আন্তর্জাতিক জাদুঘর দিবস

আন্তর্জাতিক জাদুঘর দিবস হল প্রতি বছরের ১৮ মে বা তার কাছাকাছি সময়ে অনুষ্ঠিত একটি আন্তর্জাতিক দিবস। আন্তর্জাতিক জাদুঘর পরিষদ এটির সমন্বয় করে থাকে। প্রতি বছর একটি নির্দিষ্ট বিষয়কে প্রতিপাদ্য করে দিবসটি আয়োজন করা হয়। আন্তর্জাতিকভাবে যাদুঘরগুলি যে সব সমস্যার মুখোমুখি হয় সেগুলিকে প্রতিফলিত করে বা কোনও প্রাসঙ্গিক আবহকে কেন্দ্র করে প্রতিবছর প্রতিপাদ্য পরিবর্তন করা হয়।

দিবসটিতে সভা, সেমিনারের আয়োজন করা হয়, জাদুঘরের সাথে জড়িত ব্যক্তিদের সাথে জনসাধারণের দেখা করার সুযোগ করে দেয় হয় এবং জাদুঘরগুলি যেসব চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হয় সে সম্পর্কে জনসাধারণকে অবহিত করা হয়। দিবসটি সমাজের উন্নয়নে জাদুঘরগুলি যে ভূমিকা পালন করে সে সম্পর্কে জনসাধারণের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধিতে অবদান রাখে।[১]

ইতিহাসসম্পাদনা

আন্তর্জাতিক জাদুঘর পরিষদের আহ্বানে ১৯৭৭ সালে প্রথম আন্তর্জাতিক জাদুঘর দিবস পালন করা হয়।[২]

প্রতি বছর, বিশ্বব্যাপী যাদুঘরের ভূমিকা প্রচারের জন্য এই দিবসে অংশগ্রহণের জন্য আন্তর্জাতিকভাবে যাদুঘরগুলোকে আমন্ত্রণ জানানো হয়। বার্ষিক প্রতিপাদ্য, ইভেন্ট এবং ক্রিয়াকলাপের মাধ্যমে জাদুঘরগুলো এই দিবস আয়োজন করে। ১৯৯২ সালে এই আয়োজনের জন্য একটি বার্ষিক প্রতিপাদ্য প্রথম গৃহীত হয়। ১৯৭৭ সালে প্রথম আন্তর্জাতিক পোস্টার তৈরি করা হয়, এবং সেই বছর ২৮টি দেশ তা অভিযোজন করে।[৩]

প্রতিপাদ্যসম্পাদনা

  • ২০২২ – জাদুঘরের শক্তি
  • ২০২১ – জাদুঘরের ভবিষ্যত: পুনরুদ্ধার করুন এবং পুনরায় কল্পনা করুন
  • ২০২০ – সাম্যের জন্য জাদুঘর: বৈচিত্র্য ও অন্তর্ভুক্তি
  • ২০১৯ - সাংস্কৃতিক কেন্দ্র হিসাবে জাদুঘর: ঐতিহ্যের ভবিষ্যত
  • ২০১৮ - হাইপারসংযুক্ত জাদুঘর: নতুন পদ্ধতি, নতুন জনসাধারণ
  • ২০১৭ – জাদুঘর এবং প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ইতিহাস: জাদুঘরে না বলা কথা
  • ২০১৬ – জাদুঘর এবং সাংস্কৃতিক ল্যান্ডস্কেপ
  • ২০১৫ - একটি টেকসই সমাজের জন্য জাদুঘর
  • ২০১৪ - জাদুঘরের সংগ্রহগুলি সংযোগ তৈরি করে
  • ২০১৩ – জাদুঘর (স্মৃতি + সৃজনশীলতা = সামাজিক পরিবর্তন)
  • ২০১২ - পরিবর্তিত বিশ্বে জাদুঘর। নতুন চ্যালেঞ্জ, নতুন অনুপ্রেরণা
  • ২০১১ - জাদুঘর এবং স্মৃতি: বস্তুগুলি আপনার গল্প বলে
  • ২০১০ - সামাজিক সম্প্রীতির জন্য জাদুঘর
  • ২০০৯ - জাদুঘর এবং পর্যটন
  • ২০০৮ - সামাজিক পরিবর্তন এবং উন্নয়নের এজেন্ট হিসাবে জাদুঘর
  • ২০০৭ - জাদুঘর এবং সার্বজনীন ঐতিহ্য
  • ২০০৬ - জাদুঘর এবং তরুণরা
  • ২০০৫ - সংস্কৃতির সেতুবন্ধন জাদুঘর
  • ২০০৪ - জাদুঘর এবং অস্পর্শনীয় ঐতিহ্য
  • ২০০৩ - জাদুঘর এবং বন্ধুরা
  • ২০০২ - জাদুঘর এবং বিশ্বায়ন
  • ২০০১ - জাদুঘর: সম্প্রদায় নির্মাণ
  • ২০০০ - সমাজে শান্তি ও সম্প্রীতির জন্য জাদুঘর
  • ১৯৯৯ - আবিষ্কারের আনন্দ
  • ১৯৯৮-১৯৯৭ - সাংস্কৃতিক সম্পত্তির অবৈধ ট্র্যাফিকের বিরুদ্ধে লড়াই
  • ১৯৯৬ - আগামীকালের জন্য আজ সংগ্রহ করা হচ্ছে
  • ১৯৯৫ - প্রতিক্রিয়া এবং দায়িত্ব
  • ১৯৯৪ - জাদুঘরে পর্দার আড়ালে
  • ১৯৯৩ - জাদুঘর এবং আদিবাসীরা
  • ১৯৯২ - জাদুঘর এবং পরিবেশ

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Varbanova, Lidia (২০১৩)। Strategic management in the arts। নিউ ইয়র্ক: রূটলেজ। পৃষ্ঠা ৭৪। আইএসবিএন 978-0-203-11717-0ওসিএলসি 823170111 
  2. "আন্তর্জাতিক জাদুঘর দিবস আজ"রাইজিংবিডি.কম। সংগ্রহের তারিখ ৪ মে ২০২২ 
  3. "A little bit of history"IMD (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-১৮