উমাইয়া ইবনে খালাফ

উমাইয়া ইবন খালাফ ইবন সাফওয়ান[১] ছিলেন মক্কার অধিবাসী একজন আরব, কুরাইশ গোত্রের একজন নেতৃস্থানীয় সদস্য এবং বনি জুমাহ গোত্রের প্রধান। তিনি ছিলেন নবী মুহাম্মাদের অনুসারী মুসলিমদের একজন প্রতিপক্ষ যিনি বিলাল ইবন রাবাহ নাম্নী ক্রীতদাস সাহাবীর মুনিব হওয়ার জন্য এবং ইসলাম গ্রহণ করার কারণে তাকে নির্যাতন করার জন্য সবচেয়ে বেশি পরিচিত।

জীবনীসম্পাদনা

পরিবারসম্পাদনা

কুনিয়া: আবু সাফওয়ান

নিসবাহ: উমাইয়া ইবনে খালাফ ইবনে হাবিব ইবনে ওয়াহাব ইবনে হুজাফাহ ইবনে জুমাহ

তার পুত্র, সাফওয়ান ইবনে উমাইয়া, মক্কা বিজয়ের পর্ব ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে। তার আরেক পুত্র ওয়ালিদ বদরের যুদ্ধে নিহত হয়।

ভাই: ওয়াহাব ইবনে উবাই

নাতি: আবদুল্লাহ ইবনে সাফওয়ান

মুসলিমদের বিরোধিতাসম্পাদনা

উমাইয়া মক্কার মূর্তিপূজার আনুষ্ঠানিকতার সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিলেন। তিনি কাবা প্রাঙ্গনে সুগন্ধি বিতরণ করতেন।

মুহাম্মাদ মূর্তিপূজার বিরোধিতা শুরু করলে উমাইয়া তার ঘোর বিরোধী হয়ে ওঠেন।

তিনি তার ক্রীতদাস বিলাল ইবনে রাবাহকে ইসলাম গ্রহণের অপরাধে নির্যাতনের কারণেও সমধিক পরিচিত। বিলালকে মরুভূমির উত্তপ্ত বালিতে শুইয়ে রাখা হতো এবং তার বুকের উপর একটি বড় আকারের ভারি পাথর রেখে দেয়া হতো, যে কারণে সে সময় তার নিঃশ্বাস প্রায় বন্ধ হয়ে যেতো। এরপরেও সে ইসলাম ত্যাগ করতে অস্বীকৃতি জানালে উক্ত পাথরের উপর একজন মানুষকে উঠিয়ে তাকে লাফাতে বলা হতো। এত কিছুর পরেও বিলাল অবিরাম "আহাদ, আহাদ" (এক ঈশ্বর, এক ঈশ্বর) বলে চিৎকার করতে থাকতো।

আবদুর রহমান ইবনে আওফের সাথে বন্ধুত্বসম্পাদনা

সাদের হজ্জসম্পাদনা

বদরের যুদ্ধসম্পাদনা

উমাইয়া বদরের যুদ্ধের দিন বিলাল ইবনে রাবাহর নির্দেশনায় আনসারদের হাতে তার এক পুত্রসহ নিহত হন।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা