আবু নছর মোহাম্মদ এহিয়া (খান বাহাদুর)

খান বাহাদুর আবু নছর মোহাম্মদ এহিয়া ওরফে জিতু মিয়া (১৮৫১ - ১৯২৫) ছিলেন সিলেটের একজন জায়গীরদার ও সমাজ সেবক। তিনি জনহিতৈষী কর্মকান্ডের জন্য পরিচিত ছিলেন এবং তার আবাসস্থলটি জিতু মিয়ার বাড়ী বলে পরিচিত যা সিলেটের অন্যতম প্রধান দর্শনীয় স্থাপনা।

জিতু মিয়ার বাড়ি

জন্ম ও বংশ পরিচয়সম্পাদনা

জিতু মিয়া ১৮৫১ সালে, মতান্তরে, ১৮৪৮ সালে সিলেটের শেখঘাট এলাকায় তার পৈতৃক বাড়িতে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম মাওলানা আবু মোহাম্মদ আবদুর কাদির; তিনি আরবী, ফারসী ও উর্দু ভাষায় পারদর্শী পণ্ডিত এবং তিনি কিছু পুস্তকও রচনা করেছিলেন। তার পিতামহ মৌলভী আবু নছর মোহাম্মদ ইদ্রিছ নবাবী আমলে "কাজী" হয়ে সিলেট আসেন[১] এবং সুরমা নদীর তীরবর্তী স্থানে স্থাপনা তৈরী করে স্থায়ীভাবে বসবাস শুরু করেন।

কর্মজীবনসম্পাদনা

তার কর্মজীবন শুরু হয় ব্রিটিশ সরকারের অধীনে একজন সাব রেজিস্টার হিসেবে। তিনি ১৮৯৭ থেকে ১৯০৩ সাল পযর্ন্ত সিলেট পৌরসভার ভাইস চেয়ারম্যান ও অনারারী ম্যাজিস্টেট ছিলেন।[১]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. জিতু মিয়ার বাড়ী ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২৩ আগস্ট ২০১১ তারিখে, সিলেট জেলা তথ্য বাতায়ন।

বহি:সংযোগসম্পাদনা