প্রধান মেনু খুলুন

কিউশু

জাপানের তৃতীয় বৃহত্তম দ্বীপ

কিউশু (জাপানি ভাষায় 九州) জাপানের তৃতীয় বৃহত্তম দ্বীপ এবং জাপানের চারটি দ্বীপের মধ্যে সবচেয়ে দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থিত। এটির প্রাচীন নাম ছিল কিউকোকু (জাপানি ভাষায় 九国, বাংলায় "নয়টি রাজ্য”), চিনজেই (জাপানি ভাষায় 鎮西, বাংলায় "প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের পশ্চিম অংশ"), এবং সুকুশি-নো-শিমা (জাপানি ভাষায় 筑紫島, বাংলায় "সুকুশির দ্বীপ ")। অষ্টম শতকে তাইহো কোড পুনর্গঠিত হলে ফুকোকা (তৎকালীন কিউশু) দ্বীপের শহর দাজাইফু অঞ্চলটির একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রশাসনিক স্থানে পরিণত হয়।[২] ২০০৬ সালের হিসাব অনুযায়ী ৩৫,৬৪০ বর্গকিলোমিটার (১৩,৭৬০ বর্গমাইল) আয়তনের কিউশুর জনসংখ্যা ছিল ১৩,২৩১,৯৯৫ জন।

কিউশু
স্থানীয় নাম:
九州
Terra Kyushu 20091028.jpg
জাপানের কিউশু প্রদেশ এবং বর্তমানে কিউশু দ্বীপের এলাকা
Japan kyushu map small.png
ভূগোল
অবস্থানপূর্ব এশিয়া
দ্বীপপুঞ্জজাপান দ্বীপপুঞ্জ
আয়তন৩৫,৬৪০ বর্গকিলোমিটার (১৩,৭৬০ বর্গমাইল)
আয়তনে ক্রম৩৭তম
তটরেখা১২,২২১ কিমি (৭,৫৯৩.৮ মাইল)
সর্বোচ্চ উচ্চতা১,৭৯১ মিটার (৫,৮৭৬ ফুট)
সর্বোচ্চ বিন্দুকুজু পর্বতমালা[১]
প্রশাসন
জাপান
বৃহত্তর বসতিফুকুওকা (জনসংখ্যা ১৪,০০,০০০)
জনপরিসংখ্যান
জনসংখ্যা১৩,২৩১,৯৯৫
জনঘনত্ব৩৩২ /বর্গ কিমি ( /বর্গ মাইল)
জাতিগত গোষ্ঠীসমূহজাপানি

ভৌগোলিক অবস্থাসম্পাদনা

 
মানচিত্রে কিউশু এবং এর অঞ্চলসমূহ

কিউশু দ্বীপটি পর্বতবহুল এবং এখানে জাপানের সবচেয়ে জীবন্ত আগ্নেয়গিরি এসো পর্বত রয়েছে যার উচ্চতা ১৫৯১ মিটার (৫২২০ ফুট)। এখানে টেকটনিক ক্রিয়ার চিহ্নও রয়েছে। আজকের কিউশু অঞ্চলটি (九州 地方 কিউশু-চিহোও) সাতটি প্রশাসনিক অঞ্চল বা কেন্‌-এর সমন্বয়ে গঠিত একটি রাজনৈতিক সংজ্ঞায়িত অঞ্চল। এই প্রশাসনিক অঞ্চলগুলো হলঃ

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Kujū-san, Japan"। Peakbagger.com। 
  2. Nussbaum, "Dazaifu" in গুগল বইয়ে p. 150, পৃ. 150,; Dazaifu