গাব্রিয়েলা মিস্ত্রাল সাংস্কৃতিক কেন্দ্র

চিলির রাজধানী সান্তিয়াগো শহরে অবস্থিত একটি সাংস্কৃতিক কেন্দ্র

গাব্রিয়েলা মিস্ত্রাল সাংস্কৃতিক কেন্দ্র বা স্থানীয় স্পেনীয় ভাষাতে সেন্ত্রো কুলতুরাল গাব্রিয়েলা মিস্ত্রাল (স্পেনীয়: Centro Cultural Gabriela Mistra) চিলির সান্তিয়াগোর ২২৭ এভিনিউ লার্বাতাদোর বার্নাদো ও’হিগিন্স এলাকায় অবস্থিত সাংস্কৃতিক কেন্দ্রবিশেষ[১] দুইটি ভবন নিয়ে গড়া ও প্রায় ২২০০০ বর্গমিটার আয়তনের এ সাংস্কৃতিক কেন্দ্রটি মূলতঃ আঙ্কটাডের তৃতীয় সম্মেলনের সদর দফতর হিসেবে ব্যবহারের জন্য নির্মাণ করা হয়েছিল।[২] ১৯৭২ সালে সান্তিয়াগোতে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

গাব্রিয়েলা মিস্ত্রাল সাংস্কৃতিক কেন্দ্র
সেন্ত্রো কুলতুরাল গাব্রিয়েলা মিস্ত্রাল
Centro cultural Gabriela Mistral 23 4.JPG
২০১০ সালে গাব্রিয়েলা মিস্ত্রাল সাংস্কৃতিক কেন্দ্র
গঠিত১৯৭২; ৫০ বছর আগে (1972)
প্রতিষ্ঠাতাচিলি সরকার
প্রতিষ্ঠাস্থানসান্তিয়াগো
ধরনসাংস্কৃতিক কেন্দ্র
আইনি অবস্থাসক্রিয়
অবস্থান
স্থানাঙ্ক
দাপ্তরিক ভাষা
স্পেনীয়
ওয়েবসাইটhttp://www.gam.cl/
প্রাক্তন নাম
দিয়েগো পোর্তালস ভবন

ইতিহাসসম্পাদনা

সাধারণ অনুষ্ঠানের জন্য সম্মেলন কেন্দ্রসহ এর সাথে ২২-তলা ভবন রয়েছে। দশটি কক্ষে প্রদর্শনী কেন্দ্র, অনুশীলন, সেমিনার, গ্রন্থাগার, অনুষ্ঠান ধারণের কক্ষ, সভাকক্ষ, ক্যাফেটেরিয়া, রেঁস্তোরা রয়েছে। এছাড়াও, ফ্রি ওয়াই-ফাই সংযোগ ব্যবস্থা বিদ্যমান।[৩]

মাত্র ২৭৫ দিনে এ ভবনের নির্মাণকার্য সম্পন্ন হয়েছিল। কয়েক হাজার স্বেচ্ছাসেবীর উল্লেখ্যযোগ্য সহায়তার ফলেই এটি সম্ভবপর হয়েছে। ১৯৭০ সালের শেষ দিক থেকে সেপ্টেম্বর, ১৯৭৩ সময়কালীন ক্ষমতাসীন সমাজতান্ত্রিক সরকারের প্রধান সালবাদোর আইয়েন্দের উদাত্ত্ব আহ্বানে ও ব্যাপক প্রচারণার ফলে স্বেচ্ছাসেবীরা কাজে অগ্রসর হয়েছিল।

সফলভাবে সম্মেলন আয়োজনের পর ভবনটি সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে রূপান্তরিত হয়। কিন্তু, ১৯৭৩ সালে চিলিতে সামরিক অভ্যুত্থান হলে তা পিনোচে সরকারের আমলে এখানে একগুচ্ছ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় ও প্রধান ভবনে জাতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে পরিণত হয়।

পুণঃনির্মাণসম্পাদনা

২০০৬ সালের প্রথমদিকে অগ্নিকাণ্ডের ফলে ভবনের অংশবিশেষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এরফলে মিশেল বাশলে সরকার ভবন নিয়ে পুনরায় চিন্তা-ভাবনা করতে থাকেন। সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের দিকে ফিরিয়ে আনেন ও জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করেন দেন তিনি। শহুরে পরিবেশের সাথে তাল মিলিয়ে এর অবকাঠামো নির্মাণ করা হয়। ভবনে প্রচ্ছন্নভাবে দৃশ্য ধারনের ব্যবস্থা রাখার ফলে অনেক শিল্পকর্মই প্রকৃত রূপে দৃশ্যমান হয়। দ্বিতীয় পর্যায়ে একটি মিলনায়তন তৈরি করা হয় যাতে ২০০০ ব্যক্তির সমাগম ঘটে ও খুব দ্রুত চালু করা হয়।[২]

পুণঃনামকরণসম্পাদনা

১৯ অক্টোবর, ২০০৯ তারিখে দিয়েগো পোর্তালস ভবনের নাম পরিবর্তন করে সেন্ত্রো কালচারাল গাব্রিয়েলা মিস্ত্রালের উদ্বোধন করা হয়।[২] নোবেল পুরস্কার বিজয়ী গাব্রিয়েলা মিস্ত্রালের নাম অনুসারে এর বর্তমান নামকরণ হয়। ২৭ অক্টোবর, ২০০৯ তারিখে চিলীয় রাষ্ট্রপতি মিশেল বাশলে ২০৩৮৬ আইনের মাধ্যমে চিলীয় সংস্কৃতি ও হিস্পানিক-আমেরিকান লেখনিতে অবিস্মরণীয় অবদানের প্রেক্ষিতে তার স্মরণে ও সম্মানার্থে অধ্যাদেশ জারী করেন।

কর্মকাণ্ডসম্পাদনা

বর্তমানে এই সাংস্কৃতিক কেন্দ্রটি শিল্পকলা ও সঙ্গীত অনুষ্ঠানের জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে। এছাড়াও, অন্যান্য কর্মকাণ্ডের মধ্যে সমসাময়িক নাটক ও নৃত্যকলার পাশাপাশি ধ্রুপদী ও জনপ্রিয় সঙ্গীত চর্চার কেন্দ্রস্থলে পরিণত হয়েছে। এর ধারাবাহিক উত্তরণ অব্যাহত আছে। সমসাময়িক চিত্রকলা ও জনপ্রিয় শিল্পকলার পীঠস্থান হিসেবে এখানে দৃশ্যমান শিল্পকলার জন্য জিএএম কক্ষ স্থাপন করা হয়েছে। সুন্দর ব্যবস্থাপনা ও উঁচুমানের কারণে শিল্পী ও দর্শকের মাঝে সেঁতুবন্ধন গড়ে উঠেছে।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. GAM Cultural Center। www.gam.cl, সম্পাদক। "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ৪ অক্টোবর ২০১১ তারিখে Cultural Center মূল |ইউআরএল= এর মান পরীক্ষা করুন (সাহায্য) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জুন ২০১৭ 
  2. "Archived copy"। ২০১২-০১-১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৫-১৮ 
  3. Infrastructure, s/f; Access 09.08.2013

আরও দেখুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা