আন্তর্জাতিক জললেখবিজ্ঞান সংস্থা

জললেখবিজ্ঞান বিষয়ক আন্তঃসরকারি সংস্থা

আন্তর্জাতিক জললেখবিজ্ঞান সংস্থা (ইংরেজি: International Hydrographic Organization ইন্টারন্যাশনাল হাইড্রোগ্রাফিক অর্গানাইজেশন, সংক্ষেপে IHO আইএইচও; ফরাসি: Organisation Hydrographique Internationale অর্গানিজাসিওঁ ইদ্রোগ্রাফিক আঁতেরনাসিওনাল) জললেখবিজ্ঞান বিষয়ক একটি আন্তঃসরকারি সংস্থা[১][২] ২০২১ সালের জানুয়ারি মাসে এটিতে ৯৪টি সদস্য রাষ্ট্র ছিল।

আন্তর্জাতিক জললেখবিজ্ঞান সংস্থা
IHO Logo RGB Complete EN@10x-100.jpg
সংক্ষেপেআইএইচও (IHO)
প্রতিষ্ঠাকাল২১ জুন ১৯২১;
১০০ বছর আগে
 (1921-06-21)
অবস্থান
সদস্যপদ
সদস্য রাষ্ট্রসমূহের তালিকা
মহাসচিব
ড. মাথিয়াস জোনাস
ওয়েবসাইটIHO.int

সংস্থাটির একটি মূল লক্ষ হল বিশ্বের সমুদ্র, মহাসমুদ্র ও নাব্য জলরাশিগুলির যথাযথ জরিপ ও সমুদ্র-মানচিত্রণ নিশ্চিত করা। এটি আন্তর্জাতিক মান নির্ধারণ, বিশ্বের বিভিন্ন জাতীয় পর্যায়ের জললেখবিজ্ঞান কার্যালয়সমূহের মধ্যে সমন্বয় সাধন এবং ক্ষমতা-নির্মাণ কর্মসূচীগুলির মাধ্যমে এই লক্ষ্য পূরণ করে থাকে।

সংস্থাটি জাতিসংঘের পর্যবেক্ষকের মর্যাদার অধিকারী। সেখানে এটিকে জললেখবৈজ্ঞানিক জরিপসমুদ্র-মানচিত্রণ বিষয়ে সক্ষম কর্তৃত্বপূর্ণ সংস্থা হিসেবে বিবেচিত হয়। আন্তর্জাতিক চুক্তিসমূহে ও এই জাতীয় আইনি দলিলগুলিতে জললেখবিজ্ঞান ও সমুদ্র-মানচিত্রণ বিষয়ে আন্তর্জাতিক জললেখবিজ্ঞান সংস্থার আদর্শ ও বৈশিষ্ট্যায়নগুলিই সচরাচর ব্যবহার করা হয়।

আদিতে ১৯২১ খ্রিস্টাব্দে আন্তর্জাতিক জললেখবৈজ্ঞানিক কার্যালয় নামে সংস্থাটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। ১৯৭০ সালে এর নাম বদলে বর্তমান নামটি গ্রহণ করা হয়।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "First Assembly of the International Hydrographic Organization (IHO)"hydro-international.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৪-১৭ 
  2. Wingrove, Martyn (১১ মার্চ ২০১৯)। "IMO takes the e-navigation reins"Maritime Digitalisation & Communications। ১৭ এপ্রিল ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৪-১৭