈরি করা হয় তা বোঝাতেও কিছু ক্ষেত্রে 'তার' শব্দটি ব্যবহার করা হয়।

মাথার উপর দিয়ে টেনে নিয়ে যাওয়া পরিবাহী তার
স্টীলের তৈরি ডানহাতি ল্যাং লে তারের দড়ি

তার নিরেট কোর (একক নিরেট কাঠির ন্যায়), গুচ্ছ (stranded) অথবা বিনুনিযুক্ত হয়ে থাকে। প্রস্থের দিক (cross-section) থেকে তার সচরাচর বৃত্তাকার তৈরি করা হয়ে থাকে। তবে সৌন্দর্যগত কারণে কিংবা প্রযুক্তিগত সুবিধার্থে যেমন– লাউডস্পিকারের ভয়েস কয়েলের ক্ষেত্রে প্রস্থের দিকে বর্গাকার, ষড়ভুজাকার, চ্যাপ্টা আয়তাকার অথবা অন্যান্য আকৃতির তারও তৈরি করা হয়ে থাকে। প্রান্ত কাটা (Edge-wound)[১] কয়েল স্প্রিং যেমন– স্লিঙ্কি খেলনা তৈরিতে বিশেষ ধরনের চ্যাপ্টা তার ব্যবহার করা হয়।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Swiger Coil Systems। "Edgewound Coils"। Swiger Coil Systems, A Wabtec Company। ১৯ ডিসেম্বর ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০১১