জীবনের উৎপত্তি

বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে অজৈব বস্তু থেকে জীবনের উৎপত্তির ব্যাখ্যা ও কারণ অনুসন্ধান

জীবনের উৎপত্তি (ইংরেজি: Origin of life) বা অজৈবজনি (ইংরেজি: Abiogenesis) বলতে পৃথিবীপৃষ্ঠে নির্জীব পদার্থ থেকে কীভাবে প্রাণের উৎপত্তি হয়েছিল, সে সম্পর্কিত গবেষণাকে বোঝায়।[১][২][৩][৪][৫] নির্জীব পদার্থ থেকে জীবন্ত বস্তুতে রূপান্তর কোন একক ঘটনা নয়, বরং তা ধারাবাহিক প্রক্রিয়া।[৬][৭][৮][৯]

জীবনের উৎপত্তি জীবাশ্মবিজ্ঞান, রসায়ন ও আধুনিক জীবের বৈশিষ্ট সমন্বয়ে অধ্যয়ন করা হয়। এতে জীবন গঠনের পূর্বে জৈবিক প্রক্রিয়ায় মাধ্যমে কীভাবে প্রাণের সঞ্চার হয় তা আলোচনা করা হয়।[১০] জীবনের উৎপত্তি বিষয়ক অধ্যয়ন জৈবপদার্থ, রসায়ন বা জীববিজ্ঞান সম্পর্কিত হতে পারে।[১১] সাম্প্রতিক গবেষণায় এই তিনটি বিষয়কে একত্রে আলোকপাত করার চেষ্টা করা হয়েছে,[১২] কারণ বর্তমান সময়ে যে পারিপার্শ্বিকতায় জীবনের উৎপত্তি হচ্ছে তা পূর্বের থেকে ভিন্ন।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. শার্ফ, ক্যালেব (১৮ ডিসেম্বর ২০১৫)। "A Strategy for Origins of Life Research"অ্যাস্ট্রোবায়োলজি (ইংরেজি ভাষায়)। ১৫ (১২): ১০৩১–১০৪২। ডিওআই:10.1089/ast.2015.1113পিএমআইডি 26684503পিএমসি 4683543 বিবকোড:2015AsBio..15.1031S। সংগ্রহের তারিখ ২১ এপ্রিল ২০১৮ 
  2. Oparin 1953, পৃ. vi
  3. পেরেতো, জুলি (২০০৫)। "Controversies on the origin of life" (PDF)ইন্টারন্যাশনাল মাইক্রোবায়োলজি (ইংরেজি ভাষায়)। বার্সেলোনা: স্প্যানিশ সোসাইটি ফর মাইক্রোবায়োলজি। (১): ২৩–৩১। আইএসএসএন 1139-6709পিএমআইডি 15906258। ২৪ আগস্ট ২০১৫ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২১ এপ্রিল ২০১৮ 
  4. ভার্মফ্লাশ, ডেভিড; ভার্মফ্লাশ, বেঞ্জামিন (নভেম্বর ২০০৫)। "Did Life Come from Another World?"। সাইন্টিফিক আমেরিকান (ইংরেজি ভাষায়)। স্টুটগার্ড: গেয়র্গ ফন হলৎসব্রিংক পাবলিশিং গ্রুপ। ২৯৩ (৫): ৬৪–৭১। আইএসএসএন 0036-8733ডিওআই:10.1038/scientificamerican1105-64বিবকোড:2005SciAm.293e..64W 
  5. Yarus 2010, পৃ. 47
  6. হওয়েল, এলিজাবেথ (৮ ডিসেম্বর ২০১৪)। "How Did Life Become Complex, And Could It Happen Beyond Earth?"অ্যাস্ট্রোবায়োলজি (ইংরেজি ভাষায়)। ১৭ আগস্ট ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২১ এপ্রিল ২০১৮ 
  7. ডেভিস, জন (২৯ অক্টোবর ২০১৩)। "Paleontologist presents origin of life theory"টেক্সাস প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২১ এপ্রিল ২০১৮ 
  8. "Abiogenesis - A Brief History"All About Science (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২১ এপ্রিল ২০১৮ 
  9. Tirard, Stephane (২০ এপ্রিল ২০১৫)। "Abiogenesis - Definition"অ্যাস্ট্রোবায়োলজি বিশ্বকোষ (ইংরেজি ভাষায়)। স্প্রিঞ্জার। ডিওআই:10.1007/978-3-642-27833-4_2-4। সংগ্রহের তারিখ ২১ এপ্রিল ২০১৮ 
  10. Voet ও Voet 2004, পৃ. 29
  11. Dyson 1999
  12. ডেভিস, পল (১৯৯৮)। The Fifth Miracle, Search for the origin and meaning of life (ইংরেজি ভাষায়)। পেঙ্গুইন। 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা