প্রধান মেনু খুলুন

ফ্রাংকলিন পিয়ের্স

(Franklin Pierce থেকে পুনর্নির্দেশিত)
ফ্রাংক্‌লিন পিয়ের্স

ফ্রাংকলিন পিয়ের্স (২৩ নভেম্বর ১৮০৪৮ অক্টোবর ১৮৬৯) ছিলেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের চতুর্দশ রাষ্ট্রপতি। তিনি ১৮৫৩ থেকে ১৯৫৭ সাল পর্যন্ত রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ডেমোক্র্যাট পার্টির সদস্য ছিলেন। তিনি দাসপ্রথা বিলোপ আন্দোলনকে জাতীয় ঐক্যের জন্য ঝুঁকি হিসেবে বিবেচনা করতেন। তিনি কানসাস-নেব্রাস্কা চুক্তিতে স্বাক্ষর করে দাসপ্রথা বিরোধী দলের কাছে অধিকার হস্তান্তর করেন এবং ফিউজিটিভ স্লেভ আইন পাস করেন। তবুও তিনি উত্তর ও দক্ষিণ অঞ্চলের মধ্যে দ্বন্দ্ব নিরসনে ব্যর্থ হন, যা মার্কিন গৃহযুদ্ধের সূত্রপাত ঘটায়।

প্রারম্ভিক জীবনসম্পাদনা

ফ্রাংকলিন পিয়ের্স ১৮০৪ সালের ২৩শে নভেম্বর নিউ হ্যাম্পশায়ারের হিলসবরার লং কেবিনে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি টমাস পিয়ের্সের ষষ্ঠ প্রজন্ম। টমাস ১৬৩৪ সালে ইংল্যান্ডের নরফোকের নরউইচ থেকে ম্যাসাচুসেটস বে কলনিতে আসেন। ফ্রাংকলিনের পিতা বেঞ্জামিন মার্কিন স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় একজন লেফটেন্যান্ট ছিলেন। তিনি যুদ্ধের পর ম্যাসাচুসেটসের চেমসফোর্ড থেকে হিলসবরাতে চলে যান এবং সেখান ৫০ একর জমি ক্রয় করেন। ফ্রাংকলিন ছিলেন বেঞ্জামিন ও তার দ্বিতীয় স্ত্রী অ্যানা কেন্ড্রিকের আট সন্তানের মধ্যে পঞ্চম। বেঞ্জামিনের প্রথম স্ত্রী এলিজাবেথ অ্যান্ড্রুজ সন্তান জন্ম দিতে গিয়ে মারা যান। তার এক কন্যা সন্তান জন্মগ্রহণ করেছিল। বেঞ্জামিন প্রখ্যাত ডেমোক্র্যাটিক-রিপাবলিকান আইন প্রণেতা, কৃষক ও ট্যাভার্ন-কিপার ছিলেন। পিয়ের্সের বাল্যকালে তার পিতা রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন এবং তাঁ বড় দুই ভাই ১৮১২ সালের যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিলেন।[১]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা