কৈলাসচন্দ্র বিদ্যাভূষণ

কৈলাসচন্দ্র বিদ্যাভূষণ (২৫ অগ্রহায়ণ, ১২৬৬—২৭ ফাল্গুন, ১৩০৯) একজন বাঙালি পণ্ডিত, সম্পাদক ও সংগীত বিশেষজ্ঞ।

প্রারম্ভিক জীবনসম্পাদনা

১২৬৬ বঙ্গাব্দের ২৫শে অগ্রহায়ণ হাওড়া জেলার অন্তর্গত সাতরাগাছির প্রসিদ্ধ পণ্ডিত বংশে তাঁর জন্ম হয়।[১] তার পিতার নাম নন্দলাল বিদ্যারত্ন। তিনি ছিলেন পিতার মধ্যম পুত্র। তার পিতামহ নৈয়ারিক পণ্ডিত হলধর ন্যায়রত্ন মহাশয়। পিতামহের টোলে ভারতবর্ষের বিভিন্ন স্থান থেকে ছাত্র পড়তে আসতেন। কৈলাসচন্দ্র কলকাতায় মাতামহ কাশীনাথ তর্কবাগীশ মহাশয়ের বাড়িতে থেকে সংস্কৃত কলেজে পড়তেন। তিনি এম এ পরীক্ষায় কৃতিত্বের সাথে উত্তীর্ণ হন ও ডাফ কলেজের সংস্কৃত অধ্যাপকের পদে নিযুক্ত হন।[২]

অবদানসম্পাদনা

বিখ্যাত সোমপ্রকাশ পত্রিকার সম্পাদক পণ্ডিত দ্বারকানাথ বিদ্যাভূষণের মৃত্যুর পরে কৈলাসচন্দ্র তাঁর পুত্রদের কাছ থেকে সোমপ্রকাশ পত্রিকার সত্ত্ব কিনে নেন ও সম্পাদনা করতে থাকেন। সংগীত শাস্ত্রেও তার বিশেষ নৈপুণ্য ছিল। তিনি একজন বিখ্যাত মাৰ্দ্দঙ্গিকও ছিলেন। পণ্ডিত কৈলাসচন্দ্র ১৩০৯ বঙ্গাব্দের ২৭শে ফান্তুন মারা যান।[২]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা