লেড জেপেলিন

(Led Zeppelin থেকে পুনর্নির্দেশিত)

লেড জেপেলিন ১৯৬৮ সালে লন্ডনে গঠিত একটি ব্রিটিশ রক ব্যান্ড। এই দলে ছিলেন কণ্ঠশিল্পী রবার্ট প্ল্যান্ট, গিটারবাদক জিমি পেজ, বেসবাদক/কিবোর্ডবাদক জন পল জোন্স এবং ড্রামবাদক জন বনহাম। তাদের হেভি, গিটার চালিত শব্দের কারণে তাদের নিয়মিতভাবে হেভি মেটাল শৈলীর অন্যতম প্রবর্তক হিসেবে উল্লেখিত হয়, যদিও তাদের শৈলীটি ব্লুজ এবং লোক সঙ্গীত সহ বিভিন্ন প্রভাবে থেকে আকৃষ্ট হয়েছিল। ব্যান্ডটি সঙ্গীত শিল্পের প্রকৃতিতে উল্লেখযোগ্যভাবে প্রভাবিত করে বিশেষত অ্যালবাম-ওরিয়েন্টেটেড রক (এওআর) এবং স্টেডিয়াম রকের বিকাশে কৃতিত্ব লাভ করে। অনেক সমালোচক লেড জেপেলিনকে ইতিহাসের অন্যতম সফল, উদ্ভাবনী এবং প্রভাবশালী রক ব্যান্ড হিসেবে বিবেচনা করেন।

লেড জেপেলিন
Head-shot photographs of each of the four members of Led Zeppelin
প্রাথমিক তথ্য
উদ্ভবলন্ডন, ইংল্যান্ড
ধরন
কার্যকাল১৯৬৮–১৯৮০
(পুনর্মিলন: ১৯৮৫, ১৯৮৮, ১৯৯৫, ২০০৭)
লেবেল
সহযোগী শিল্পী
ওয়েবসাইটledzeppelin.com
প্রাক্তন সদস্যবৃন্দ

নিউ ইয়ার্ডবার্ডস থেকে তাদের নাম পরিবর্তন করার পরে, লেড জেপেলিন আটলান্টিক রেকর্ডসের সাথে একটি চুক্তি সাক্ষর করেছিল, যাতে তাদের যথেষ্ট শৈল্পিক স্বাধীনতা রক্ষা করেছিল। যদিও ব্যান্ডটি প্রথমদিকে সমালোচকদের কাছে অপ্রিয় ছিল, তারা লেড জেপেলিন (১৯৬৯) থেকে ইন থ্রু দি আউট ডোর (১৯৭৯) পর্যন্ত দশ বছরে প্রকাশিত আটটি স্টুডিও অ্যালবামের মাধ্যমে উল্লেখযোগ্য বাণিজ্যিক সাফল্য অর্জন করেছিল। তাদের শিরোনামহীন চতুর্থ স্টুডিও অ্যালবামটি সাধারণত লেড জেপেলিন ৪ (১৯৭১) নামে পরিচিত, ইতিহাসের সর্বাধিক বিক্রিত অ্যালবামগুলির মধ্যে একটি হয়ে ওঠে। অ্যালবামটিতে "স্টেয়ারওয়ে টু হেভেন" গানটি প্রকাশিত হয়, যা রক সঙ্গীতের সর্বাধিক জনপ্রিয় এবং প্রভাবশালী সৃষ্টিকর্মের একটি এবং এটি ব্যান্ডের জনপ্রিয়তা ধরে রাখতে সহায়তা করেছে।

পেজ তাদের কর্মজীবনের প্রথম দিকে লেড জেপেলিনের বেশিরভাগ সঙ্গীত রচনা করেছিলেন, যখন প্ল্যান্ট সাধারণত গানের কথা সরবরাহ করেছিলেন। জোন্সের কিবোর্ড-ভিত্তিক রচনাগুলি পরে দলের ক্যাটালগে কেন্দ্রীয় হয়ে উঠে, যেখানে ক্রমবর্ধমান পরীক্ষামূলক বৈশিষ্ট্যযুক্ত। তাদের কর্মজীবনের শেষার্ধটি ছিল ধারাবাহিক রেকর্ড ব্রেকিং সফর যা এই দলটিকে অতিরিক্ত খ্যাতি এনে দিয়েছিল। যদিও তারা বাণিজ্যিকভাবে এবং সমালোচনামূলকভাবে সাফল্য অর্জন করেছিল, তবে তাদের আউটপুট এবং সফরের সময়সূচী সত্তরের দশকের শেষের দিকে সীমাবদ্ধ ছিল। ১৯৮০ সালে মদ-সম্পর্কিত শ্বাসকষ্ট থেকে বনহামের মৃত্যুর পরে দলটি ভেঙে যায়। পরবর্তী দশকগুলিতে প্রাক্তন সদস্যরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে সহযোগিতা করেছিলেন এবং লেড জেপেলিন পুনর্মিলন করন। এর মধ্যে সবচেয়ে সফল ছিল ২০০৭ সালে লন্ডনের আহমেট এর্তেগুন ট্রিবিউট কনসার্ট; যেখানে বোনের পুত্র জেসন বনহাম ড্রাম বাজিয়েছেন।

ডিস্কোগ্রাফিসম্পাদনা

কর্মিবৃন্দসম্পাদনা

সরাসরি পরিবেশনায় অতিথি

বহিঃসংযোগসম্পাদনা