প্রধান মেনু খুলুন

উৎপলকুমার বসু

ভারতীয় কবি

উৎপলকুমার বসু (৩ আগস্ট ১৯৩৯ - ৩ অক্টোবর ২০১৫)[১] বাংলা সাহিত্যে হাংরি আন্দোলন-এর একজন খ্যাতনামা কবি । ১৯৬০ পর্যন্ত তিনি কৃত্তিবাস গোষ্ঠীর কবি হিসাবে পরিচিত ছিলেন ।

উৎপলকুমার বসু
Self signed.jpg
জন্ম৩ আগস্ট ১৯৩৯
মৃত্যু৩ অক্টোবর ২০১৫
পশ্চিমবঙ্গ, ভারত
জাতীয়তাভারতীয়
জাতিসত্তাবাঙালি
নাগরিকত্বভারত Flag of India.svg
যে জন্য পরিচিতকবি, সাহিত্যিক

পরিচ্ছেদসমূহ

হাংরি আন্দোলনসম্পাদনা

সমীর রায়চৌধুরীর কলেজ - জীবনের বন্ধু উৎপল ১৯৬১ সালে হাংরি আন্দোলন এর সূত্রপাত ঘটতেই তাতে যোগ দেন, এবং তাঁর কবিতা রচনার ধারায় বাঁকবদল ঘটে । হাংরি আন্দোলন এর কারণে ১৯৬৪ সালে তাঁর বিরুদ্ধেও গ্রেপতারি পরোয়ানা জারি হয়েছিল । সেকারণে তিনি যোগমায়া দেবী কলেজের অধ্যাপনা থেকে বরখাস্ত হন । ১৯৬৫ সালে অভিমানাহত উৎপল লন্ডনে গিয়ে বসবাস আরম্ভ করেন । সেখানে তিনি শিক্ষকতা করতেন । লন্ডনে বসবাসকালে তিনি বিবাহ করেন এবং কবিতা লেখা থেকে সাময়িক বিরতি নেন ।

সাহিত্যধারাসম্পাদনা

দুই দশক পর কলকাতায় ফিরে উৎপলকুমার বসু পুনরায় কবিতা লেখা আরম্ভ করেন । তাঁর সমসাময়িক, এমনকি তরুণতর কবিদের তুলনায় তাঁর কবিতা ছিল সম্পূর্ণ নূতন ।নিরাসক্ত ও নির্লিপ্তভাবে বস্তুস্বভাবের যথাযথ বর্ণনা তাঁর কবিতার মুখ্য বৈশিষ্ট্য । বস্তুর অভ্যন্তর সত্যের অভিমুখে কবিতাকে চালনা করেছেন উৎপল । তাঁর চারপাশে ছড়িয়ে থাকা জীবন প্রকৃতি কোনো রহস্যভূমি রচনা না করেই তাঁর কবিতে মেলে ধরে বর্তমান সমাজবাস্তবতা । উৎপলকুমার বসু বহুলব্যবহৃত শব্দগুলোকে কবিতার শরীরে এমনভাবে স্হাপন করেছেন যে তার ফলে তৈরি হয়েছে বাক্যের নূতন মাত্রা । অনেকে অবশ্য বলেন তাঁর কবিতা 'আকারসর্বস্ব'।

কাব্যগ্রন্হসম্পাদনা

 
একটি অনুষ্ঠানে কবিতা পড়ছেন উৎপলকুমার বসু
  • চৈত্রে রচিত কবিতা (১৯৬১)
  • পুরী সিরিজ (১৯৬৪)
  • আবার পুরী সিরিজ (১৯৭৮)
  • লোচনদাস কারিগর (১৯৮২)
  • খণ্ডবৈচিত্রের দিন (১৯৮৬)
  • শ্রেষ্ঠ কবিতা ( ১৯৯১)
  • সলমাজরির কাজ (১৯৯৫)
  • পদ্যসংগ্রহ (১৯৯৬ )
  • কবিতাসংগ্রহ (১৯৯৬)
  • কহবতীর নাচ (১৯৯৭)
  • নাইট স্কুল (১৯৯৯)
  • টুসু আমার চিন্তামণি (২০০০)

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "কবি উৎপলকুমার বসু আর নেই"বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম। ৩ অক্টোবর ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৫ অক্টোবর ২০১৫ 
  • যোগসূত্র উৎপলকুমার বসু সংখ্যা (১৯৯৪) । সম্পাদক: বিনয় ঘোষ । টি.জি. ২/২৯, তেঘরিয়া, হাতিয়ারা, কলকাতা ৭০০০৫৯ । আলোচকগণ : তরুণ বন্দ্যোপাধ্যায়, যোগেন চৌধুরী, প্রশান্ত মাজী, অলোকরঞ্জন দাশগুপ্ত, মিহির চক্রবর্তী, রাঘব বন্দ্যোপাধ্যায়, বীরেন্দ্রনাথ রক্ষিত, উপল দত্তগুপ্ত, গৌতম বসু, চৈতালী চট্টোপাধ্যায়, কালীকৃষ্ণ গুহ ও রঞ্জন বন্দ্যোপাধ্যায় ।

বহিঃসংযোগসম্পাদনা