২০১৮–১৯ রিয়াল মাদ্রিদ ফুটবল ক্লাব মৌসুম

(2018–19 Real Madrid C.F. season থেকে পুনর্নির্দেশিত)

২০১৮–১৯ মৌসুম হলো রিয়াল মাদ্রিদ ফুটবল ক্লাবের ১১৫তম মৌসুম এবং স্পেনীয় ফুটবলের শীর্ষ বিভাগ লা লিগায় ক্লাবের ৮৮তম মৌসুম। এই মৌসুমটিতে ২০১৮ সালের ১লা জুলাই হতে ২০১৯ সালের ৩০শে জুনের রিয়াল মাদ্রিদের সকল ম্যাচ অন্তর্ভুক্ত।

রিয়াল মাদ্রিদ
২০১৮–১৯ মৌসুম
প্রেসিডেন্টস্পেন ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ
ম্যানেজারস্পেন হুলেন লোপেতেগি (২৯ অক্টোবর পর্যন্ত)
আর্জেন্টিনা সান্তিয়াগো সোলারি (৩০ অক্টোবর হতে ১১ মার্চ পর্যন্ত)
স্টেডিয়ামসান্তিয়াগো বার্নাব্যু
লা লিগা৩য়
কোপা দেল রেসেমি-ফাইনাল
উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগ১৬ দলের পর্ব
উয়েফা সুপার কাপরানার-আপ
ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপবিজয়ী
সর্বোচ্চ গোলদাতালীগ:
ফ্রান্স করিম বেনজেমা (২১)

মোট:
ফ্রান্স করিম বেনজেমা (৩০)
সর্বোচ্চ স্বাগতিক উপস্থিতি৮০,৪৭২
(বনাম এফসি বার্সেলোনা, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯)
সর্বনিম্ন স্বাগতিক উপস্থিতি৪৪,২৩১
(বনাম লেগানেস, ৯ জানুয়ারি ২০১৯)
গড় স্বাগতিক লীগ উপস্থিতি৬০,৯৬৭
নিজস্ব মাঠে রং
অন্যের মাঠে রং
তৃতীয় রং

সারাংশসম্পাদনা

প্রাক-মৌসুমসম্পাদনা

সাবেক ম্যানেজার জিনেদিন জিদানের প্রস্থানের পর,[১][২] ২০১৮ সালের ১২ই জুন তারিখে মাদ্রিদ ঘোষণা করে যে, তৎকালীন স্পেনীয় কোচ হুলেন লোপেতেগি রিয়াল মাদ্রিদের প্রধান কোচের দায়িত্ব পালন করবে।[৩]

২০১৮ সালের ২২শে জুন তারিখে, মাদ্রিদ এই মৌসুমে তাদের প্রথম স্বাক্ষরিত খেলোয়াড়, ১৯-বছর বয়সী ঘোষণা করে ইউক্রেনীয় গোলরক্ষক আন্দ্রি লুনিনের নাম ঘোষণা করে।[৪] ২০১৮ সালে ৫ই জুলাই তারিখে, মাদ্রিদ স্পেনীয় রাইট ব্যাক আলভারো অদ্রিওজোলাকে স্বাক্ষর করে।[৫] ৫ দিন পর, ২০১৮ সালের ১০ই জুলাই তারিখে, মাদ্রিদ তাদের ইতিহাসের সেরা খেলোয়াড় ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোকে প্রায় ১০০ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে ইতালীয় ক্লাব ইয়ুভেন্তুসের কাছে বিক্রয় করে দেয়।[৬][৭][৮]

২০১৮ সালের ৮ই আগস্ট তারিখে, মাদ্রিদ চেলসি হতে গোলরক্ষক থিবো কোর্তোয়াকে স্বাক্ষর করে,[৯] একই সাথে ক্রোয়েশীয় মধ্যমাঠের খেলোয়াড় মাতেও কোভাচিচ চেলসিতে এক মৌসুমের জন্য ধারে যোগদান করে।[১০]

আগস্টসম্পাদনা

২০১৮ সালের ১৫ই আগস্ট তারিখে, ২০১৮ উয়েফা সুপার কাপে আতলেতিকো মাদ্রিদের বিরুদ্ধে খেলার মাধ্যমে রিয়াল মাদ্রিদের এই মৌসুম শুরু হয়। উক্ত ম্যাচে অতিরিক্ত সময়ে রিয়াল মাদ্রিদ ২–৪ গোলে হারে। মূল ম্যাচ শেষের ১০ মিনিট পূর্ব পর্যন্ত বেনজেমা এবং রামোসের গোলে মাদ্রিদ এগিয়ে ছিল। এটি রিয়াল মাদ্রিদের শেষ ৯ ইউরোপীয় ফাইনাল জয়ের পর প্রথম হার ছিল।[১১] ৪ দিন পর, রিয়াল হেতাফের বিরুদ্ধে ২–০ গোলে জয়ের মাধ্যমে নতুন লা লিগা মৌসুম শুরু করে। উক্ত ম্যাচে রক্ষণভাগের খেলোয়াড় দানি কারভাহাল এবং গ্যারেথ বেল গোল করেন।[১২] হিরোনার বিরুদ্ধে, ১–০ গোলে পিছিয়ে থেকেও ৪–১ গোলে ম্যাচটি জয়লাভ করতে সক্ষম হয়। উক্ত ম্যাচে বেনজেমা দুটি গোল করেন এবং রামোস ও বেল একটি করে গোল করেন।[১৩] ২০১৮ সালের ২৯শে আগস্ট তারিখে, লিঁও হতে আক্রমণভাগের খেলোয়াড় মারিয়ানো দিয়াজ মেজিয়া পুনরায় রিয়ালে যোগদান করেন।[১৪]

