কেরোসিন

দাহ্য তরল হাইড্রোকার্বন

কেরোসিন বা ল্যাম্প অয়েল হল একধরনের দাহ্য হাইড্রোকার্বন গোত্রের তরল, যা শিল্পক্ষেত্র এবং গৃহস্থালীতে জ্বালানি হিসেবে বহুলব্যবহৃত। এই নামটি গ্রীক:κηρός (keros) থেকে উদ্ভূত, যার অর্থ মোম । সাধারণ ট্রেডমার্ক হিসাবে প্রচলিত হবার আগে আব্রাহাম গেনসার নামে একজন ব্যক্তি ১৮৫৪ সালে এই নামটি ট্রেডমার্ক হিসাবে রেজিষ্ট্রী করেন। এর দহন তাপ ৩০০-৩৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। কেরোসিন প্রকৃত পক্ষে বর্ণহীণ, কিন্তু এরোমেটিক্সের উপস্থিতির জন্য এর বর্ণ পাওয়া যায়।কেরোসিন যেহেতু তরল হাইড্রোকার্বন,সুতরাং এটি তড়িৎ পরিবহন করতে পারে না। এজন্য একে তড়িৎ অবিশ্লেষ্য পদার্থ বলে।

অস্ট্রেলিয়ায় ব্যবহৃত নীল রঙের কেরোসিনের বোতল

কেরোসিন বিমানের জেট ইঞ্জিনগুলি (জেট ফুয়েল) এবং কিছু রকেট ইঞ্জিনে বহুল ব্যবহৃত হয় এবং এটি সাধারণত রান্না ও আগুন জালাতে জ্বালানী হিসাবে এবং পোয়ের মতো আগুনের খেলনাগুলির ক্ষেত্রেও ব্যবহৃত হয়।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা