প্রধান মেনু খুলুন
আমিন বোয়াইচ

আমিনা বোয়াইচ (জন্ম ১০ ডিসেম্বর ১৯৫৭) হচ্ছেন একজন মরোক্কান মানবাধিকার কর্মী। ডিসেম্বর ২০১৮ থেকে, বোয়াইচ মরোক্কান জাতীয় মানবাধিকার কাউন্সিলের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।[১]

তিনি সবার নজরে আসেন, যখন ২০০৬ সালে তিনি মরোক্কোর একটি প্রধান এনজিওর সভাপতি নির্বাচিত হন।[২]

মরোক্কোর মানবাধিকার সংস্থার সভাপতি হিসাবে, বোয়াইচ তার নিজ দেশের মানবাধিকার বিষয়ক সমস্যাগুলোর ক্ষেত্রে কাজ করেছেন, যেমন: নির্যাতন, শরণার্থী অধিকার, নারী অধিকার ও মৃত্যুদন্ড বাতিল।

তিনি ২০১০ সালে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থার ভাইস-প্রেসিডেন্ট এবং পরে ২০১৩ সালে মহাসচিব নির্বাচিত হন।[৩] তারপর, ২০১৬ সালে, বোয়াইচ সুইডেন ও লাটভিয়ায় মরোক্কোর রাষ্ট্রদূত হিসেবে কাজ করেন।[৪]

২০১৫-এ, তিনি তার সততা এবং মানবাধিকার বিষয়ে ক্রমাগত জড়িত থাকার জন্য ফরাসি লেজিওঁ দনর সম্মাননা পান।[৩]

পটভূমিসম্পাদনা

বোয়াইচ ১০ই ডিসেম্বর ১৯৫৭ সালে টিতোউয়ান-এর একটি [২] রিফিয়ান পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।

রাবাতের মোহাম্মদ ভি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি অর্থনীতিতে মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জন করেছেন।

বোয়াইচ অল্প বয়সে তার মানবাধিকার কর্মজীবন শুরু করেন, রাজনৈতিক বন্দীদের পরিবারের সাথে নেতৃত্বের বছরগুলির সময়কালে মরোক্কোতে কাজ করেছেন। তিনি নারী অধিকার বিষয়ে সর্বজনবিদিত সমাজবিজ্ঞানী ফাতেমা মের্নিসি -এর সাথে দুই বছর কাজ করেছেন, বিশেষ করে মুসলিম নারী; এবং আরবি, ফ্রেঞ্চ, ইংরেজি এবং স্প্যানিশ ভাষায় এই বিষয়ে অনেক নিবন্ধ প্রকাশ করেছেন।

পেশাগতভাবে, তিনি অনেক রাজনৈতিক অবস্থানে আসীন হয়েছেন, বিশেষ করে ১৯৯৮ থেকে ২০০২ সাল পর্যন্ত সাবেক প্রধানমন্ত্রী আবদেরহমান ইউসুফফির মন্ত্রিসভায় সদস্য হিসেবে নিযুক্ত হওয়া, এবং আরব বসন্তের মাঝামাঝি সময়ে ষষ্ঠ মুহাম্মদ কর্তৃক সাংবিধানিক সংস্কারের পরামর্শক কমিশনের সদস্য নিযুক্ত হওয়া উল্লেখযোগ্য।'[২] মরোক্কান সংবিধানে তার উল্লেখযোগ্য অবদানের জন্য, তাকে ষষ্ঠ মুহাম্মদ কর্তৃক অর্ডার অফ দি থ্রোন-এ ভূষিত করা হয়েছিল।

তিনি জাতিসংঘ আফ্রিকান ইউনিয়ন এবং ইউরো-ভূমধ্যসাগরীয় ফোরাম এবং ফ্রিডম অফ অ্যাসোসিয়েশনের সাথে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করেছেন।

তিউনিশিয়াযর সাবেক রাষ্ট্রপতি জিন এল আবিদিন বেন আলীর পদত্যাগের পর তিউনেশিয়ায় এবং লিবিয়ার সাবেক রাষ্ট্রপতি মুয়াম্মর গাদ্দাফির অন্তর্ধানের পর লিবিয়ায় ভ্রমন করা প্রথম মানবাধিকার ব্যক্তিত্বদের মধ্যে তিনি একজন। আরব লীগের সংস্কারের জন্য আঞ্চলিক গোষ্ঠীগুলোতে তিনি খুব সক্রিয় ছিলেন এবং আছেন।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. King Mohammed VI appoints Amina Bouayach chairwoman of CNDH, Yabiladi.com, Retrieved 23 March 2019.
  2. Biography, FIDH.org, Retrieved 17 March 2016
  3. Morocco's Amina Bouayach awarded Legion of Honour, Morocco World News, Retrieved 17 March 2016
  4. National Human Rights Council Biography, CNDH.org, Retrieved 21 March 2019

বহিঃসংযোগসম্পাদনা