সেপ্টেম্বরসম্পাদনা

নতুন মাসের প্রথম দিনেই, রিয়াল মাদ্রিদ লেগানেসের বিরুদ্ধে ৪–১ গোলে জয়লাভ করার মাধ্যমে ৩ পয়েন্ট অর্জন করে। এই ম্যাচেও বেনজেমা দুটি গোল করেন এবং রামোস ও বেল একটি করে গোল করেন।[১৫] ২০১৮ সালের ১৫ই সেপ্টেম্বর তারিখে, অ্যাথলেতিক বিলবাওয়ের সাথে অ্যাওয়ে ম্যাচে ১–১ গোলে ড্র করে; এই ম্যাচে ইস্কোর করা অসাধারণ হেডে রিয়াল মাদ্রিদ ১ পয়েন্ট অর্জন করতে সক্ষম হয়।[১৬] ৪ দিন পর, ২০১৮–১৯ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগের গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে রোমার বিরুদ্ধে ৩–০ গোলে জয়লাভ করে। উক্ত ম্যাচে বেল, ইস্কো এবং মারিয়ানো একটি করে গোল করেছিল।[১৭] ৩ দিন পর, মার্কো আসেন্সিওর করা একমাত্র গোলে এস্পানিওলের বিরুদ্ধে ১–০ গোলে জয়লাভ করে।[১৮] ২০১৮ সালের ২৬শে সেপ্টেম্বর তারিখে, রিয়াল মাদ্রিদ এই মৌসুমের প্রথম হারের সম্মুখীন হয়, ম্যাচটিতে তারা সেভিয়ার বিরুদ্ধে ০–৩ গোলে হেরে যায়।[১৯] ৩ দিন পর, এই মৌসুমের প্রথম মাদ্রিদ ডার্বিতে আতলেতিকো মাদ্রিদের বিরুদ্ধে গোলশূন্য ড্র করে।[২০]

অক্টোবরসম্পাদনা

২০১৮ সালের ২রা অক্টোবর তারিখে, চ্যাম্পিয়নস লীগের গ্রুপ পর্বের ম্যাচে রিয়াল সিএসকেএ মস্কোর কাছে ০–১ গোলে হেরে যায়।[২১] ৪ দিন পর, লীগ ম্যাচে রিয়াল দেপোর্তিভো আলাভেসের মুখোমুখি হয়, যেখানে তারা ০–১ গোলে হেরে যায়।[২২] অতঃপর ২০১৮ সালের ২০শে অক্টোবর তারিখে, লীগ ম্যাচে রিয়াল লেভান্তে ইউডির কাছে ১–২ গোলে হেরে যায়,[২৩] এই ম্যাচে রিয়ালের হয়ে একমাত্র গোলটি করেন রক্ষণভাগের খেলোয়াড় মার্সেলো; এই গোলের মাধ্যমে রিয়াল তাদের ক্লাবের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি সময় (৪৮১ মিনিট) গোলশূন্য থাকার নতুন রেকর্ড গড়ে।[২৪] ৩ দিন পর ২৩শে অক্টোবর, চ্যাম্পিয়নস লীগের ম্যাচে, ভিক্টোরিয়া প্লজেনের বিরুদ্ধে ২–১ গোলে জয়লাভ করে, যেখানে বেনজেমা এবং মার্সেলো একটি করে গোল করে।[২৫] ৫ দিন পর, মার্সেলোর করা একমাত্র গোলে এল ক্লাসিকোয় ১–৫ গোলে হেরে যায়।[২৬] ২০১৮ সালের ২৯শে অক্টোবর তারিখে, লোপেতেগিকে পদচ্যুত করা হয় এবং তৎকালীন কাস্তিয়া কোচ সান্তিয়াগো সোলারিকে তত্ত্বাবধায়ক হিসেবে নিয়োগ করা হয়।[২৭] এই মাসের শেষ দিনে, বেনজেমা, আসেন্সিও, অদ্রিওজোলা এবং ক্রিস্তো গঞ্জালেজের করা গোলে কোপা দেল রের ৩২ দলের পর্বের প্রথম লেগে ইউডি মেলিয়ার বিরুদ্ধে ৪–০ গোলে জয়লাভ করে।[২৮]

নভেম্বরসম্পাদনা

২০১৮ সালের ৩রা নভেম্বর তারিখে, ভিনিসিউস জুনিওরের অভিষেক গোল এবং রামোসের পেনাল্টির মাধ্যমে লীগ খেলায় রিয়াল ভায়াদোলিদের বিরুদ্ধে ২–০ গোলে জয়লাভ করে।[২৯] ৪ দিন পর, রিয়াল চ্যাম্পিয়নস লীগের ফিরতি লেগের খেলায় ভিক্তোরিয়া প্লজেনের বিরুদ্ধে ৫–০ গোলে বড় ব্যবধানে জয়লাভ করে; এই ম্যাচে বেনজেমা দুটি, বেল, কাজিমিরো এবং টনি ক্রুস একটি করে গোল করেন।[৩০] ২০১৮ সালের ১১ই নভেম্বর তারিখে, লীগ খেলায় বেনজেমা, রামোস, দানি সেবায়োস এবং একটি আত্মঘাতী গোলের মাধ্যমে সেলতা বিগোকে ৪–২ গোলে হারায়।[৩১] ২০১৮ সালের ১৩ই নভেম্বর তারিখে, রিয়াল মাদ্রিদের সাথে ২০২১ সাল পর্যন্ত চুক্তি স্বাক্ষরের মাধ্যমে সোলারি প্রধান কোচের দায়িত্ব গ্রহণ করেন।[৩২] ২০১৮ সালের ২৪শে নভেম্বর তারিখে, এসডি এইবারের সাথে ০–৩ গোলে হেরে যায়।[৩৩] রোমার বিরুদ্ধে চ্যাম্পিয়নস লীগের ম্যাচে বেল এবং লুকাস বাজকেজের করা গোলের মাধ্যমে ২–০ গোলে জয়লাভ করে। এই জয়ের মাধ্যমে, মাদ্রিদ নকআউট পর্বে অগ্রসর হয়।[৩৪]

ডিসেম্বরসম্পাদনা

এই মাসের প্রথম দিনে, ভ্যালেন্সিয়ার বিরুদ্ধে একটি আত্মঘাতী গোল এবং বাজকেজের গোলের মাধ্যমে ২–০ গোলে জয়লাভ করে ৩ পয়েন্ট অর্জন করে।[৩৫] ২০১৮ সালের ৬ই ডিসেম্বর তারিখে, কোপা দেল রে'র ৩২ দলের পর্বের ফিরতি লেগে মেলিয়ার বিরুদ্ধে আসেন্সিও ও ইস্কোর জোড়া গোল এবং ভিনিসিউস ও হাভি সানচেজের একটি গোলের মাধ্যমে ৬–১ গোলে জয়লাভ করে; এর ফলে রিয়াল মাদ্রিদ সামগ্রিকভাবে ১০–১ গোলে জয়লাভ করে ১৬ দলের পর্বে অগ্রসর হয়।[৩৬] তিন দিন পর, বেলের করা একমাত্র গোলের মাধ্যমে এসডি উয়েস্কার বিরুদ্ধে অ্যাওয়ে ম্যাচে ১–০ গোলে জয়লাভ করে।[৩৭] চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে মাদ্রিদ রুশ ক্লাব সিএসকেএ মস্কোর বিরুদ্ধে ০–৩ ব্যবধানে পরাজিত হয়েছিল।[৩৮] ২০১৮ সালের ১৫ই ডিসেম্বর তারিখে, বেনজেমার করা একমাত্র গোলের বিনিময়ে মাদ্রিদ রায়ো ভায়েকানোর বিরুদ্ধে ১–০ গোলে জয়লাভ করেছিল।[৩৯] ২০১৮ সালের ১৯শে ডিসেম্বর তারিখে, ২০১৮ ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপের সেমি-ফাইনালে জাপানের ক্লাব কাশিমা অ্যান্টলার্সকে ৩–১ গোলে হারিয়ে দেয়; উক্ত ম্যাচে বেল এই মৌসুমে প্রথমবারের মতো হ্যাট্রিক করেন।[৪০] ৩ দিন পর, ফাইনালে সংযুক্ত আরব আমিরাতের ক্লাব আল-আইনকে ৪–১ গোলে হারিয়ে টানা তৃতীয় বার এবং রেকর্ড পরিমাণ ৪ বার ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপের শিরোপা জয়লাভ করে; এই ম্যাচে লুকা মদরিচ, মার্কোজ ইয়োরেন্তে, রামোস একটি করে গোল করেছিল।[৪১]

জানুয়ারিসম্পাদনা

২০১৯ সালের ৩রা জানুয়ারি তারিখে, নতুন বছরের প্রথম ম্যাচে মাদ্রিদ বেনজেমা এবং ভারানের করা গোলে ভিয়ারিয়ালের সাথে ২–২ গোলে ড্র করে।[৪২] তিন দিন পর, রিয়াল সোসিয়েদাদের বিরুদ্ধে ম্যাচে ০–২ গোলে হেরে নতুন বছরের প্রথম পরাজয়ের মুখোমুখি হয়।[৪৩] ২০১৯ সালের ৬ই জানুয়ারি তারিখে, মাদ্রিদ ম্যানচেস্টার সিটি ক্লাব হতে ১৭ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে ১৯ বছর বয়সী ব্রাহিম দিয়াজের স্বাক্ষর ঘোষণা করে।[৪৪] ২০১৯ সালের ৯ই জানুয়ারি তারিখে, কোপা দেল রে-এর ১৬ দলের পর্বের প্রথম লেগে ঘরের মাঠে রামোস, বাসকেজ এবং ভিনিসিউসের করা গোলের বিনিময়ে লেগানেসের বিরুদ্ধে মাদ্রিদ ৩–০ গোলে জয়লাভ করে।[৪৫] ২০১৯ সালের ১৩ই জানুয়ারি তারিখে, ৮৮তম মিনিটে সেবায়োসের করা গোলে রিয়াল বেতিসের বিরুদ্ধে ২–১ গোলের কষ্টার্জিত জয় অর্জন করে; উক্ত ম্যাচে মদ্রিচ একটি গোল করেছিল।[৪৬] তিন দিন পর, কোপা দেল রে-এর ১৬ দলের পর্বের দ্বিতীয় লেগে লেগানেসের কাছে ০–১ গোলে হেরে জায়; যদিও সামগ্রিকভাবে রিয়াল মাদ্রিদ লেগানেসকে ৩–১ গোলে হারিয়ে কোপা দেল রে-এর কোয়ার্টার ফাইনালে নিজেদের স্থান দখল করে নেয়।[৪৭] ২০১৯ সালের ১৭ই জানুয়ারি তারিখে, গোলরক্ষক কিকো কাসিয়া ইংরেজ ক্লাব লিডস ইউনাইটেডে যোগদান করেন।[৪৮] দুই দিন পর, কাজিমিরো এবং মদরিচের করা গোলের বিনিময়ে সেভিয়াকে ২–০ গোলে হারায় রিয়াল মাদ্রিদ।[৪৯] ২০১৯ সালের ২৪শে জানুয়ারি তারিখে, রামোসের জোড়া গোল এবং বাসকেজ ও বেনজেমার একটি করে গোলের বিনিময়ে কোপা দেল রে-এর কোয়ার্টার-ফাইনালে হিরোনাকে প্রথম লেগে ৪–২ গোলে হারায়।[৫০] তিন দিন পর, রিয়াল মাদ্রিদ পুনরায় ৪–২ গোলে জয়লাভ করে, এবার তারা এস্পানিওলকে হারিয়েছে; উক্ত ম্যাচে বেনজেমা দুটি এবং রামোস ও বেল একটি করে গোল করেছে।[৫১]

ফেব্রুয়ারিসম্পাদনা

ফেব্রুয়ারি মাসে ৩ তারিখে, বেনজেমা, ভিনিসিউস এবং মারিয়ানোর করা গোলের বিনিময়ে রিয়াল মাদ্রিদ আলাভেসকে ৩–০ গোলে হারিয়েছে।[৫২] ৬ই ফেব্রুয়ারি তারিখে, ক্যাম্প ন্যুতে অনুষ্ঠিত কোপা দেল রে-এর সেমিফাইনালের প্রথম লেগে রিয়াল মাদ্রিদ তাদের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনার সাথে ১–১ গোলে ড্র করেছে; উক্ত ম্যাচে রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে ৬ষ্ঠ মিনিটে বাসকেজ গোল করেছিল।[৫৩]

খেলোয়াড়সম্পাদনা

খেলোয়াড়দের উপাত্ত মৌসুম শুরুর পূর্ব পর্যন্ত সঠিক

নং
স্থান
জা.
নাম
বয়স
ইইউ
থেকে
উপ.
গোল
সমাপ্ত
স্থানান্তর ব্যয়
নোট
গো   কেইলর নাভাস ৩৩ ইইউ ২০১৪ ১৪২ ২০২০ &১০০০০০০০০০০০০০০১০০০০০০০€১০মি দ্বিতীয় জাতীয়তা: স্পেন
  দানি কারভাহাল ২৮ ইইউ ২০১৩ ২০০ ২০২২ &১০০০০০০০০০০০০০০০৬৫০০০০০€৬.৫মি মূলত যুব পর্যায় হতে উত্তীর্ণ
  হেসুস ভায়েহো ২৩ ইইউ ২০১৫ ১২ ২০২১ &১০০০০০০০০০০০০০০০৬০০০০০০€৬মি
  সার্জিও রামোস (অধিনায়ক) ৩৩ ইইউ ২০০৫ ৫৬৫ ৭৪ ২০২০ &১০০০০০০০০০০০০০০২৮০০০০০০€২৮মি
  রাফায়েল ভারান (৩য় সহ-অধিনায়ক) ২৬ ইইউ ২০১১ ২৩৪ ১০ ২০২২ &১০০০০০০০০০০০০০০১০০০০০০০€১০মি
  নাচো ৩০ ইইউ ২০১২ ১৬০ ২০২১ যুব পর্যায়
  মারিয়ানো ২৬ ইইউ ২০১৮ ১৫ ২০২৩ &১০০০০০০০০০০০০০০২৩০০০০০০€২৩মি মূলত যুব পর্যায় হতে উত্তীর্ণ
  টনি ক্রুস ৩০ ইইউ ২০১৪ ১৯১ ১২ ২০২২ &১০০০০০০০০০০০০০০২৫০০০০০০€২৫মি
  করিম বেনজেমা (২য় সহ-অধিনায়ক) ৩২ ইইউ ২০০৯ ৪১৩ ১৯৩ ২০২১ &১০০০০০০০০০০০০০০৩৫০০০০০০€৩৫মি দ্বিতীয় জাতীয়তা: আলজেরিয়া
১০   লুকা মদ্রিচ ৩৪ ইইউ ২০১২ ২৫৮ ১৩ ২০২০ &১০০০০০০০০০০০০০০৩০০০০০০০€৩০মি
১১   গ্যারেথ বেল ৩০ ইইউ ২০১৩ ১৮৬ ৮৮ ২০২২ &১০০০০০০০০০০০০০১০০০০০০০০€১০০.৮মি
১২   মার্সেলো (সহ-অধিনায়ক) ৩১ ইইউ ২০০৭ ৪৫৩ ৩৩ ২০২২ &১০০০০০০০০০০০০০০০৬৫০০০০০€৬.৫মি দ্বিতীয় জাতীয়তা: স্পেন
১৪   কাজিমিরো ২৮ অ-ইউ ২০১৩ ১৫০ ১৪ ২০২১ &১০০০০০০০০০০০০০০০৬০০০০০০€৬মি
১৫   ফেদেরিকো বালবের্দে ২১ অ-ইউ ২০১৬ ২০২০ যুব পর্যায়
১৭   লুকাস ভাসকেজ ২৮ ইইউ ২০১৫ ১৩৬ ১৬ ২০২১ &১০০০০০০০০০০০০০০০১০০০০০০€১মি মূলত যুব পর্যায় হতে উত্তীর্ণ
১৮   মার্কোজ ইয়োরেন্তে ২৫ ইইউ ২০১৫ ২৩ ২০২১ যুব পর্যায়
১৯   আলভারো অদ্রিওজোলা ২৪ ইইউ ২০১৮ ২০২৪ &১০০০০০০০০০০০০০০৩০০০০০০০€৩০মি
২০   মার্কো অ্যাসেন্সিও ২৪ ইইউ ২০১৪ ৯১ ২১ ২০২৩ &১০০০০০০০০০০০০০০০৩৮৯৯৯৯৯€৩.৯মি দ্বিতীয় জাতীয়তা: নেদারল্যান্ডস
২১   ব্রাহিম দিয়াজ ২০ ইইউ ২০১৯ ২০২৫ &১০০০০০০০০০০০০০০১৭০০০০০০€১৭মি
২২   ইস্কো ২৭ ইইউ ২০১৩ ২৪১ ৪২ ২০২২ &১০০০০০০০০০০০০০০২৭০০০০০০€২৭মি
২৩   সার্হিও রেগুইলন ২৩ ইইউ ২০১৭ ২০২১ যুব পর্যায়
২৪   দানি সেবায়োস ২৩ ইইউ ২০১৭ ২৩ ২০২৩ &১০০০০০০০০০০০০০০১৬৫০০০০০€১৬.৫মি
২৫ গো   থিবো কোর্তোয়া ২৭ ইইউ ২০১৮ ২০২৪ &১০০০০০০০০০০০০০০৩৫০০০০০০€৩৫মি
২৮   ভিনিসিউস জুনিওর ১৯ অ-ইউ ২০১৮ ২০২৩ &১০০০০০০০০০০০০০০৪৫০০০০০০€৪৫মি
৩০ গো   লুকা জিদান ২১ ইইউ ২০১৭ ২০২১ যুব পর্যায়
  • সর্বশেষ সংষ্করণ: ৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
  • উৎস: Realmadrid.com
  • জার্সি নম্বর অনুযায়ী নির্দেশিত

