আল ওদ কবরস্থান

আল ওদ কবরস্থান ( আরবি: مقبرة العود‎‎ ) হল সৌদি আরবের রিয়াদের আল-ওদ এলাকায় একটি পাবলিক কবরস্থান। যেটি দ্বিতীয় এবং বর্তমান সৌদি রাজ্যের অনেক রাজা, ক্রাউন প্রিন্স এবং রাজপরিবারের সমাধি স্থান হিসেবে পরিচিত।[১][২] পেনিনসুলার আরবি ভাষায় " আল-উদ" শব্দের অর্থ "বয়স্ক (বয়স্ক ব্যক্তি)", সম্ভবত রাজা আব্দুল আজিজকে বোঝায়, যাকে কবরস্থানে সমাহিত করা হয়েছিল।[৩]

আল ওদ কবরস্থান
বিস্তারিত
অবস্থানআল ওদ, রিয়াদ
দেশসৌদি আরব
স্থানাঙ্ক২৪°৩৭′২৩″ উত্তর ৪৬°৪৩′৪০″ পূর্ব / ২৪.৬২৩০৬° উত্তর ৪৬.৭২৭৭৮° পূর্ব / 24.62306; 46.72778
ধরনমুসলমান
মালিকসৌদি আরবের রাজা

অবস্থানসম্পাদনা

আল ওদ কবরস্থান আল গাফরান জেলায় অবস্থিত। রিয়াদের কেন্দ্র বাথা'আ রাস্তা থেকে প্রায় ১ কিমি দূরে অবস্থিত।[৪] কবরস্থানটি আল দিরিয়াহ এবং মানহুবের মধ্যে, দক্ষিণে বাথা'র রাস্তার ডানদিকে রয়েছে।[৫] এটি ইমাম তুর্কি বিন আবদুল্লাহ মসজিদ থেকে প্রায় ২ ১/২ কিমি দূরে।[৬] ২০১২ সালের মার্চ মাসে, রিয়াদ পৌরসভার পরিবেশগত স্বাস্থ্য অধিদপ্তর প্রতিটি কবরকে ইলেকট্রনিকভাবে চিহ্নিত করার জন্য একটি প্রকল্প শুরু করে।[৭] মানুষ সাধারণত মৃতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে সেখানে যায়।

সমাধিসম্পাদনা

কবরস্থানটি সুপরিচিতির কারণ হলো এটি বাদশাহ আব্দুল আজিজ, বাদশাহ ফাহদ, কিং খালিদ, বাদশাহ ফয়সাল, কিং সৌদ এবং বাদশাহ আবদুল্লাহ সহ অধিকাংশ সৌদি রাজকীয় সদস্যদের সমাধি রয়েছে।[৮][৯][১০][১১]

প্রিন্স সুলতান, প্রিন্স ফাহদ, প্রিন্স আহমেদ, সুলতানা বিনতে তুর্কি বিন আহমাদ আল সুদাইরি, বাদশাহ সালমানের স্ত্রী হুসা বিনতে তুর্কি আল আউয়াল এবং সুলতান বিন ফয়সাল বিন তুর্কি বিন আবদুল্লাহর মতো অন্যান্য প্রবীণ রাজকীয় ব্যক্তিত্বকেও সেখানে সমাহিত করা হয়েছিল।[৮][১২][১৩][১৪] অন্যদের মধ্যে রয়েছেন প্রিন্স নাসের, প্রিন্স ফয়সাল, প্রিন্স আবদুল মজিদ, প্রিন্স বদর, প্রিন্স মোহাম্মদ, প্রিন্স তুর্কি, সুলতানা বিনতে আবদুল আজিজ আল সৌদ এবং সৌদ বিন আবদুল্লাহ আল সৌদ ।

সুপরিচিত লেখক এবং জনসাধারণ যেমন গাজী আবদুল রহমান আল গোসাইবিকেও সেখানে সমাহিত করা হয়।[১৫] কবরস্থানটি সাধারণ এবং রাজপরিবারের জন্য ব্যবহৃত হচ্ছে। [৪]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "The Dream of Gerontocracy"The Weekly Middle East Reporter। Beirut। ২৯ অক্টোবর ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ১৬ মার্চ ২০১৩ 
  2. "العود.. مقبرة الأئمة والملوك والأمراء وأعيان الرياض على مدى عقود, أخبــــــار"archive.aawsat.com। ২০১১-১০-২৬। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-১১-৩০ 
  3. "مقبرة العود .. مرقد الملوك بين «البسطاء»"صحيفة الاقتصادية (আরবি ভাষায়)। ২০১১-১০-২৫। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-১১-৩০ 
  4. Hameed, P A (২৬ অক্টোবর ২০১১)। "Riyadh: Sultan Al Khair Laid To Rest through a Simple Ceremony"Daiji World। Riyadh। ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৪ আগস্ট ২০১২  উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; আলাদা বিষয়বস্তুর সঙ্গে "daijiw" নামটি একাধিক বার সংজ্ঞায়িত করা হয়েছে
  5. "Cemeteries"। Riyadh। ১ আগস্ট ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ আগস্ট ২০১২ 
  6. Hasni, Areeb (২৫ অক্টোবর ২০১১)। "Saudi Prince bin Abdulaziz buried"The News Tribe। ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৪ আগস্ট ২০১২ 
  7. "Graves in Riyadh cemeteries to be specified electronically"Arab News। ২৩ মার্চ ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ২৫ আগস্ট ২০১২ 
  8. Abdul Nabi Shaheen (২৩ অক্টোবর ২০১১)। "Sultan will have simple burial at Al Oud cemetery"Gulf News। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০১২  উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; আলাদা বিষয়বস্তুর সঙ্গে "gnews11" নামটি একাধিক বার সংজ্ঞায়িত করা হয়েছে
  9. "Al Oud Cemetery, Riyadh, Saudi Arabia"। NNDB। সংগ্রহের তারিখ ৯ আগস্ট ২০১২ 
  10. "Next to his father"Observer Reporter। Riyadh। AP। ২৬ মার্চ ১৯৭৫। সংগ্রহের তারিখ ৩ এপ্রিল ২০১৩ 
  11. Ian Black (২৩ জানুয়ারি ২০১৫)। "Saudi Arabia's new king promises continuity after death of Abdullah"The Guardian। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জানুয়ারি ২০১৫ 
  12. Al Oraifij, Abdullah (৩ আগস্ট ২০১১)। "Sultana, wife of Riyadh Emir, passes away"Saudi Gazette। ২৮ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ আগস্ট ২০১২ 
  13. "Princess Hissah bint Turki dies"Sauress। ১৯ আগস্ট ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ১৩ এপ্রিল ২০১৩ 
  14. "Second tragedy strikes Saudi Royal Family"Lewiston Morning Tribune। Riyadh। AP। ২৪ জুলাই ২০০২। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০১২ 
  15. Jassim Alghamdi; Naif Masrahi (১৬ আগস্ট ২০১০)। "Ghazi Al Gosaibi dead"Saudi Gazette। Riyadh। ২৭ আগস্ট ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ সেপ্টেম্বর ২০১২