৪৬তম স্বতন্ত্র পদাতিক ব্রিগেড

৪৬তম স্বতন্ত্র পদাতিক ব্রিগেড হচ্ছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর একটি ঐতিহাসিক সামরিক দল। এই দলটি ঢাকা সেনানিবাস এলাকায় অবস্থিত।[১] এই ব্রিগেড ঢাকা ব্রিগেড নামেও পরিচিত।[২]

৪৬তম স্বতন্ত্র পদাতিক ব্রিগেড
সক্রিয়১৯৭২- বর্তমান
দেশ বাংলাদেশ
আনুগত্য বাংলাদেশ
শাখা বাংলাদেশ সেনাবাহিনী
ধরনপদাতিক
আকারব্রিগেড
গ্যারিসন/সদরদপ্তরঢাকা সেনানিবাস
কমান্ডার
উল্লেখযোগ্য
কমান্ডার
মেজর জেনারেল (অবসরপ্রাপ্ত) কে. এম. শফিউল্লাহ
লেঃ কর্নেল (অবসরপ্রাপ্ত) জিয়াউদ্দীন
কর্নেল (অবসরপ্রাপ্ত) শাফায়াত জামিল

এই ব্রিগেডের বর্তমান কমান্ডার হলেন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সাঈদ সিদ্দীকি,এডব্লিউসি,পিএসসি।

ইতিহাস সম্পাদনা

 
বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ৪৬তম স্বতন্ত্র পদাতিক ব্রিগেডের সৈনিকরা মার্কিন সেনাদের সাথে করমর্দন করছেন, আগস্ট ২০১৪

এই ব্রিগেড আনুষ্ঠানিক ভাবে গঠিত হয় ১৯৭২ সালের ১২ জানুয়ারী, এবং এই ব্রিগেডের প্রথম কমান্ডার ছিলেন কে এম শফিউল্লাহ যিনি কর্নেল পদবীতে দায়িত্বভার গ্রহণ করেন।

৪৬তম স্বতন্ত্র পদাতিক ব্রিগেড জেনারেল খালেদ মোশাররফকে ১৯৭৫ সালের ৩ নভেম্বর সমর্থন দেয়। এই ব্রিগেডের ক্যাপ্টেন হাফিজের বিরুদ্ধে জেনারেল জিয়াউর রহমানকে আটকের অভিযোগে অভিযুক্ত করা হয়।[৩] ২০০৯ সালে বিডিআর বিদ্রোহের সময় এই ব্রিগেডকে কাজে না লাগানোর জন্য বাংলাদেশ সরকার সমালোচিত হয়।[৪]

তথ্যসূত্র সম্পাদনা

  1. "Shock, surprise unfolded"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ১৫ আগস্ট ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৭ এপ্রিল ২০১৭ 
  2. "Of the helpless chiefs of army, air, navy"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ১৪ আগস্ট ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ৭ এপ্রিল ২০১৭ 
  3. "It's not me, but Captain Hafiz went to arrest Zia: Maj Hafiz"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ৫ নভেম্বর ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ৭ এপ্রিল ২০১৭ 
  4. "Neither Forgiven nor Forgotten"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ৫ মার্চ ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ৭ এপ্রিল ২০১৭