চোফু (調布市, Chōfu-shi) হল জাপানের টোকিও মেট্রোপলিসের পশ্চিমের শেষদিকে অবস্থিত একটি শহর

চোফু
調布市
শহর
চোফু পতাকা
পতাকা
Location of Chōfu in Tokyo Metropolis
Location of Chōfu in Tokyo Metropolis
চোফু জাপান-এ অবস্থিত
চোফু
চোফু
 
স্থানাঙ্ক: ৩৫°৩৯′২.২১″ উত্তর ১৩৯°৩২′২৬.৫″ পূর্ব / ৩৫.৬৫০৬১৩৯° উত্তর ১৩৯.৫৪০৬৯৪° পূর্ব / 35.6506139; 139.540694
দেশজাপান
এলাকাকানতো
প্রশাসনিক বিভাগটোকিও মেট্রোপলিস
সরকার
 • মেয়রইয়োশিকি নাগাতোমো (২০০২ সালের জুন থেকে)
আয়তন
 • মোট২১.৫৩ বর্গকিমি (৮.৩১ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (জুন ১ , ২০১০)
 • মোট২,২৪,৮৭৮
 • জনঘনত্ব১০,৪৪০/বর্গকিমি (২৭,০০০/বর্গমাইল)
সময় অঞ্চলJapan Standard Time (ইউটিসি+9)
-গাছCinnamomum camphora
- ফুলLagerstroemia indica
- পাখিJapanese White-eye
Phone number০৪২-৪৮১-৭১১১
ঠিকানা২-৩৫-১ কোজিমা-চো, চোফু-শু, টোকির-to ১৮২-৮৫১১
ওয়েবসাইটChōfu city official HP
আজিনোমোতো স্টেডিয়াম
The Tokyo Metropolitan Government Jindai Botanical Garden

২০১০ সালের আদমশুমারি অনুযায়ী চোফুর জনসংখ্যা ২২৪,৮৭৮ জন এবং প্রতি কিলোমিটারে² ১০৪৪০জন বাস করে। চোফুর আয়তন ২১.৫৩ কিমি (৮.৩১ মা)। চোফুতে অবস্থিত টোকিও স্টেডিয়ামে ( সাধারণত আজিনমোতো স্টেডিয়াম নামে অধিক পরিচিত) ফুটবলের দুইটি পেশাদারি লীগ হয়। যথা:এফ.সি টোকিও আর টোকিও ভারডেই

ভূগোলসম্পাদনা

চোফু টোকিওর ভূগোলিক কেন্দ্রের পাশে অবস্থিত এবং পাশে তামা নদী রয়েছে।

পার্শ্ববর্তী পৌরসভাসম্পাদনা

ইতিহাসসম্পাদনা

জাপানি প্রস্তরযুগ থেকে বর্তমানের চোফুতে মানুষেরা বসবাস করছে। চোফুতে জোমেন, ইয়্যায়ু, কোফুন যুগের অবশিষ্টাংশ পাওয়া গেছে। নারা যুগে চোফু মুশাশি প্রদেশের অংশ ছিল। সেনগোকু যুগ থেকে চোফু, লেট হোজো চ্যান আর উয়েসুগি ক্লানের মধ্যে দ্বন্দ্ব হয়ে আসছে। ইডো যুগে চোফু পোস্ট স্টেশনে রূপান্তর হয়। ১৮৯৩ সালে ১লা এপ্রিল চোফু জেলাকে টোকিও মেট্রোপলিসের অধীনে স্থান্তর করা হয়। ১৯৫২ সালের ৩ নভেম্বর জিনদাই শহর হয়। ১৯৫৫ সালের ১লা এপ্রিল জিনদাই চোফুর সাথে যুক্ত হয়।

ব্যবসাসম্পাদনা

চোফু ধর্মীয় নিদর্শনের জন্য পরিচিত

জাপান এরোস্পেস এক্সপ্লোরেশন এজেন্সির সদর দপ্তর চোফুতে অবস্থিত।

পরিবহণসম্পাদনা

রেলসম্পাদনা

মহাসড়কসম্পাদনা

এয়ারপোর্টসম্পাদনা

শিক্ষাসম্পাদনা

কলেজ আর বিশ্ববিদ্যালয়সমূহ:

পাবলিক সিনিয়র হাই স্কুল (পরিচালনায় টোকিও মেট্রোপলিটন শিক্ষা বোর্ড:

বেসরকারি প্রাথমিক আর মাধ্যমিক বিদ্যালয়:

তথ্যসূত্রসম্পাদনা