ইন্দ্রায়নি এক্সপ্রেস

ভারতীয় রেলওয়ে

২২১০৫/২২১০৬ ইন্দ্রায়নি এক্সপ্রেস (মারাঠি: इंद्रायणी एक्स्प्रेस) হলো ভারতীয় রেলওয়ের অন্তর্ভুক্ত একটি সুপারফাস্ট এক্সপ্রেস ট্রেন। এই ট্রেনটি ভারতের মুম্বাই সিএসটি থেকে পুনে জংশন অবধি যাতায়াত করে।

ইন্দ্রায়নি এক্সপ্রেস
22106 Indrayani Express.jpg
সংক্ষিপ্ত বিবরণ
পরিষেবা ধরনসুপারফাস্ট এক্সপ্রেস
প্রথম পরিষেবা২৭ এপ্রিল ১৯৮৮
বর্তমান পরিচালককেন্দ্রীয় রেলওয়ে
যাত্রাপথ
শুরুমুম্বাই সিএসটি
বিরতি8 as 22105 Indrayani Express, 7 as 22106 Indrayani Express
শেষPune
ভ্রমণ দূরত্ব১৯২ কিমি (১১৯ মা)
যাত্রার গড় সময়3 hours 28 minutes as 22105 Indrayani Express, 3 hours 20 minutes as 22106 Indrayani Express
পরিষেবার হারdaily
রেল নং22105 / 22106
যাত্রাপথের সেবা
শ্রেণীAC Chair Car, Second Class sitting
আসন বিন্যাসYes
ঘুমানোর ব্যবস্থাNo
খাদ্য সুবিধাNo Pantry Car
পর্যবেক্ষণ সুবিধাRake Sharing with 12169/70 Pune Solapur Intercity Express
কারিগরি
পরিচালন গতি১১০ কিমি/ঘ (৬৮ মা/ঘ) maximum
৫৬.৪৭ কিমি/ঘ (৩৫ মা/ঘ), including halts

এই ট্রেনটি প্রতিদিন চলাচল করে এবং এর নামকরণ পুনের কাছাঁকাছি প্রবাহিত নদী, ইন্দ্রায়নি নদীর নাম থেকে করা হযেছে।

গোড়ার দিকে এই ট্রেনটি যখন মুম্বাই থেকে পুনে যেত থকন এই রেলগাড়ির সংখা ছিল ১০২১ এবং পুনে থেকে মুম্বাই যাওয়ার সময় এর সংখা ছিল ১০২২। পরে এই ট্রেনটি আপগ্রেড হযে সুপারফাস্ট হওয়ার পর এটিকে পুনরায় সংখাযুক্ত করা হয় ২২১০৫ (মুম্বাই সিএসটি - পুনে জংশন) এবং ২২১০৬ (পুনে জংশন - মুম্বাই সিএসটি)।[১]

কোচসম্পাদনা

বর্তমানে ইন্দ্রায়নি এক্সপ্রেস ট্রেন এ ২ খানা এ সি চেয়ার কার, ৮ খানা জেনারেল দ্বিতীয় শ্রেনীর কামরা আছে। এই ট্রেন এ পাস হোল্ডারদের জন্য আরো ২ খানা জেনারেল দ্বিতীয় শ্রেনীর কামরা আছে এবং ৫ টি জেনারেল অসংরক্ষিত কামরা আছে। ভারতীয় রেলের সঙ্গে গতানুগতিক চুক্তি হিসাবে চাহিদা অনুযায়ী এই ট্রেন এ কামরা বাড়ানো বা কমানো হয়।

এই ট্রেনটির নাম বদল করে পুনে সোলারপুর ইন্টারসিটি এক্সপ্রেস এর সাথে এর কামরা গুলো ব্যবহার করা হয় এবং এর ক্রিয়াকলাপ নিয়ন্ত্রণ করে সেন্ট্রাল রেলওয়ে।

