অশৌচ

হিন্দু রীতি, সংস্কার

অশৌচ শব্দের অর্থ হল শুচিতা বা পবিত্রতার অভাব ৷ মাতা পিতা বা জ্ঞাতিবর্গের মৃত্যুতে হিন্দুরা অশৌচ করে ৷ অর্থ্যৎ প্রিয়জনের মৃত্যুতে কঠোর ব্রহ্মচর্য পালন করে শ্রাদ্ধের উপযুক্ততা অর্জনই অশৌচ ৷ অশৌচ হিন্দুসমাজের একটি প্রচীন রীতি বা সংস্কার ৷

প্রকারভেদসম্পাদনা

১৷ জননাশৌচ: কেউ জন্মগ্রহণ করলে যে অশৌচ হয় ৷ তবে এটার প্রচলন ততটা নেই ৷

২৷ মরণাশৌচ: কারও মৃত্যুতে যে অশৌচ পালন করতে হয় ৷

অশৌচের সময়কালসম্পাদনা

মনু সংহিতার বিধান অনুযায়ী পুরোহিত দর্পনে নির্দেশ দেওয়া আছে -

শুধ্যেদ্বিপ্রো দশাহেন দ্বাদশাহেন ভূমিপ।

বৈশ্যপঞ্চদশাহেন শূদ্রো মাসেন শুধ্যতি।।

- ইতি মনুঃ।।

অনুবাদঃ জন্ম বা মরণে ব্রাহ্মণের দশদিন, ক্ষত্রিয়ের দ্বাদশ দিন, বৈশ্যের পঞ্চদশ দিন এবং শূদ্রের একমাস অর্থাৎ ত্রিশ দিন অশৌচ থাকে; ইহার পর শুদ্ধ হয়।[১]

তবে, শাস্ত্র মতে সকল বর্ণে অন্তত দশম অশৌচ (১০ দিন) কাল পর্যন্ত পালনের বিধান রয়েছে।

অশৌচকালীন ক্রিয়াসম্পাদনা

মাতাপিতার মৃত্যুর পর হবিষ্যান্ন বা ফল ফলাদি খেয়ে জীবনধারণ করতে হয় ৷ এসময় কঠোর ব্রহ্মচর্য পালন করতে হয় ৷ অশৌচকালে উঠানে একটি তুলসী গাছ রোপণ করে সেখানে প্রতিদিন মৃত ব্যক্তির উদ্দেশ্যে জল ও দুগ্ধ প্রদান করতে হয় ৷ পিতামাতার মৃত্যুর পর ৪র্থ ও ১০ম দিনে পিন্ড দান করতে হয় ৷ এই পিন্ডকে বলে পূরকপিন্ড ৷ পূরকপিন্ড দিতে হয় মোট দশটি ৷ অশৌচান্তে মস্তক মুন্ডন করে পরিধান করতে হয় নববস্ত্র ৷ [২]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "নির্ঘণ্ট:পুরোহিত-দর্পণ.djvu - উইকিসংকলন একটি মুক্ত পাঠাগার"bn.wikisource.org। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-১৭ 
  2. হিন্দুধর্ম (ডিসেম্বর)। হিন্দুধর্ম ৯ম ও ১০ম শ্রেণি chapter = ৬ (ডিসেম্বর, ২০০৭ সংস্করণ)। ঢাকা: আইডিয়াল প্রকাশনী। পৃষ্ঠা ৪০।  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ=, |year= / |date= mismatch (সাহায্য);