স্থানান্তরসম্পাদনা

অভ্যন্তরসম্পাদনা

নং
স্থান
জা.
নাম
বয়স
ইইউ
যে দল
থেকে স্থানান্তর
ধরণ
স্থানান্তর
মৌসুম
সমাপ্ত
স্থানান্তর
ব্যয়
উৎস
  মারিয়ানো ২৫ ইইউ   লিঁও স্থানান্তর গ্রীষ্ম ২০২৩ €২২মি রিয়াল মাদ্রিদ সি.এফ.
১৫   ফেদেরিকো বালবের্দে ১৯ অ-ইইউ   রিয়াল মাদ্রিদ কাস্তিয়া উত্তীর্ণ গ্রীষ্ম ২০২১ বিনামূল্য
১৯   আলভারো অদ্রিওজোলা ২২ ইইউ   রিয়াল সোসিয়েদাদ স্থানান্তর গ্রীষ্ম ২০২৪ €৩০মি রিয়াল মাদ্রিদ সি.এফ.
২৫ গো   থিবো কোর্তোয়া ২৬ ইইউ   চেলসি স্থানান্তর গ্রীষ্ম ২০২৪ €৩৫মি রিয়াল মাদ্রিদ সি.এফ.
২৮   ভিনিসিউস জুনিওর ১৮ অ-ইইউ   ফ্লামেঙ্গো স্থানান্তর গ্রীষ্ম ২০২৩ €৪৫মি রিয়াল মাদ্রিদ সি.এফ.
গো   আন্দ্রি লুনিন ১৯ ইইউ   জোরয়া লুহানস্ক স্থানান্তর গ্রীষ্ম ২০২৪ €৮.৫মি রিয়াল মাদ্রিদ সি.এফ.
  ফাবিও কোয়েন্ত্রেও ৩০ ইইউ   স্পোর্চিং সিপি ধারের সমাপ্তি গ্রীষ্ম ২০১৯ বিনামূল্য
  ফিলিপ লিয়েনহার্ত ২১ ইইউ   এসসি ফ্রেইবুর্গ ধারের সমাপ্তি গ্রীষ্ম ২০১৮ বিনামূল্য
  ওমর মাস্কারেল ২৫ ইইউ   এইন্ত্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্ট পুনঃ-ক্রয় ধারা গ্রীষ্ম ২০১৮ €৪মি
  মার্টিন ওদেগার ১৯ ইইউ   এসসি হিরেনভিন ধারের সমাপ্তি গ্রীষ্ম ২০২১ বিনামূল্য
  লুকাস তোরো ২৩ ইইউ   ওসাসুনা পুনঃ-ক্রয় ধারা গ্রীষ্ম ২০১৮ €১.৭৫মি
  রাউল দে তোমাস ২৩ ইইউ   রিয়াল মাদ্রিদ কাস্তিয়া উত্তীর্ণ গ্রীষ্ম ২০২৩ বিনামূল্য
২১   ব্রাহিম দিয়াজ ১৯ ইইউ   ম্যানচেস্টার সিটি স্থানান্তর শীত ২০২৫ €১৭মি রিয়াল মাদ্রিদ সি.এফ.

  মোট ব্যয়: €১৪১.২৫ মিলিয়ন

বহিরাগতসম্পাদনা

নং
স্থান
জা.
নাম
বয়স
ইইউ
যেখানে স্থানান্তর
ধরণ
স্থানান্তর
মৌসুম
স্থানান্তর
ব্যয়
উৎস
  ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো ৩৩ ইইউ   ইয়ুভেন্তুস স্থানান্তর গ্রীষ্ম €১০০মি ইয়ুভেন্তুস এফসি
১৫   থিও হার্নান্দেজ ২০ ইইউ   রিয়াল সোসিয়েদাদ ধার গ্রীষ্ম বিনামূল্য রিয়াল সোসিয়েদাদ
১৯   আকরাফ হাকিমি ১৯ ইইউ   বরুসিয়া ডর্টমুন্ড ধার গ্রীষ্ম বিনামূল্য বরুসিয়া ডর্টমুন্ড
২১   বোরহা মায়োরাল ২১ ইইউ   লেভান্তে ধার গ্রীষ্ম বিনামূল্য লেভান্তে ইউডি
২৩   মাতেও কোভাচিচ ২৪ ইইউ   চেলসি ধার গ্রীষ্ম বিনামূল্য চেলসি এফসি
গো   আন্দ্রি লুনিন ১৯ ইইউ   লেগানেস ধার গ্রীষ্ম বিনামূল্য সিডি লেগানেস
  ফাবিও কোয়েন্ত্রেও ৩০ ইইউ   রিও আভে মুক্ত গ্রীষ্ম বিনামূল্য রিও আভে এফ.সি.
  ফিলিপ লিয়েনহার্ত ২১ ইইউ   এসসি ফ্রেইবুর্গ স্থানান্তর গ্রীষ্ম €২মি এসসি ফ্রেইবুর্গ
  আলভারো তেহেরো ২১ ইইউ   আলবাসেতে বালোম্পি ধার গ্রীষ্ম বিনামূল্য আলবাসেতে বালোম্পি
  আলেইক্স ফেবাস ২২ ইইউ   আলবাসেতে বালোম্পি ধার গ্রীষ্ম বিনামূল্য আলবাসেতে বালোম্পি
  ওমর মাস্কারেল ২৫ ইইউ   শালকে ০৪ স্থানান্তর গ্রীষ্ম €১০মি এফসি শালকে ০৪
  মার্তিন ওদেগার ১৯ ইইউ   ভিতেসে ধার গ্রীষ্ম বিনামূল্য এসবিভি ভিতেসে
  অস্কার রদ্রিগেজ আরনাইজ ২০ ইইউ   লেগানেস ধার গ্রীষ্ম বিনামূল্য সিডি লেগানেস
  লুকাস তোরো ২৩ ইইউ   এইন্ত্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্ট স্থানান্তর গ্রীষ্ম €৩.৫মি এইন্ত্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্ট
  রাউল দে তোমাস ২৩ ইইউ   রায়ো ভায়েকানো ধার গ্রীষ্ম বিনামূল্য রায়ো ভায়েকানো
  সার্হিও দিয়াজ ২০ অ-ইইউ   করিন্থিয়ান্স ধার গ্রীষ্ম বিনামূল্য করিন্থিয়ান্স
  মিঙ্ক পিটার্স ২০   লেইদা ধার গ্রীষ্ম বিনামূল্য লেইদা এস্পোর্তিউ
১৩ গো   কিকো কাসিয়া ৩২ ইইউ   লিডস ইউনাইটেড স্থানান্তর শীত বিনামূল্য লিডস ইউনাইটেড এফসি

  মোট আয়: €১১৫.৫ মিলিয়ন

নিট আয়:   €৪৭.৭৫ মিলিয়ন

প্রাক-মৌসুম এবং প্রীতি ম্যাচসম্পাদনা

প্রতিযোগিতাসম্পাদনা

২০১৮ সালের ১লা জুলাই হতে ২৭ই অক্টোবর পর্যন্ত ও ২০১৯ সালের ৩১শে মার্চ হতে ৩০শে জুন পর্যন্ত খেলার সময় হচ্ছে ইউটিসি+২ এবং ২০১৮ সালের ২৮শে অক্টোবর হতে ২০১৯ সালের ৩০শে মার্চ পর্যন্ত খেলার সময় হচ্ছে ইউটিসি+১

সংক্ষিপ্ত বিবরণসম্পাদনা

প্রতিযোগিতা প্রথম ম্যাচ শেষ ম্যাচ যে পর্ব হতে
খেলায় অংশগ্রহণ
সর্বশেষ অবস্থান নথি
খে ড্র হা স্বগো বিগো গোপা জয়%
লা লিগা ১৯ আগস্ট ২০১৮ ২৬ মে ২০১৯ ম্যাচদিন ১ ২২ ১৩ ৩৭ ২৬ +১১ ৫৯.০৯
কোপা দেল রে ৩১ অক্টোবর ২০১৮ ৩২ দলের পর্ব ২১ +১৫ ৭১.৪৩
চ্যাম্পিয়নস লীগ ১৮–১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ গ্রুপ পর্ব ১২ +৭ ৬৬.৬৭
উয়েফা সুপার কাপ ১৫ আগস্ট ২০১৮ ১৫ আগস্ট ২০১৮ ফাইনাল রানার-আপ −২ ০০০.০০
ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপ ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ ২২ ডিসেম্বর ২০১৮ সেমি-ফাইনাল বিজয়ী +৫ ১০০.০০
মোট ৩৮ ২৪ ১০ ৭৯ ৪৩ +৩৬ ৬৩.১৬

সর্বশেষ সংস্করণ: ৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
উৎস: সকারওয়ে

লা লিগাসম্পাদনা

লীগ টেবিলসম্পাদনা

অব দল খে ড্র হা স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট যোগ্যতা অর্জন বা অবনমন
বার্সেলোনা ২২ ১৫ ৬০ ২৩ +৩৭ ৫০ চ্যাম্পিয়নস লীগ গ্রুপ পর্বের জন্য উন্নীত
আতলেতিকো মাদ্রিদ ২২ ১২ ৩২ ১৪ +১৮ ৪৪
রিয়াল মাদ্রিদ ২২ ১৩ ৩৭ ২৬ +১১ ৪২
সেভিয়া ২২ ১০ ৩৬ ২৩ +১৩ ৩৬
হেতাফে ২২ ২৫ ১৮ +৭ ৩২ ইউরোপা লীগ গ্রুপ পর্বের জন্য উন্নীত
৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ তারিখের ম্যাচ খেলা শেষের পর হালনাগাদকৃত। উৎস: লা লিগা, সকারওয়ে
শ্রেণীবিভাগের নিয়মাবলী: ১) পয়েন্ট; ২) হেড-টু-হেড পয়েন্ট; ৩) হেড-টু-হেড গোল পার্থক্য; ৪) গোল পার্থক্য; ৫) স্বপক্ষে গোল; ৬) ফেয়ার-প্লে পয়েন্ট[৫৭]

ফলাফল সারাংশসম্পাদনা

সামগ্রিক স্বাগতিক সফরকারী
খে ড্র হা স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট ড্র হা স্বগো বিগো গোপা ড্র হা স্বগো বিগো গোপা
২২ ১৩ ৩৭ ২৬  +১১ ৪২ ১৮  +১৩ ১৯ ২১  −২

সর্বশেষ সংস্করণ: ৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
উৎস: লা লিগা

প্রত্যেক রাউন্ডের ফলাফলসম্পাদনা

রাউন্ড ১০ ১১ ১২ ১৩ ১৪ ১৫ ১৬ ১৭ ১৮ ১৯ ২০ ২১ ২২ ২৩ ২৪ ২৫ ২৬ ২৭ ২৮ ২৯ ৩০ ৩১ ৩২ ৩৩ ৩৪ ৩৫ ৩৬ ৩৭ ৩৮
মাঠ স্বা স্বা স্বা স্বা স্বা স্বা স্বা স্বা স্বা স্বা স্বা স্বা স্বা স্বা স্বা স্বা স্বা স্বা স্বা
ফলাফল ড্র হা ড্র হা হা হা হা ড্র হা
স্থান
সর্বশেষ সংস্করণ: ১৩ জানুয়ারি ২০১৯
উৎস: লা লিগা

মাঠ: স = সফরকারী; স্বা = স্বাগতিক. ফলাফল: ড্র = ড্র; হা = হার; জ = জয়; মু = মুলতুবী.

খেলাসম্পাদনা

কোপা দেল রেসম্পাদনা

৩২ দলের পর্বসম্পাদনা

১৬ দলের পর্বসম্পাদনা

কোয়ার্টার-ফাইনালসম্পাদনা

সেমি-ফাইনালসম্পাদনা

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগসম্পাদনা

মাদ্রিদ এই প্রতিযোগিতার গ্রুপ পর্বে করেছে।[৫৮]

গ্রুপ পর্বসম্পাদনা

অব দল খে ড্র হা স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট যোগ্যতা অর্জন রিয়াল রোমা প্লজেন সিএসকেএ
  রিয়াল মাদ্রিদ ১২ +৭ ১২ নকআউট পর্বের জন্য উত্তীর্ণ ৩–০ ২–১ ০–৩
  রোমা ১১ +৩ ০–২ ৫–০ ৩–০
  ভিক্টোরিয়া প্লজেন ১৬ −৯ [ক] ইউরোপা লীগে অবনমিত ০–৫ ২–১ ২–২
  সিএসকেএ মস্কো −১ [ক] ১–০ ১–২ ১–২
উৎস: উয়েফা
শ্রেণীবিভাগের নিয়মাবলী: গ্রুপ পর্ব টাইব্রেকার
টীকা:
  1. হেড-টু-হেড পয়েন্ট: ভিক্টোরিয়া প্লজেন ৪, সিএসকেএ মস্কো ১।

উয়েফা সুপার কাপসম্পাদনা

ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপসম্পাদনা

মাদ্রিদ এই প্রতিযোগিতার সেমিফাইনালে প্রবেশ করবে।

পরিসংখ্যানসম্পাদনা

দল পরিসংখ্যানসম্পাদনা

নং. স্থান জা. খেলোয়াড় মোট লা লিগা কোপা দেল রে চ্যাম্পিয়নস লীগ সুপার কাপ ক্লাব বিশ্বকাপ
উপস্থিতি গোল উপস্থিতি গোল উপস্থিতি গোল উপস্থিতি গোল উপস্থিতি গোল উপস্থিতি গোল
গো   কেইলর নাভাস ১১
  দানি কারভাহাল ২০ ১২
  হেসুস ভায়েহো
  সার্জিও রামোস ২৮ ১৯
  রাফায়েল ভারান ২৩ ১৬
  নাচো ১৬ ১০
  মারিয়ানো
  টনি ক্রুস ২৩ ১৪
  করিম বেনজেমা ৩০ ১২ ১৯
১০   লুকা মদ্রিচ ২৬ ১৯
১১   গ্যারেথ বেল ২৪ ১০ ১৬
১২   মার্সেলো ১৯ ১১
১৩ গো   কিকো কাসিয়া
১৪   কাজিমিরো ২৪ ১৫
১৫   ফেদেরিকো বালবের্দে ১২
১৭   লুকাস বাজকেজ ২৬ ১৬
১৮   মার্কোজ ইয়োরেন্তে ১০
১৯   অদ্রিওজোলা ১৪
২০   মার্কো আসেন্সিও ২৫ ১৬
২১   ব্রাহিম দিয়াজ
২২   ইস্কো ২২ ১৩
২৩ গো   সার্হিও রেগুইলন ১০
২৪   দানি সেবায়োস ২৪ ১৫
২৫ গো   থিবো কোর্তোয়া ২০ ১৫
২৭   ক্রিস্তো গঞ্জালেজ
২৮   ভিনিসিউস জুনিওর ১৫
৩১   হাভি সানচেজ
৩৬   আলভারো ফিদালগো
৩৭   ফ্রান গার্সিয়া

সর্বশেষ হালনাগাদ: ১৬ জানুয়ারি ২০১৯
সূত্র: প্রতিযোগিতা

গোলসম্পাদনা

২২ ডিসেম্বর ২০১৮ পর্যন্ত হালনাগাদকৃত।
জার্সি খেলোয়াড় অবস্থান লা লিগা কোপা দেল রে চ্যাম্পিয়নস লীগ অন্যান্য মোট[৫৯]
  করিম বেনজেমা অা ১১
১১   গ্যারেথ বেল অা ১০
  সার্জিও রামোস
২০   মার্কো আসেন্সিও
২২   ইস্কো
১২   মার্সেলো
১৭   লুকাস বাজকেজ অা
২৮   ভিনিসিউস জুনিওর অা
  দানি কারভাহাল
  কাজিমিরো
২৪   দানি সেবায়োস
২৭   ক্রিস্তো গঞ্জালেজ অা
  টনি ক্রুস
১৮   মার্কোজ ইয়োরেন্তে
  মারিয়ানো অা
১০   লুকা মদ্রিচ
১৯   আলভারো অদ্রিওজোলা
৩১   হাভি সানচেজ
আত্মঘাতী গোল
মোট ২৪ ১০ ১২ ৫৫

এখানে ২০১৮ উয়েফা সুপার কাপ এবং ২০১৮ ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপ অন্তর্ভুক্ত।