অগ্নি নিরাপত্তা

অগ্নি নিরাপত্তা বলতে আগুন দ্বারা সৃষ্ট ক্ষয়ক্ষতি ও ধ্বংসের পরিমাণ কমানোর উদ্দেশ্যে গৃহীত কিছু পদক্ষেপকে বোঝানো হয়। অগ্নি নিরাপত্তা ব্যবস্থাদির মধ্যে রয়েছে অনিয়ন্ত্রিত আগুনের প্রজ্বলন প্রতিরোধ করা এবং একবার আগুন লেগে গেলে সেটির বিস্তার ও পরিণাম সীমিত করে।

চীনের একটি ভবন নির্মাণস্থলে অগ্নি নিরাপত্তা সরঞ্জাম
অবৈধ অগ্নিসংযোগের কারণে সৃষ্ট আগুনে সম্পত্তির ক্ষতি

অগ্নি নিরাপত্তা ব্যবস্থাগুলি কোনও ভবন নির্মাণের সময় পরিকল্পনা করা হতে পারে কিংবা ইতিমধ্যেই নির্মিত স্থাপনাগুলিতে বাস্তবায়িত করা হতে পারে এবং ভবনের অধিবাসীদেরকে এগুলি সম্পর্কে শিক্ষা দেওয়া হতে পারে।

অগ্নি নিরাপত্তার জন্য হুমকিগুলিকে সাধারণত অগ্নি ঝুঁকি ডাকা হয়। অগ্নি ঝুঁকি বলতে এমন কোনও পরিস্থিতি বোঝাতে পারে যেখানে কোনও আগুন লাগার সম্ভাবনা বেড়ে যায় বা আগুন লাগার পরে আগুনের হাত থেকে পালানোর ক্ষেত্রে বাধার সৃষ্টি হয়।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অগ্নি নিরাপত্তাকে প্রায়শই ভবন নিরাপত্তার অংশ হিসেবে গণ্য করা হয়। সে দেশে দমকল বাহিনীর যেসব সদস্য অগ্নি আইন সংহিতা লংঘন চিহ্নিত করার জন্য ভবন তদারকি করেন ও বিদ্যালয়ে গিয়ে গিয়ে শিশুদেরকে অগ্নি নিরাপত্তা বিষয়ে শিক্ষাদান করেন, তাদেরকে অগ্নি প্রতিরোধ কর্মকর্তা নামে ডাকা হয়। প্রধান অগ্নি প্রতিরোধ কর্মকর্তা পদে আসীন ব্যক্তি সাধারণত নবাগতদেরকে অগ্নি প্রতিরোধ বিভাগে প্রশিক্ষণ দান করেন। এছাড়া তিনি তদারকি ও উপস্থাপনের কাজ করতে পারেন।[১]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. lifesafetydev। "Fire Safety"Life Safety Systems (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১১-১২ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা