তাইপেই অববাহিকা

তাইওয়ানের ভৌগলিক অঞ্চল

তাইপেই অববাহিকা (চীনা: 台北盆地; ফিনিন: Táiběi Péndì) হল উত্তর তাইওয়ানের একটি ভৌগোলিক অঞ্চল। এটি তাইওয়ানের দ্বিতীয় বৃহত্তম অববাহিকা। অববাহিকাটি উত্তরে ইয়াংমিংস্তান, পশ্চিমে লিঙ্কউ মেসা এবং দক্ষিণ-পূর্বে জুয়েশান ব্যাপ্তি (ঐতিহ্যবাহী চীনা: 雪山山脈) দ্বারা বেষ্টিত। অববাহিকাটির আকার প্রায় একটি ত্রিভুজের মত। এর তিনটি কোণা যথাক্রমে নাঙ্গাং, জিঞ্জহুয়াংয়ের হুইলং এবং বেইতউ-এর গুয়ান্ডু অবস্থিত।

মানচিত্রে গাঢ় সবুজ রঙে রাইপেই অববাহিকাকে দেখানো হয়েছে। নীল রেখাগুলো প্রশাসনিক জেলাসমূহকে চিহ্নিত করছে।
নাসার স্পেস রাডার মানচিত্র হতে প্রাপ্ত ছবির নিচে, কেন্দ্রীয় অঞ্চলে তাইপেইকে গাঢ় নীল ও লাল অঞ্চলদ্বারা দেখানো হয়েছে। শহরটির একটি অংশ কিলাং নদীতামসুই নদীদ্বারা পরিবেষ্টিত।

তাইপেই অববাহিকা হতে উৎপন্ন নদীসমূহের মধ্যে তামসুই নদী, কিলাং নদী, দাহান নদী এবং জিন্ডিয়ান নদী প্রধান।

প্রাগৈতিহাসিক কালে, তাইপেই অববাহিকাটি কেটাগ্যালানদের (আদিবাসী) বাসস্থান ছিল। হ্যান চীনারা এই অঞ্চলে অষ্টাদশ শতক পর্যন্ত তাদের নিবাস গড়েনি। বর্তমানে তাইপেই অববাহিকাটি তাইপেই শহর এবং নব্য তাইপেই শহরের সীমানার মাঝে অবস্থিত এবং সেইসাথে এটি তাইওয়ানের বৃহত্তম তাইপেই মহানগরীয় অঞ্চল

দূষণসম্পাদনা

তাইপেই অববাহিকার নদীসমূহ অবৈধ শিল্প-কারখানার শিল্প দূষকের মাধ্যমে তীব্রভাবে দূষিত হয়েছে। তাইপেই শহর সরকার, তাইপেই কেন্দ্রীয় সরকার এবং অন্যান্য কিছু নাগরিক সংস্থার অন্যতম এজেন্ডা প্রাকৃতিক নদী পুনরুদ্ধার-এর মাধ্যমে এর দূষণ কমানোর প্রকল্প গ্রহণ করেছে।[১]

ভূমিকম্পের প্রভাবসম্পাদনা

তাইওয়ান ফিলিপাইন সমুদ্র প্লেট এবং ইউরেশীয় প্লেটের সাংঘর্ষিক সীমায় অবস্থিত।[২] এর প্রথমটি উত্তর-পশ্চিম দিকে ৭ সেমি/বছর গতিতে ধীরে ধীরে এগিয়ে যাচ্ছে। ফিলিপাইন সমুদ্র প্লেট ইউরেশীয় প্লেটকে উত্তর-তাইওয়ান অঞ্চলে প্রায় ঢেকে ফেলেছে। এই সংঘর্ষ তাইওয়ান অঞ্চলে উচ্চমাত্রার ভূমিকম্প ঘটানোর সম্ভাবনার দিকে ঠেলে দিয়েছে। তাইপেই মেট্রোপলিটন এরিয়া (টিএমএ), তাইওয়ানের রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক এবং সাংস্কৃতিক কেন্দ্র, এমনকি তাইপেই শহর ও বেশকিছু কৃত্রিম শহর যা তাইপেই অববাহিকা অঞ্চলে অবস্থিত, তীব্রমাত্রা ভূমিকম্পের ঝুঁকিতে রয়েছে। এর আগের দুই যুগে টিএমএ'র কিছু ভবন নানামাত্রা ভূমিকম্পের ফলে ভেঙে বা ধসে পড়েছে। যেমন- ২০ মে ও ১৪ই নভেম্বর, ১৯৮৬-এর হুয়ালিয়েন ভূমিকম্প, ২১শে সেপ্টেম্বর, ১৯৯৯-এর চি চি ভূমিকম্প এবং ৩১ মার্চ, ২০০২-এর হুয়ালিয়েন ভূমিকম্প। এছাড়াও ১৬৯৪ ও ১৯০৯ সালেও টিএমএ নানা ধরনের ভূমিকম্পে বেশ গুরুতরভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল, যার উৎপত্তিস্থল ছিল এই অববাহিকা। এ কারণে ভূমিকম্প ও ফাটলের চিত্রণ সম্পর্কে নানা ধরনের গবেষণা থেকে জানা যায়, যে এ অঞ্চলে যেকোনো সময় এক বড়সড় মাত্রার ভূমিকম্প হতে পারে।[২][৩]

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Taipei from the River"। March, 2011।  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)
  2. "A Blind Normal Fault beneath the Taipei Basin in Northern Taiwan" (PDF)। ৪ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ নভেম্বর ২০১৫ 
  3. "Prehistoric earthquakes along the Shanchiao fault, Taipei Basin, northern Taiwan"