সেবাসম্পাদনা

ইন্দ্রায়নি এক্সপ্রেস প্রথম চলাচল শুরু করে ২৭ এ এপ্রিল, ১৯৮৮ সালে। এই ট্রেনটি মুম্বাই সি এস টি থেকে পুনে জংশন এর মধ্যে চলাচল করা ৬ টি ইন্টারসিটি চেয়ার কার ট্রেন এর মধ্যে একটি। বাকি ৫ টি ট্রেন হলো ১২১২৭/২৮ মুম্বাই পুনে ইন্টারসিটি এক্সপ্রেস, ১১০০৭/০৮ ডেকান এক্সপ্রেস, ১১০০৯/১০ সিন্হাগাদ এক্সপ্রেস, ১২১২৫/২৬ প্রগতি এক্সপ্রেস এবং ১২১২৩/২৪ ডেকান কুইন।

এই ট্রেন টি ২২১০৫ ইন্দ্রায়নি এক্সপ্রেস হিসাবে ১৯২ কিলোমিটার্স এর দুরত্ব ৫৫.৩৮ কিমি প্রতি ঘণ্টার বেগে ৩ ঘণ্টা ২৮ মিনিট সময়ে পূরণ করে এবং ২২১০৬ ইন্দ্রায়নি এক্সপ্রেস হিসাবে একই দুরত্ব ৫৭.৬০ কিমি প্রতি ঘণ্টার বেগে ৩ ঘণ্টা ২০ মিনিট সময়ে পরিপূর্ণ করে।

ভ্রমণ বর্তনীসম্পাদনা

যদিও এই রেল পথটি সম্পূর্ণরূপে বৈদ্যুতিকরন হয়ে গেছে তবুও এই ট্রেনটি ডিজেল ইঞ্জিন দ্বারা চালিত। গুটি থেকে ডাব্লু দি এম ৩দি ইঞ্জিন এই ট্রেনটিকে মুম্বাই সি এস টি অবধি নিয়ে যায়।

সময় সূচীসম্পাদনা

মুম্বাই সি এস টি থেকে পুনে জংশন অবধি যাওয়ার ৬ টি ট্রেন এর মধ্যে ইন্দ্রায়নি এক্সপ্রেস সবার প্রথমে মুম্বাই থেকে ছারে এবং সবার শেষে এই ট্রেনটি আবার মুম্বাই সি এস টি তে ফেরত আসে।

২২১০৫ ইন্দ্রায়নি এক্সপ্রেস মুম্বাই সি এস টি থেকে প্রতিদিন সকাল ৫ টা বেজে ৪০ মিনিটে ছারে এবং সকাল ৯ টা বেজে ৮ মিনিটে এই ট্রেনটি পুনে জংশন এ গিয়ে পৌছায়।[২]

ফেরার পথে প্রতিদিন ২২১০৬ ইন্দ্রায়নি এক্সপ্রেস পুনে জংশন থেকে সন্ধা ৬ টা বেজে ৩৫ মিনিটে রওনা দেয় এবং এটা মুম্বাই সি এস টি তে রাত্রি ৯ টা বেজে ৫৫ মিনিটে এসে পৌছায়।

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

গ্যালারিসম্পাদনা

পথভ্রষ্টতা ঘটনার ব্যবধানসম্পাদনা

১৯৯৪ সালে ১লা ডিসেম্বরের রাতে, কার্জাত এবং লোনাভ্লার মাঝে ভরে ঘাট অঞ্চলের ঠাকুরওয়ারী কেবিন এর কাছাঁকাছি, ইঞ্জিনে আগুন লাগার দরুন ইন্দ্রায়নি এক্সপ্রেস তার গতিরোধ ক্ষমতা হারায়। এই ট্রেনটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ১০০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টার বেগে চড়াই উতরাই অতিক্রম করে সমতল ভূমিতে গিয়ে থামে। এই দুর্ঘটনার পিছনে সঠিক কারণ এখনো পর্যন্ত জানা যায়নি।[৩]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Indrayani Express"। Indiarailinfo.com। 
  2. "Indrayani Express-22105"। Cleartrip.com। 
  3. "IRFCA Mailing List Archive"। IRFCA।