অঙ্গ

প্রাচীম বাঙলার ইতিহাস (অঙ্গ)

অঙ্গ (সংস্কৃত: अंग) প্রাচীন ভারতের একটি রাজ্য। খ্রিষ্টপূর্ব ৬ শতকের দিকে ভারতীয় উপমহাদেশের পূর্বাঞ্চলে এটি বিকাশ লাভ করে কিন্তু ওই শতাব্দীতেই এটি মগধ দ্বারা অধীকৃত হয়। প্রাচীন বৌদ্ধ গ্রন্থসমূহ যেমন: অঙ্গুত্তর নিকায়তে উল্লিখিত ষোলটি মহাজনপদের মধ্যে অঙ্গ অন্যতম। প্রাচীন জৈন গ্রন্থ ব্যাখ্যাপ্রজ্ঞপ্তির (যা ভগবতী সূত্র নামে সাধারণত পরিচিত) প্রাচীন জনপদের তালিকাতেও অঙ্গের উল্লেখ আছে।

ষোলটি মহাজনপদ, অঙ্গ তাদের মধ্যে সবচেয়ে পূর্বে অবস্থিত এবং এর অবস্থান বৃজির দক্ষিণে এবং মগধের পূর্বে।
অঙ্গের মানচিত্র[১]

কারো কারো মতে, অঙ্গের বাসিন্দারা ছিল মিশ্র জাতিসত্ত্বার,[২] বিশেষত: পরবর্তী কালে।

নামের উৎপত্তিসম্পাদনা

মহাভারত ও পৌরাণিক সাহিত্য মতে অঙ্গ নামটির উৎপত্তি হয়েছে এই রাজ্যের প্রতিষ্ঠাতা যুবরাজ অঙ্গের নামানুসারে। রামায়ণে বলা হয়েছে অঙ্গ নামটির উৎপত্তি হয়েছে সেই স্থানের নাম থেকে, যেখানে শিব কামদেবকে পুরিয়ে হত্যা করে এবং যেখানে তার শরীরের অংশ সমূহ (অঙ্গ) ছড়িয়ে ছিটিয়ে ছিল।[৩]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Millard Fuller। "(अंगिका) Language : The Voice of Anga Desh"। Angika। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-০৩ 
  2. Bodhayana Dharma Sutra
  3. Balakanda Book I, Chapter 23