আলতা (বেঙ্গল রোজ নামেও পরিচিত) এক ধরনের তরল লাল রঙ যা হাত এবং পায়ে প্রয়োগ করা হয়, এটি মূলত ভারতীয় উপমহাদেশে, বিশেষত বাংলাদেশে এবং ভারতের পূর্ব প্রদেশগুলিতে যেমন:পশ্চিমবঙ্গ ,বিহারওড়িশায় ব্যবহার করা হয়। এটি মূলত বিবাহ ও বিভিন্ন অনুষ্ঠান উপলক্ষে তুলোর সাহায্যে প্রয়োগ করা হয়। বিশেষ করে পহেলা বৈশাখ, পহেলা ফাল্গুন, গায়েহলুদ, বিয়ে, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সব বয়সের মেয়েই আলতা পরতে পছন্দ করে। লাল পাড়ের শাড়ির সঙ্গে লাল টিপ, কাঁচের চুড়ির সঙ্গে পায়ে আলতা বাঙালি নারীর শাশ্বত সৌন্দর্য। আগের দিনে গাঁয়ের বধূরা আলতারাঙা পায়ে পালকি চড়ে নতুন সংসারে পা রাখত। প্রথম দিকে আলতা পাতা বা পানের রস থেকে আলতা তৈরি হতো, যদিও পরবর্তীতে পান পাতার বদলে এটি জতু দিয়ে তৈরি হতো এবং বর্তমানে লাক্ষার নির্যাস[১] অথবা কৃত্রিম রঙের মাধ্যমে তৈরি করা হচ্ছে। আলতার তাৎপর্য হলো, এটি রক্তের সাথে সাদৃশ্যপূর্ণ, যা প্রাচুর্য এবং সমৃদ্ধির প্রতীক। এটি সাজসজ্জার একটি সহজ প্রয়োগ, যদিও আলতা দিয়ে জটিল নকশা করা অসম্ভব। আলতা দিয়ে তুলি সহকারে খুব সহজেই রঙ করা যায় যা যে কোনও ব্যক্তি দ্বারা সাধিত হতে পারে এবং এটির জন্য শৈল্পিক দক্ষতার প্রয়োজন হয় না।

আরো দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "আলতা"দৈনিক কালের কন্ঠ। সংগ্রহের তারিখ ৫ মে ২০২০