ওজনহীনতা বা ওজনশূন্যতা বলতে কোন কারণে অভিকর্ষ বলের দরুণ পৃথিবীর প্রতি যেকোন বস্তুর এই আকর্ষণের মান শূন্য তথা ওজন শূন্য হওয়ার ঘটনাকে বোঝায়। পৃথিবীর যেকোন বস্তুই একে অপরকে আকর্ষণ করছে । এই আকর্ষণের জন্য পৃথিবীর মধ্যাকর্ষণ শক্তির ভেতরের সকল বস্তুকেই পৃথিবী তার নিজের দিকে টেনে নেয় ।পৃথিবীর অভিকর্ষ বলের দরুণই এ ঘটনা ঘটে থাকে। পৃথিবীর দিকে কোন বস্তুর এ আকর্ষণ বলই হল ঐ বস্তুর ওজন

আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনের মহাকাশচারীরে কেবল অণুমহাকর্ষ অনুভব করেন, যা ওজনহীনতার একটি দৃষ্টান্ত।
X গ্রহে একটি সীসাখন্ডের মুক্ত পতন। যদিও সীসাখন্ডটি গ্রহটির মাধ্যাকর্ষণের টানে নিচে পড়ছে, বলা হয় এটি একটি ওজনহীন অবস্থায় আছে।

কোন বস্তুর উপড় পৃথিবীর অভিকর্ষ বল = বস্তুর ভর x পৃথিবীর অভিকর্ষজ ত্বরণ (W=mg), তাই পৃথিবীর দিকে কোন বস্তু পৃথিবীর অভিকর্ষজ ত্বরণ এর সমান ত্বরণে ধাবিত হলে ঐ বস্তুটি ওজনহীনতা অনুভব করবে।

আবার নিউটনের গতির ৩য় সূত্র থেকে আমরা জানি যে, প্রত্যেক ক্রিয়ারই সমান ও বিপরীত প্রতিক্রিয়া রয়েছে। তাই পড়ন্ত বস্তুর ক্ষেত্রে বস্তু কর্তৃক বল থাকলেও তার প্রতিক্রিয়া থাকে না। তাই W=mg=0 হয়। অর্থাৎ বস্তুর প্রকৃত ভর থাকলেও বস্তুটি ওজনহীন হয়।

২০০৪ সালে অক্টোবরে, ZERO-G এর প্রথম বাণিজ্যিক ফ্লাইট উড়ে সব প্রধান বিমান বাহক এর সমান নিরাপত্তা মান অনুযায়ী পরিচালিত হয় এবং সাধারণ জনগণের জন্য প্রথম এবং একমাত্র বাণিজ্যিক জিরো গ্রাভিটি (ওজনহীনতা) ফ্লাইট হিসাবে পর্যটন শিল্পের মধ্যে প্রতিষ্ঠিত হয়।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা