অর্ধেন্দুকুমার গঙ্গোপাধ্যায়

অর্ধেন্দুকুমার গঙ্গোপাধ্যায় (১লা আগস্ট, ১৮৮১- ৯ই ফেব্রুয়ারি, ১৯৭৪) ছিলেন বাঙালি শিল্প সমালোচক এবং অধ্যাপক। প্রখ্যাত চিত্রশিল্পী, শিল্পের ইতিহাসের রসসন্ধানী ও সঙ্গীতসাধক। অর্ধেন্দুকুমার 'ও সি গাঙ্গুলী' নামেই পরিচিত ছিলেন।

জন্ম ও শিক্ষা জীবনসম্পাদনা

অর্ধেন্দুকুমার গঙ্গোপাধ্যায়ে র জন্ম কলকাতার বড়বাজার অঞ্চলে । পিতার নাম অর্ঘপ্রকাশ গঙ্গোপাধ্যায়। মেট্রোপলিটন ইনস্টিটিউশন বড়বাজার শাখা হতে ১৮৯৬ খ্রিস্টাব্দে এন্ট্রান্স পাশ করে কলকাতার প্রেসিডেন্সি কলেজে ভর্তি হন । ১৯০০ খ্রিস্টাব্দে ইংরাজীতে অনার্স নিয়ে বি.এ পাশের পর গ্রেগরি জোনসের প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হতে প্রযুক্তি পরীক্ষায় সসম্মানে উত্তীর্ণ হন। পরবর্তীতে আইন পাশ করে আইন ব্যবসা গ্রহণ করলেও শিল্প ও সঙ্গীত ছিল তাঁর সাধনার বিষয় ।

কর্মজীবন ও সম্মাননাসম্পাদনা

মৃত্তিকার মাতামহ শ্রীনাথ ঠাকুরের  কাছে তিনি শিল্পের প্রেরণা পান। প্রথম ছবি আঁকেন তেরো বছর বয়সে । গগনেন্দ্রনাথ ও অবনীন্দ্রনাথ- সহ ঠাকুরবাড়ির সঙ্গে তাঁর বিশেষ যোগ ছিল। অর্ধেন্দুকুমার Indian Society of Oriental Art এর অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ও সচিব ছিলেন। সোসাইটির পত্রিকা 'রৃপম' ছিল তাঁর অসাধারণ প্রতিভা ও নৈপুণ্যের এক উজ্জ্বল পরিচায়ক । ১৯১৪ খ্রিস্টাব্দে প্যারিসের বিখ্যাত প্রদর্শনীতে অবনীন্দ্র বিদ্যালয়ের প্রতিটি শিল্পীর ছবি তিনিই প্রেরণ করেন। ১৯৪৩ খ্রিস্টাব্দে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে বাগেশ্বরী অধ্যাপক নিযুক্ত হলে অ্যাটর্নির পেশা ত্যাগ করেন । ভারতীয় শিল্প ও শিল্পকলা নিয়ে চীন মায়ানমার (ব্রহ্মদেশ) ও অন্যান্য অনেক স্থানে বক্তৃতা দিয়েছেন। ললিতকলা একাডেমী, এশিয়াটিক সোসাইটি ও বহু প্রতিষ্ঠান তাঁকে সম্মানিত করেছে। কলকাতার ভবানীপুর অঞ্চলে অর্ধেন্দুকুমার গঙ্গোপাধ্যায়ের স্মরণে এক রাজপথের নামাঙ্কন 'ও সি গাঙ্গুলী সরণি' করা হয় ।

প্রকাশিত গ্রন্থাবলীসম্পাদনা

ইংরেজি গ্রন্থ:

  • ভেডিক পেন্টিং
  • মিথুন ইন ইন্ডিয়ান আর্ট
  • সাউথ ইন্ডিয়ান ব্রোঞ্জ
  • মাস্টার পিসেস অফ রাজপাত পেন্টিংস্‌
  • মডার্ন ইন্ডিয়ান পেইন্টার্স
  • রাগ অ্যান্ড রাগিনিজ

বাংলা গ্রন্থ:

  • ভারতের ভাস্কর্য
  • রূপশিক্ষা
  • ভারতের শিল্প ও আমার কথা

মৃত্যুসম্পাদনা

অর্ধেন্দুকুমার গঙ্গোপাধ্যায় ১৯৭৪ খ্রিস্টাব্দের ৯ ই ফেব্রুয়ারি প্রয়াত হন।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

সুবোধচন্দ্র সেনগুপ্ত ও অঞ্জলি বসু সম্পাদিত সাহিত্য সংসদ কলকাতা প্রকাশিত 'সংসদ বাংলা চরিতাভিধান' প্রথম খণ্ডপঞ্চম সংস্করণ তৃতীয় মুদ্রণ পৃষ্ঠা ৪৮ দ্রষ্টব্য।