২০১০ দক্ষিণ এশীয় গেমসে ক্রিকেট

ক্রিকেট প্রথম ও একমাত্র ২০১০ দক্ষিণ এশীয় গেমসে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। ৩১ জানুয়ারি থেকে ৭ ফেব্রুয়ারি ২০১০ তারিখ পর্যন্ত পুরুষ টি-২০ ফরম্যাটে খেলা হয়। প্রতিযোগিতায় ৫টি দল অংশগ্রহণ করে। অঞ্চলের বাকি তিন দল ভারত, ভুটানআফগানিস্তান তাদের দল পাঠায় নি।[১]

২০১০ দক্ষিণ এশিয় গেমসে ক্রিকেট
তারিখ৩১ জানুয়ারি – ৭ ফেব্রুয়ারি ২০১০
তত্ত্বাবধায়কদক্ষিণ এশীয় অলিম্পিক কাউন্সিল
ক্রিকেটের ধরনটি-২০ (অ-২১)
প্রতিযোগিতার ধরনরাউন্ড রবিন এবং প্লে-অফ
আয়োজক বাংলাদেশ
বিজয়ী বাংলাদেশ (১ম শিরোপা)
অংশগ্রহণকারী দলসংখ্যা
খেলার সংখ্যা১২
সর্বাধিক রান সংগ্রহকারীশ্রীলঙ্কা অশন প্রিয়ঞ্জন (২১১)
সর্বাধিক উইকেটধারীবাংলাদেশ শুভাশিস রায়
পাকিস্তান কামরান হোসেন (১০)

অংশগ্রহণ করার যোগ্যতা সম্পাদনা

২৮ জানুয়ারি ২০১০ পর্যন্ত যাদের বয়স ২১ বছরের কম ছিলো শুধুমাত্র তারাই প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারবে।[২]

গ্রুপ পর্ব সম্পাদনা

     ফাইনালে উত্তীর্ণ।
     ব্রোঞ্জপদক প্লে অফের জন্য উত্তীর্ণ
দল খেলা জয় হার টাই পয়েন্ট নেট রান রেট
  বাংলাদেশ +৩.৩৩৮
  শ্রীলঙ্কা +২.৭৭২
  পাকিস্তান +১.৪৯০
    নেপাল –২.০৫৭
  মালদ্বীপ –৭.১৫৪

খেলা সম্পাদনা

৩১ জানুয়ারি
স্কোরকার্ড
নেপাল    
৮০/৭ (২০ ওভার)
  বাংলাদেশ
৮৩/২ (৯.৩ ওভার)

১ ফেব্রুয়ারি
স্কোরকার্ড
শ্রীলঙ্কা  
১৬৬/৮ (২০ ওভার)
    নেপাল
১০২/৩ (২০ ওভার)

১ ফেব্রুয়ারি
স্কোরকার্ড
মালদ্বীপ  
৮৮/৭ (২০ ওভার)
  পাকিস্তান
৮৯/০ (৯.৪ ওভার)

২ ফেব্রুয়ারি
স্কোরকার্ড
শ্রীলঙ্কা  
১৬৫/৬ (২০ ওভার)
  বাংলাদেশ
১৪৭ (১৯.৫)

৩ ফেব্রুয়ারি
স্কোরকার্ড
পাকিস্তান  
১৭৩/২ (২০ ওভার)
    নেপাল
৮২/৮ (২০ ওভার)

৪ ফেব্রুয়ারি
স্কোরকার্ড
মালদ্বীপ  
২৬ (১৫.৫ ওভার)
  বাংলাদেশ
৩০/২ (২.২ ওভার)

৪ ফেব্রুয়ারি
স্কোরকার্ড
শ্রীলঙ্কা  
৯৯ (১৮.৪ ওভার)
  পাকিস্তান
১০০/৪ (১৮.৫ ওভার)

৫ ফেব্রুয়ারি
স্কোরকার্ড
শ্রীলঙ্কা  
২২০/৩ (২০ ওভার)
  মালদ্বীপ
৭২/৫ (২০ ওভার)

৫ ফেব্রুয়ারি
স্কোরকার্ড
বাংলাদেশ  
১৫৬/৬ (২০ ওভার)
  পাকিস্তান
১০৪ (১৭.৩ ওভার)

৬ ফেব্রুয়ারি
স্কোরকার্ড
মালদ্বীপ  
৫৫ (১৬.৪ ওভার)
    নেপাল
৫৮/০ (৭ ওভার)

ফাইনাল সম্পাদনা

ব্রোঞ্জপদক প্লে অফ সম্পাদনা

৭ ফেব্রুয়ারি
স্কোরকার্ড
নেপাল    
১৪৭/৬ (২০ ওভার)
  পাকিস্তান
১৪৮/৮ (১৯.৩ ওভার)
প্রদীপ আইরে ৫২* (৪৫)
কামরান হোসেন ২/২১ (৪ ওভার)
রমিজ আলম ৩৩* (২৮)
চন্দ্র সাওয়াদ ৩/১৯ (৩ ওভার)
  • নেপাল টসে জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়

ফাইনাল সম্পাদনা

৭ ফেব্রুয়ারি
স্কোরকার্ড
বাংলাদেশ  
১৫৭/৭ (২০ ওভার)
  শ্রীলঙ্কা
১৫১ (১৯.৫ ওভার)
আনামুহক 43 (38)
সচিথ পাথিরানা ২/২২ (৪ ওভার)
  • বাংলাদেশ টসে জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়।

চূড়ান্ত অবস্থান সম্পাদনা

অবস্থান দল খেলা জয় হার টাই ফলাফল হয়নি
    বাংলাদেশ
    শ্রীলঙ্কা
    পাকিস্তান
    নেপাল
  মালদ্বীপ

তথ্যসূত্র সম্পাদনা