প্রধান মেনু খুলুন

'জাম-দ্ব্যাংস-ম্খ্যেন-ব্র্ত্সে'-দ্বাং-পো

'জাম-দ্ব্যাংস-ম্খ্যেন-ব্র্ত্সে'-দ্বাং-পো

'জাম-দ্ব্যাংস-ম্খ্যেন-ব্র্ত্সে'-দ্বাং-পো (তিব্বতি: འཇམ་དབྱངས་མཁྱེན་བརྩེའ་དབང་པོওয়াইলি: 'jam dbyangs mkhyen brtse' dbang po) (১৮২০-১৮৯২) তিব্বতী বৌদ্ধধর্মের সা-স্ক্যা ধর্মসম্প্রদায়ের একজন বিখ্যাত পণ্ডিত ছিলেন।

পরিচ্ছেদসমূহ

জন্ম ও পরিবারসম্পাদনা

'জাম-দ্ব্যাংস-ম্খ্যেন-ব্র্ত্সে'-দ্বাং-পো ১৮২০ খ্রিষ্টাব্দে তিব্বতের গ্তের-ক্লুং (ওয়াইলি: gter klung) উপত্যকায় অবস্থিত দিল-ম্গো (ওয়াইলি: dil mgo) নামক স্থানে শিং-খাম্স-স্গা (ওয়াইলি: shing khams sga) পরিবারগোষ্ঠীতে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতার নাম ছিল রিন-ছেন-র্নাম-র্গ্যাল (ওয়াইলি: rin chen rnam rgyal) এবং মাতার নাম ছিল ব্সোদ-নাম্স-'ত্শো (ওয়াইলি: bsod nams 'tsho)।[১] জন্মের পর শার-ছেন-রিন-ছেন-মি-'গ্যুর-র্গ্যাল-ম্ত্শান (ওয়াইলি: shar chen rin chen mi 'gyur rgyal mtshan) নামক এক বৌদ্ধ লামা তাঁর নাম রাখেন রিন-ছেন-দ্বাং-র্গ্যাল (ওয়াইলি: rin chen dbang rgyal)। পরে তাঁর পিতা তাঁর নাম রাখেন ত্শে-রিং-দোন-গ্রুব (ওয়াইলি: tshe ring don grub)। তাঁর স্কাল-ব্জাং-র্দো-র্জে (ওয়াইলি: skal bzang rdo rje) এবং 'গ্যুর-মেদ-দোন-গ্রুব (ওয়াইলি: 'gyur med don grub) নামক দুইজন ভাই ছিল।[২]

শিক্ষাসম্পাদনা

স্দে-দ্গে রাজসভার ধর্মগুরু ব্যাম্স-পা-কুন-দ্গা'-বস্তান-'দ্জিন (ওয়াইলি: byams pa kun dga' bstan 'dzin) চার বছর বয়স হলে ত্শে-রিং-দোন-গ্রুবকে দীক্ষা দেন এবং বারো বছর বয়স হলে তাঁকে ব্যাম্স-পা-নাম-ম্খা'-'ছি-মেদ (ওয়াইলি: byams pa nam mkha' 'chi med) নামক চুয়াল্লিশতম ঙ্গোর-ছেনের পুনর্জন্ম রূপে চিহ্নিত করে তাঁর নতুন নাম রাখেন 'জাম-দ্ব্যাংস-ম্খ্যেন-ব্র্ত্সে'-দ্বাং-পো-কুন-দ্গা'-ব্স্তান-পা'ই-র্গ্যাল-ম্ত্শান-দ্পাল-ব্জাং-পো (ওয়াইলি: 'jam dbyangs mkhyen brtse' dbang po kun dga' bstan pa'i rgyal mtshan dpal bzang po)। কুড়ি বছর বয়সে তিনি থার-র্ত্সে বৌদ্ধবিহার ও ঙ্গোর-এ-বাম-ছোস-ল্দান বৌদ্ধবিহারে চক্রসম্বরহেবজ্র তন্ত্র সম্বন্ধে শিক্ষালাভ করেন। একুশ বছর বয়সে মিন্দ্রোলিং বৌদ্ধবিহারে তিনি শিক্ষাল্কাভ করেন। এই সময় তিনি 'জিগ্স-মেদ-র্গ্যাল-বা'ই-ম্যু-গু (ওয়াইলি: 'jigs med rgyal ba'i myu gu) নামক ভিক্ষুর নিকট ক্লোং-ছেন-স্ন্যিং-থিগ তত্ত্ব এবং ঝে-ছেন-দ্বোন-স্প্রুল-'গ্যুর-মেদ-ম্থু-স্তোব্স-র্নাম-র্গ্যাল (ওয়াইলি: zhe chen dbon sprul 'gyur med mthu stobs rnam rgyal) নামক ভিক্ষুর নিকট মায়াজাল তত্ত্ব সম্বন্ধে শিক্ষালাভ করেন। এছাড়া র্গ্যাল-স্রাস-গ্ঝান-ফান-ম্থা'-য়াস-'ওদ-জের (ওয়াইলি: rgyal sras gzhan phan mtha' yas 'od zer), মি-'গ্যুর-নাম-ম্খা'ই-র্দো-র্জে (ওয়াইলি: mi 'gyur nam mkha'i rdo rje), পে-মা-ব্দুদ-'দুল-দ্বাং-ফ্যুগ (ওয়াইলি: pe ma bdud 'dul dbang phyug), র্দো-র্জে-রিন-ছেন (ওয়াইলি: rdo rje rin chen), ব্যাম্স-পা-কুন-দ্গা'-ব্স্তান-'দ্জিন (ওয়াইলি: byams pa kun dga' bstan 'dzin) প্রভৃতি বিখ্যাত বৌদ্ধ লামারা তাঁর শিক্ষক ছিলেন।[২]

তিন লামার কর্মকাণ্ডসম্পাদনা

১৮৫৯ খ্রিষ্টাব্দ থেকে ম্ছোগ-গ্যুর-গ্লিং-পা, ব্লো-গ্রোস-ম্থা'-য়াস এবং 'জাম-দ্ব্যাংস-ম্খ্যেন-ব্র্ত্সে'-দ্বাং-পো এই তিন বিখ্যাত লামা স্দে-দ্গে রাজ্যে ব্যাপকভাবে ধর্মীয় কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়েন, যা ইতিহাসে ম্খ্যেন-কোং-ম্ছোগ-স্দে-গ্সুম (ওয়াইলি: mkhyen kong mchog sde gsum) নামে পরিচিত। এই তিন লামা একসাথে বেশ কিছু লক্কায়িত সম্পদের আবিষ্কার, বিশ্লেষণ ও প্রকাশনার ব্যবস্থা করেন। তাঁর রাজ্যের শান্তির জন্য বিভিন্ন স্থানে ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠানের ব্যবস্থা করেন। তাঁরা খ্রো উপত্যকায় একটি নতুন বৌদ্ধবিহার স্থাপন করতে চাইলেও রাজ্যের সা-স্ক্যা ধর্মসম্প্রদায়ভুক্ত লামাদের বিরোধিতায় ব্যর্থ হন। ন্যাগ-রোং অঞ্চলের শাসক ম্গোন-পো-র্নাম-র্গ্যাল (ওয়াইলি: mgon po rnam rgyal) দ্বারা স্দে-দ্গে রাজ্য অবরোধ হওয়ার পর তাঁরা যুদ্ধে বিধ্স্ত রাজ্যের ধর্মীয় গ্রন্থের প্রকাশনীটিকে পুনরায় চালু করার ব্যবস্থা করেন।[৩]

রচনাসম্পাদনা

১৮৭০ খ্রিষ্টাব্দে ম্ছোগ-গ্যুর-গ্লিং-পা মৃত্যুবরণ করলে 'জাম-দ্ব্যাংস-ম্খ্যেন-ব্র্ত্সে'-দ্বাং-পো তাঁর একটি সংক্ষিপ্ত জীবনী রচনা করেন। এছাড়া তিনি সা-স্ক্যা ধর্মসম্প্রদায়ের সাধনা পদ্ধতির ওপর স্গ্রুব-থাব্স-কুন-ব্তুস (ওয়াইলি: sgrub thabs kun btus) নামক একটি গ্রন্থ রচনা করেন। এছাড়া তিনি লাম-'ব্রাস-স্লোব-ব্শাদ (ওয়াইলি: lam 'bras slob bshad) তত্ত্বের ওপর সতেরো খন্ড গ্রন্থ রচনা করেন। তিনি দ্বুস-গ্ত্সাং-গ্নাস-য়িগ (ওয়াইলি: dbus gtsang gnas yig) নামক তিব্বতের ধর্মস্থানগুলির একটি ভ্রমণ নির্দেশিকা রচনা করেন।[২]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Orgyen Tobgyal Rinpoche (২০০৫)। "The Life of Jamyang Khyentse Wangpo"Jamyang Khyentse Wangpo Series। LotsawaHouse। 
  2. Gardner, Alexander (ফেব্রুয়ারি ২০১০)। "Jamyang Khyentse Wangpo"The Treasury of Lives: Biographies of Himalayan Religious Masters। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-১০-১২ 
  3. Chhosphel, Samten (ডিসেম্বর ২০০৯)। "Chokgyur Lingpa"The Treasury of Lives: Biographies of Himalayan Religious Masters। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০৯-০১ 

আরো পড়ুনসম্পাদনা

  • Khetsun Sangpo. 1973. Biographical Dictionary of Tibet and Tibetan Buddhism. Dharamsala: LTWA, vol. 4, pp. 500 ff.
  • Nyoshul Khenpo. 2005. A Marvelous Garland of Rare Gems. Richard Barron, trans. Junction City, California: Padma Publication, pp. 270–280.
  • Dudjom Rinpoche. 2002. The Nyingma School of Tibetan Buddhism. Gyurme Dorje and Matthew Kapstein, trans. Boston: Wisdom, pp. 849–858.