আর্জেন্টিনা–ফিলিপাইন সম্পর্ক

আর্জেন্টিনা ও ফিলিপাইন রাষ্ট্রদ্বয়ের মধ্যকার দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক

আর্জেন্টিনা–ফিলিপাইন সম্পর্ক হল আর্জেন্টিনা এবং ফিলিপাইনের মধ্যকার দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক। দুই দেশই পূর্বে স্প্যানিশ উপনিবেশ ছিল, এবং প্রায় ৬৪ বছর পূর্বে তারা দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক স্থাপন করে। আর্জেন্টিনাই প্রথম লাতিন আমেরিকার দেশ, যার সাথে ফিলিপাইন দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক স্থাপন করে।[১] ২০১২ সালে দুই দেশই দ্বিপাক্ষিক, কূটনৈতিক এবং বাণিজ্যিক সম্পর্কের ৬৫তম বার্ষিকী উদ্‌যাপন করে। সংস্কৃতি, শিক্ষা, খেলাধুলার জন্য ভবিষ্যতে নানা ধরনের দ্বিপাক্ষিক চুক্তি এবং স্প্যানিশ ভাষায় দক্ষতা অর্জনগত বিষয়ে সহযোগিতামূলক পদক্ষেপ গ্রহণ সম্পর্কেও আলোচনা করা হয়। ম্যানিলায় আর্জেন্টিনার দূতাবাস রয়েছে এবং বুয়েনোস আইরেসে রয়েছে ফিলিপাইনের দূতাবাস।

আর্জেন্টিনা–ফিলিপাইন সম্পর্ক সম্পর্ক
মানচিত্র আর্জেন্টিনা এবং ফিলিপাইনের অবস্থান নির্দেশ করছে

আর্জেন্টিনা

ফিলিপাইন

সম্পর্কসম্পাদনা

আর্জেন্টিনার পররাষ্ট্র সচিব হেক্টর টাইমারম্যান, প্রথম লাতিন আমেরিকার পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে ফিলিপাইনের রাষ্ট্রপতি বেনিঙ্গো তৃতীয় অ্যাকুইনোর সময় ফিলিপাইনে সফর করেন। দেল রোজারিও এবং টাইমারম্যান দুই দেশের মধ্যে সম্পর্ক সম্প্রসারণ এবং সংস্কৃতিসহ অন্যান্য বিষয়ে জনগণের আরো অংশগ্রহণ বিষয়ে আলোচনা করেন।[২]

টাইমারম্যানের সফরের সূত্র ধরে দুই দেশের কর্মকর্তারা প্রযুক্তিগত সহযোগিতার ব্যাপারে দুই দেশের মধ্যে যৌথ প্রযুক্তিগত কার্যক্রমের প্রথম বৈঠকে অংশগ্রহণ করবেন। জীবপ্রযুক্তি, কৃষি, নবায়নযোগ্য শক্তি এবং ঔষধগত দিকে কিভাবে দুই দেশ অভিজ্ঞতা ও সহযোগিতা বিনিময় করতে পারে, এবং এর মাধ্যমে কিভাবে উপকৃত হতে পারে প্রভৃতি বিষয় এ চুক্তিতে থাকবে। ২০১৩ সালে আর্জেন্টিনা ফিলিপাইনসহ অন্যান্য দক্ষিণ-পুর্বাঞ্চলের রাষ্ট্রে সাইট্রাস রপ্তানি করবে।[৩][৪]

আর্জেন্টিনার বৃহত্তম মশলা ও উদ্ভিদ-ভিত্তিক উপাদান প্রস্তুতকারক কোম্পানি ল্যাবরোটরিস ফার্মেসা সাইক ফার্মেসা এশিয়া প্যাসিফিক ইনক." নামে ফিলিপাইনে একটি আঞ্চলিক অফিস খোলার মাধ্যমে এই অঞ্চলে বিনিয়োগ করতে যাচ্ছে। এখান থেকেই আর্জেন্টিনার এ কোম্পানি আঞ্চলিকভাবে তার কার্যক্রম সম্প্রসারিত করবে।[৫]

