অবচয় (ইংরেজি: Depreciation) বলতে ব্যবহারজনিত কারণে সম্পত্তির মূল্য অবনতিকে বলে। হিসাববিজ্ঞানের মিলকরণ নীতি অনুসারে অবচয় ধার্য করা হয়। অবচয় হল সম্পত্তি ব্যবহারের বার্ষিক চার্জ। এটি ধার্যের ফলে সম্পত্তি ও মালিকানা সত্ত্ব হ্রাস পায়। অবচয় ধার্য না করলে সম্পত্তি ও মালিকানা সত্ত্ব বেশি দেখানো হয়।[১]

পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন ভাবে অবচয় গণনা করা হয়ে থাকে। তার মধ্যে জনপ্রিয় পদ্ধতি গুলো হচ্ছে নির্দিষ্ট শতাংশ পদ্ধতি, সরল রৈখিক পদ্ধতি, ক্রমহ্রাসমান জের পদ্ধতি, উৎপাদন ঘণ্টা পদ্ধতি ইত্যাদি। উদাহরণ, এক ব্যক্তি ১,০০০০০ টাকা দিয়ে একটি বাইক কিনলো। বাইকের অবচয় ১০% ধরা হলে, এক বছর পরে ঐ বাইকের সমাপনী মূল্য দাঁড়াবে ৯০০০০টাকা (১০০০০০X১০%=১০০০০টাকা, আবার ১০০০০০-১০০০০=৯০০০০টাকা)। এক বছরে ঐ বাইকের অবচয় খরচ ১০,০০০টাকা।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Raymond H., Peterson (২০০২)। Accounting for Fixed Assets (ইংরেজি ভাষায়)। John Wiley and Sons, Inc.।