আমেরিকান সাইকো

আমেরিকান সাইকো হলো ১৯৯১ সালে প্রকাশিত ব্রেট ইস্টন এলিস এর একটি উপন্যাস। গল্পটি প্যাট্রিক বেইটম্যান কে নিয়ে যে একজন সিরিয়াল কিলার এবং ম্যানহাটন ইনভেস্টমেন্ট ব্যাংকার।[৩] এটির বাংলা অনুবাদ করেন লুৎফুল কায়সার।[৪]

আমেরিকান সাইকো
আমেরিকান সাইকো কভার (১৯৯৮).jpg
১৯৯৮ সংস্করণের প্রচ্ছদ
লেখকব্রেট ইস্টন এলিস
প্রচ্ছদ শিল্পীমার্শাল এরিসম্যান[১]
ধরনসীমালঙ্ঘনমূলক কথাসাহিত্যি, উত্তরাধুনিক উপন্যাস, ব্যঙ্গ, ব্ল্যাক কমেডি, ভৌতিক[২]
প্রকাশকভিন্টেজ
প্রকাশনার তারিখ
১৯৯১
পৃষ্ঠাসংখ্যা৩৯৯
আইএসবিএন৯৭৮-০-৬৭৯-৭৩৫৭৭-৯
ওসিএলসি২২৩০৮৩৩০
৮১৩/.৫৪ ২০
এলসি শ্রেণীPS3555.L5937 A8 1991

এটির উপর ভিত্তি করে ২০০০ সালে একই নামে একটি চলচ্চিত্র মুক্তি পায়, যেখানে প্যাট্রিক বেইটম্যান এর ভূমিকায় ক্রিশ্চিয়ান বেলকে দেখা যায়। চলচ্চিত্রটি ইতিবাচক সাড়া পায়।[৫]আমেরিকান সাইকো মিউজিক্যাল সংস্করণটি ২০১৩ সালে লন্ডন এর 'আলমেইডা থিয়েটারে' মুক্তি পায়।[৬]

উন্নয়নসম্পাদনা

বেইটম্যান আমার মতোই পাগল ছিল। সে হঠাৎই আমার মাথায় আসে নি এবং ইয়াপি সংস্কৃতি নিয়ে মহান সুদুরপ্রসারি অভিযোগ লিখতে বসে যায় নি। এটি আমার জীবনের এক পর্যায়ে আমার নিজের বিচ্ছিন্নতা এবং উন্মত্ততার কারণে শুরু হয়েছিল। আমি প্যাট্রিক বেইটম্যান এর মতো জীবনযাপন করতাম। আমি একটি ভোগবাদী ধরনের শূন্যতার মধ্যে পড়ে যাচ্ছিলাম যা আমাকে আত্মবিশ্বাস দিতে এবং আমাকে নিজের সম্পর্কে ভাল বোধ করার কথা ছিল কিন্তু আমাকে নিজের সম্পর্কে আরও খারাপ এবং খারাপ এবং খারাপ বোধ করে। সেখান থেকেই আমেরিকান সাইকো এর চিন্তা এসেছে। আমি যে ওয়াল স্ট্রিটে এই সিরিয়াল কিলার তৈরি করতে যাচ্ছিলাম তা নয়। উচ্চ ধারণা। উদ্ভট। এটি অনেক বেশি ব্যক্তিগত জায়গা থেকে এসেছে, এবং এটি এমন কিছু যা আমি কেবলমাত্র গত বছর বা এরকম সময়ে স্বীকার করেছি। সেই বইটির প্রতিক্রিয়ার কারণে আমি এতটাই রক্ষণাত্মক ছিলাম যে আমি সেই স্তরে এটি সম্পর্কে কথা বলতে পারিনি।[৭]

