জীববৈচিত্র্য

প্রাকৃতিক ও পরিবেশভূগোলের পাঠ্য বিষয়

জীববৈচিত্ৰ্য হল পৃথিবীতে জীবনের জৈবিক বৈচিত্র্য এবং পরিবর্তনশীলতা। অধ্যাপক হ্যামিল্টনের মতে, পৃথিবীর মাটি, পানি ও বায়ুতে বসবাসকারী সব উদ্ভিদ, প্রাণী ও অনুজীবদের মধ্যে যে জিনগত, প্রজাতিগত ও পরিবেশগত (বাস্তুতান্ত্রিক) বৈচিত্র্য দেখা যায় তাকেই জীববৈচিত্র্য বলে।[১] মার্কিন জীব বিজ্ঞানী ই.এ.নরসে এবং তার সহযোগীদের সূত্ৰ অনুযায়ী জৈব বৈচিত্ৰ্য হল জল, স্থল সকল জায়গায় সকল পরিবেশে থাকা সকল ধরনের জীব এবং উদ্ভিদের বিচিত্ৰতা। পৃথিবীর ১০ বিলিয়ন ভাগের একভাগ অংশতেই ৫০ মিলিয়ন প্ৰজাতির বিভিন্ন জীব-জন্তু এবং উদ্ভিদের বসবাস৷

জীব বৈচিত্র্যের শ্ৰেণীবিভাগসম্পাদনা

জীব বৈচিত্ৰ্যকে প্ৰধানত তিনটি ভাগে বিভক্ত করা হয়। যথা-

(ক) জিনগত জীববৈচিত্ৰ্য: একই প্রজাতির জীবদের মধ্যে যে জিনগত বৈচিত্র্যতা লক্ষ করা যায় তাকেই জিনগত বৈচিত্ৰ্য বলে৷ উদাহরণ- Rauwolfia vomitoria

(খ) প্ৰজাতিগত জীববৈচিত্ৰ্য: একটি স্থানে অবস্থানকারী বিভিন্ন প্রজাতির মধ্যে যে বৈচিত্র্যতা লক্ষ করা যায় তাকে প্রজাতিগত জীববৈচিত্র্য বলে। এই ধরনের বিভিন্নতা একটা প্ৰজাতির অথবা বিভিন্ন প্ৰজাতির অন্তৰ্গত সদস্য সমূহের মধ্যে দেখা যায়৷ বিজ্ঞানী এড‌ওয়ার্ড উইলসনের (১৯৯২) মতে বিশ্বে ১০ মিলিয়নের থেকে ৫০ মিলিয়ন জীবিত প্ৰজাতি আছে৷ তবে কেবল ১.৫ মিলিয়ন জীবিত প্ৰজাতির এবং ৩,০০,০০০ জীবাষ্ম প্ৰজাতি আবিষ্কার করে নামকরণ করা হয়েছে৷ ইতোমধ্যে বহু প্ৰজাতির প্ৰকৃতির সাথে ভারসাম্য রক্ষা করতে না পারায় বিলুপ্তি ঘটেছে৷ প্ৰজাতি বৈচিত্ৰতা নিৰ্ণয় করার জন্য দুটা সূচক ব্যবহার করা হয় - শেন'ন উইনার সূচক এবং সিম্পসন সূচক।

(গ) বাস্তুতান্ত্রিক জীববৈচিত্ৰ্য: সমগ্র বাস্তুতন্ত্রের জীবদের মধ্যে যে বৈচিত্র্য থাকে তাকে বাস্তুতান্ত্রিক জীববৈচিত্র বলা হয়। পরিবেশের বিভিন্ন ভৌতিক উপাদান, যেমন - আদ্ৰতা, উষ্ণতা, দ্ৰাঘিমাংশ, অক্ষাংশ ইত্যাদি জৈবিক বৈচিত্ৰ্যের সৃষ্টি করতে পারে৷ হুইটেকার (Whittaker) ১৯৭২ সালে বাস্তুতান্ত্রিক জীববৈচিত্র্যের নির্ধারণের তিনটি সূচক প্রস্তাব করেছেন। যথা-

  • ১. আলফা জীববৈচিত্র্য: একই বাসস্থান বা অঞ্চলে অবস্থিত জীবদের মধ্যে যে বৈচিত্র্য দেখা যায় তাকে আলফা জীববৈচিত্র্য বলে।
  • ২. বিটা জীববৈচিত্র্য: সংলগ্ন বাসস্থান বা ইকোটোন অঞ্চলে যে বৈচিত্র্য দেখা যায় তাকে বিটা বৈচিত্র্য বলে।
  • ৩. গামা জীববৈচিত্র্য: সমগ্র ভৌগোলিক অঞ্চলের যে জীব বৈচিত্র্য তাকে গামা জীববৈচিত্র্য বলে।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. এইচএসসি জীববিজ্ঞান দ্বিতীয়পত্র | শিরোনাম: জীবের পরিবেশ, বিস্তার ও সংরক্ষণ | লেখক: আবুল হাসান ও অন্যান্য