আজারবাইজানী রন্ধনশৈলী

আজারবাইজানী রন্ধনশৈলী (আজারবাইজানি: Azərbaycan mətbəxi) আজারবাইজানের বিভিন্ন ধরনের খাবার এবং রান্নার কৌশল সমূহ নিয়ে গঠিত। আজারবাইজানের বিভিন্ন মৌলিক খাবার[অস্পষ্ট] বর্তমানে পার্শ্ববর্তী দেশসমূহে দেখা যায়। আজারবাইজানীদের কাছে তাদের সংস্কৃতিতে খাদ্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ অংশ এবং ইতিহাস, ঐতিহ্য ও মূল্যবোধের সংগে গভীরভাবে সম্পৃক্ত।

পৃথিবীকে যে ১১ টি ক্লাইমেট জোনে ভাগ করা হয়েছে এর মধ্যে আজারবাইজানে নয়টি আছে।[১] এর ফলে আজারবাইজানের ভূমি খুবই উর্বর যা আজারবাইজানের রসনাকে করেছে সমৃদ্ধ।

হালকা নাস্তাসম্পাদনা

 
হালকা আজারবাইজানী নাশতা

আজারবাইজানী রসনায় বিভিন্ন ধরনের নাশতার প্রচলন আছে এবং প্রধান পদের পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের ছোট পদ পরিবেশন করা হয়ে থাকে। গয় নামক সুগন্ধি পাতা, চোরেক (রুটি) টুকরো, চোবান (টমেটো শশার সালাদ) এবং মাঝেমধ্যে বিয়াজ পেনির (সাদা পনির) কিংবা কাতিক (টক দই) পরিবেশন করা হয়। ঠান্ডা নাশতা সাধারণত পানীয় থেকে পৃথকভাবে পরিবেশন করা হয়ে থাকে।

খাবারসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Climate zones of Azerbaijan"। জানুয়ারি ৭, ২০০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ২৮, ২০১৯