— ব্রেট এস্টন এলিস

চরিত্রসম্পাদনা

প্রধান চরিত্রসম্পাদনা

  • প্যাট্রিক বেইটম্যান – মূল বর্ণনাকারী এবং উপন্যাসের খলনায়ক চরিত্র।
  • এভিলিন রিচার্ডস – বেইটম্যান এর ছদ্মবেশি বাগদত্তা।
  • টিমোথি প্রাইস – বেইটম্যান এর সবচেয়ে কাছের বন্ধু এবং সহকর্মী। পরবর্তীতে এলিসের উপন্যাস দ্য ইনফর্মার্স এ কিশোর হিসেবে উপস্থিত হয়।
  • পল ওয়েন – বেইটম্যান এর সহকর্মী যাকে পরবর্তীতে সে হত্যা করে।
  • জিন – বেইটম্যান এর সচিব, যাকে বেইটম্যান তাকে "জিন, আমার সেক্রেটারি যে আমাকে ভালোবাসে" বলে উল্লেখ করে।
  • লুইস ক্যারুথেরস – একজন সমকামী সহকর্মী যে বেইটম্যান এর প্রতি আকর্ষিত।
  • কোর্টনি লরেন্স – লুইস' এর বাগদত্তা, যার সাথে বেইটম্যান এর সম্পর্ক চলছে।
  • ক্রেইগ ম্যাকডেরমট - বেইটম্যান এর সহকর্মী
  • ডেভিড ভ্যান প্যাটেন - বেইটম্যান এর সহকর্মী।

অপ্রধান চরিত্রসম্পাদনা

  • "ক্রিস্টি" - একজন পতিতা, যাকে বেইটম্যান নিয়ে আসে এবং বিভিন্ন সময় ধরে চরমভাবে নির্যাতন করে। সর্বশেষ তাকে সে ভয়ংকরভাবে হত্যা করে। যদিও বেইটম্যান তাকে নামটি দিয়েছে। তার আসল নাম কখনো উল্লেখ করা হয় নি।
  • ডোনাল্ড কিম্পবল - একজন প্রাইভেট ডিটেকটিভ যে পল ওয়েন এর উধাও হয়ে যাওয়া নিয়ে তদন্ত করছে।
  • এলিসন পুল - বেইটম্যান দ্বারা যৌন এবং শারীরিক নির্যাতনের স্বীকার।
  • আল - একজন গৃহহীন যাকে বেইটম্যান একটি ছুরি দিয়ে বিকৃতি করে এবং অন্ধ করে দেয়।
  • টম ক্রুজ - বেইটম্যান এর সাথে একই বিল্ডিংয়ের এপার্টমেন্টে থাকে।
  • শন বেইটম্যান - প্যাট্রিক ব্যাটম্যান এর ছোট ভাই।

বিতর্কসম্পাদনা

এলিস পরবর্তীতে লিখে মানুষ ধারণা করে আমেরিকান সাইকো তার ক্যারিয়ার শেষ করে দিবে।[৮] এটি মূলত মার্চ ১৯৯১ সালে সাইমন এবং শাস্টার এর দ্বারা প্রকাশিত হওয়ার কথা ছিল, কিন্তু প্রতিষ্ঠানটি তাদের প্রকল্পটি প্রত্যাহার করে এর "শিল্পরুচিসম্মত পার্থক্যের" কারণে। পরে ভিনটেজ বুক এর স্বত্ত্ব কিনে নেয় এবং কিছু গতানুগতিক সম্পাদনা প্রক্রিয়ার পর এটি প্রকাশ করে। বইটি ২০১২ সাল পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে শক্ত মলাটে প্রকাশিত হয় নি, সেন্টিপেড প্রেস এর দ্বারা সীমিত সংস্করণে প্রকাশিত হওয়ার আগ পর্যন্ত।[৯]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Marshall Arisman illustrations"। Marshallarisman.com। ২০১২-০৩-৩০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০২-১৫ 
  2. Cohen, Roger (৬ মার্চ ১৯৯১)। "Bret Easton Ellis Answers Critics of 'American Psycho'"The New York Times 
  3. Kelly, Alison (২৭ জুন ২০১০)। "Imperial Bedrooms by Bret Easton Ellis"The Guardian। London। ৩০ জুন ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জুলাই ২০১০ 
  4. https://www.rokomari.com/book/195582/american-psycho
  5. "Metacritic reviews for American Psycho"। Metacritic.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০২-১৫ 
  6. Kepler, Adam W. (২০১২-০৪-২২)। "'American Psycho' as a Musical"The New York Times 
  7. Baker, Jeff (জুলাই ২০১০)। "Q&A: Bret Easton Ellis talks about writing novels, making movies"OregonLive। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০৭-০৯ 
  8. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; rosenblatt19901216 নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  9. "American Psycho"centipedepress.com। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১৫