ডাবর

ভারতীয় আয়ুর্বেদিক ও প্রাকৃতিক ভোগ্যপণ্য উৎপাদক

ডাবর (ডাবর ইন্ডিয়া লিমিটেড) হল ভারতের আয়ুর্বেদিক ও প্রাকৃতিক ভোগ্যপণ্য উৎপাদনকারী একটি প্রতিষ্ঠান। ডাবর শব্দটি এসেছে ডাক্তার (ডা) বর্মণ (বর) শব্দটি থেকে থেকে যিনি এর প্রতিষ্ঠাতা।[১][২]

ডাবর ইন্ডিয়া লিমিটেড
শিল্পভোগ্যপণ্য
প্রতিষ্ঠাকাল১৮৮৪
প্রতিষ্ঠাতাএস. কে. বর্মণ
সদরদপ্তর
ডাবর কর্পোরেট অফিস, কৌশাম্বি, সাহিবাবাদ, গাজিয়াবাদ, উত্তরপ্রদেশ
,
বাণিজ্য অঞ্চল
বিশ্বব্যাপী
প্রধান ব্যক্তি
  • আনন্দ বর্মণ (চেয়ারম্যান)
  • মোহিত মালহোত্রা (সিইও)
পণ্যসমূহস্বাস্থ্য সংক্রান্ত পণ্য, আয়ুর্বেদিক ওষুধ, টয়লেট্রিজ, টুথপেস্ট, হজমি, খাদ্য
মালিকবর্মণ পরিবার
ওয়েবসাইটwww.dabur.com উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন

ডাবর ২০০৩ সালে এর ওষুধ ব্যবসার ইতি টানে।[৩] ও ডাবর ফার্মা লিমিটেড নামে নতুন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলে তাদের ওষুধ ব্যবসা পরিচালনার জন্য। জার্মান কোম্পানি ফ্রেসেনিয়াস এসই ২০০৮ সালের জুন মাসে ৭৬.৫০ কোটি রুপির বিনিময়ে এর ৭৩.২৭% শেয়ার কিনে নেয়। ২০১৫ সালে ভারতের বিশ্বস্ত ব্র‍্যান্ডের তালিকায় ১৯ নম্বরে ছিল ডাবর।[৪]

ভারত ছাড়াও ডাবর পাকিস্তানেও রয়েছে যেটি 'ডাবর পাকিস্তান' নামে পণ্য বিক্রি করে।[৫]

ইতিহাসসম্পাদনা

১৮৮০ সালের দিকে ডা. এস. কে. বর্মণ নামের এক আয়ুর্বেদিক চিকিৎসক কলকাতায় কলেরা ও ম্যালেরিয়া প্রতিরোধী ওষুধ উদ্ভাবন করেন। তিনি বৃহৎ উৎপাদনের জন্য ১৮৮৪ সালে ডাবর ইন্ডিয়া লিমিটেড প্রতিষ্ঠা করেন। প্রতিষ্ঠানটির বর্তমান চেয়ারম্যান ড. আনন্দ বর্মণ ও ভাইস চেয়ারম্যান অমিত বর্মণ হলেন বর্মণ পরিবারের পঞ্চম প্রজন্ম। বর্মণ পরিবার হল প্রথম পরিবার যারা প্রতিষ্ঠান ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব বাইরের লোকের কাছে স্থানান্তর করেছিল।[৬] তারা এটি করেছিল ১৯৯৮ সালে।

দাতব্য কার্যক্রমসম্পাদনা

ডাবর সন্দেশ নামের একটি প্রতিষ্ঠান খুলে স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও অন্যান্য আর্থ সামাজিক ক্ষেত্রে দাতব্য কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে।[৭][৮]

পুরস্কার ও সম্মাননাসম্পাদনা

আয়ুর্বেদে অবদান রাখার জন্য ২০১৭ সালে ন্যাশনাল একাডেমিয়া ভেটেরিনারি সাইন্স ফেলোশিপ লাভ করে।[৯]

 
ডাবর দাঁতের মাজন

সমালোচনাসম্পাদনা

ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯ চলাকালীন সময়ে বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচের আগে ডাবর টুথপেস্ট "চিবিয়ে খাবো" শিরোনামের একটি বিজ্ঞাপন প্রচার করে। এই বিজ্ঞাপনে বাঙালি জাতিসত্তা এবং ভারতবাংলাদেশের জাতীয় সংগীত রচয়িতা রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে হেয় করার অভিযোগ ওঠে। পরে ডাবর ক্ষমাপ্রার্থনা করে ও বিজ্ঞাপনটি প্রত্যাহার করে নেয়।[১][১০][১১]

পণ্যসমূহসম্পাদনা

  • ডাবর হজমূলা
  • ডাবর লাল মাজন
  • ডাবর মধু
  • ডাবর লাল টুথপেস্ট
  • ডাবর চবনপ্রাশ

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯: বাংলাদেশ ম্যাচের আগে 'চিবিয়ে খাব' বিজ্ঞাপন নিয়ে ভারতে বিতর্ক"বিবিসি বাংলা। ৩ জুলাই ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০১৯ 
  2. "India's Most Trusted Brands"। ২ মে ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  3. "www.icis.com/resources/news/2003/05/22/196152/dabur-india-demerges-pharma-business-from-fmcg-ops/"www.icis.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৮-০২ 
  4. Reporter, B. S.। "Brand trust survey shows surprise gainers; Indian firms, too, make presence felt"। সংগ্রহের তারিখ ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  5. "Dabur Pakistan"dabur.pk 
  6. "How Dabur's Burmans Segregated Family and Business | Forbes India"Forbes India। সংগ্রহের তারিখ ২৭ জুলাই ২০১৭ 
  7. (14 June 2011.) "Snapdeal adopts village in Uttar Pradesh and residents renames village to Snapdeal.com." The Economic Times (The Times of India). Accessed September 2011.
  8. Vats, Rachit (28 August 2011.) "Social branding." ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১৯ অক্টোবর ২০১১ তারিখে Hindustantimes.com. Accessed September 2011.
  9. National Academy of Veterinary Science। "Minutes of the Meeting of Government Council" (PDF)। NAVSIndia.org। সংগ্রহের তারিখ ৫ আগস্ট ২০১৭ 
  10. "সমালোচনার মুখে বিতর্কিত বিজ্ঞাপন সরিয়ে নিল ডাবর"বিডিনিউজ২৪.কম। ৩ জুলাই ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০১৯ 
  11. "বাংলাদেশকে 'চিবিয়ে খাওয়ার' বিজ্ঞাপন ডাবরের, সমালোচনার মুখে প্রত্যাহার"আমাদের সময়। ৩ জুলাই ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০১৯ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা