অটো লুডভিগ প্রেমিঙার (জার্মান: Otto Ludwig Preminger /ˈprɛmɪnər/[১]) (৫ই ডিসেম্বর, ১৯০৬ - ২৩শে এপ্রিল, ১৯৮৬[২]) ছিলেন অস্ট্রীয় চলচ্চিত্র পরিচালক। তিনি ক্যারিয়ারের একপ র্যায়ে অস্ট্রিয়া থেকে হলিউডে চলে আসেন এবং এখানে প্রায় ৩৫টি পূর্ণদৈর্ঘ্য ছবি নির্মাণ করেন। তার সিনেমা ক্যারিয়ার ছিল প্রায় ৫ দশকের। লরা -র (১৯৪৪) মত খুব স্টাইলিশ নয়ার ছবি নির্মাণের জন্যই সবচেয়ে জনপ্রিয় হয়েছেন। ১৯৫০ ও ৬০-এর দশকে বেশ কিছু বিখ্যাত উপন্যাস ও মঞ্চ নাটককে চলচ্চিত্রায়িত করেন। এগুলোর মধ্যে তৎকালীন অ্যামেরিকায় ট্যাবু হিসেবে বিবেচিত কিছু বিষয় স্থান পেয়েছিল। প্রেমিঙারের এ ধরনের ট্যাবু চিত্রায়নের কারণেই সেন্সরের সীমানা হ্রাস পায়। তার ছবিতে যে ট্যাবুগুলো স্থান পেয়েছিল তা হল মাদকাসক্তি (দ্য ম্যান উইথ দ্য গোল্ডেন আর্ম, ১৯৫৫), ধর্ষণ (অ্যানাটমি অফ আ মার্ডার, ১৯৫৯) এবং সমকামিতা (অ্যাডভাইস অ্যান্ড কনসেন্ট, ১৯৬২)। তিনি দুইবার সেরা পরিচালক হিসেবে একাডেমি পুরস্কার মনোনয়ন লাভ করেছিলেন।

অটো প্রেমিঙার

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

  1. "Preminger"The American Heritage Dictionary of the English Language (Fourth সংস্করণ)। Houghton Mifflin। ২০০৪। 
  2. "RootsWeb: Database Index"Ssdi.rootsweb.ancestry.com। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জুলাই ২০১৬