বক্সিং-এ হানাহানিসম্পাদনা

২০১২ সালের ফেব্রুয়ারিতে আর্জেন্টিনার বুয়েনস আইরসের মার দেল প্লাটায় অনুষ্ঠিত আইবিএফ-এর লাইট ফ্লাইওয়েট শিরোপালাভ করেন জনরিয়েল ক্যাসিমেরো। তার প্রতিপক্ষ ছিল আর্জেন্টিনার মুষ্টিযোদ্ধা লুইস ল্যাজার্তে। একটি বিতর্কিত নকআউটের মাধ্যমে তিনি জয়লাভ করেন। তবে এর ফলে দর্শকেরা উত্তেজিত হয়ে ওঠে। তারা চেয়ার ও পানিভর্তি বোতল মারতে শুরু করে। এটি আর্জেন্টিনার ইতিহাসের সবচেয়ে বড় বক্সিং মারামারি ছিল। ক্যাসিমেরো উত্তেজিত সমর্থকদের থেকে বাঁচতে বক্সিং রিংয়ের নিচে চলে যান এবং বেঁচে যান। আইবিএফ জুনিয়র ফ্লাইওয়েটের দশম রাউন্ডে স্থানীয় আর্জেন্টিনার মুষ্টিযোদ্ধা লুইস আলবার্তো ল্যাজার্তো নকআউটের পর স্থানীয় সমর্থকেরা ক্যাসিমেরো এবং তার দলের সদস্যদের লাথি মারে ও লাঞ্ছিত করে।[৬]

মারামারির পর পুলিশ ক্যাসিমেরো ও তার সমর্থকদের জন্য হোটেলে ও প্রয়োজনীয় অন্যান্য স্থানে পুলিশিপাহারার ব্যবস্থা করে। লুইস আলবার্তো ল্যাজার্তে পরবর্তীতে দেখা করে সমর্থকদের পক্ষ থেকে ক্ষমা চান।[৬] ক্যাসিমেরোর উপর আক্রমণের প্রতিবাদে ফিলিপাইনিরা আর্জেন্টিনা সরকারের বিরুদ্ধে কূটনৈতিক প্রতিবাদলিপি পেশ করে।[৭]

ফিলিপাইনের পররাষ্ট্রবিষয়ক সচিব রল হার্নাদেজ বলেন, তার দেশের দূতাবাস আর্জেন্টিনার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছে এবং এর ব্যাখ্যা জানতে চেয়েছে।[৬] বক্সিং-এ পরবর্তীতে আরো ঝামেলা হতে পারে - এ ধরনের আশঙ্কায় আইবিএফ থেকে আলবার্তো ল্যাজার্তোকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করা হয়।[৭]

একইদিনে, ম্যানিলাতে আর্জেন্টিনার রাষ্ট্রদূত যা ঘটেছে তার জন্য ক্ষমাপ্রার্থনা করেন এবং বলেন:[৮]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Aquino receives Minister of Foreign Affairs of Argentine Republic in courtesy call"। ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৪ নভেম্বর ২০১৬ 
  2. "Phl, Argentina strengthen ties" 
  3. "Manila, Buenos Aires sweeten 64-yr. relations by boosting economic, political ties" 
  4. "Argentina signs citrus export agreement with the Philippines"। ১২ এপ্রিল ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৪ নভেম্বর ২০১৬ 
  5. "Top Argentine food firm sets up Asia headquarters in the Philippines"। ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৪ নভেম্বর ২০১৬ 
  6. "Philippines protests attack on boxer in Argentina"স্পোর্টসইলাস্ট্রেটেড.সিএনএন.কম। সংগ্রহের তারিখ ১৪ নভেম্বর ২০১৬ 
  7. "Boxer Luis Lazarte banned by IBF for threat, sparking ring riot – ESPN" 
  8. "Argentine ambassador apologizes over boxing snafu" 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

টেমপ্লেট:আর্জেন্টিনার বৈদেশিক সম্পর্ক টেমপ্লেট:ফিলিপাইনের বৈদেশিক সম্পর্ক