২০০৪ এশিয়া কাপ

এশিয়া কাপের ৮ম আসর

ক্রিকেটের এশিয়া কাপ ৮ম আসর (যাকে ইন্ডিয়ান অয়েল এশিয়া কাপও বলা হয়) ৪ বছর পর শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠিত হয়। ফাইনালে ভারতকে হারিয়ে কাপ জিতেছিল শ্রীলঙ্কা। এই টুর্নামেন্টে ৪টি এশিয়ান টেস্ট খেলা দেশের সাথে প্রথমবারের মতো এশীয় সহযোগী দেশসমূহ, সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং হংকং অংশগ্রহণ করে।[১]

২০০৪ এশিয়া কাপ
তত্ত্বাবধায়কএশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল
ক্রিকেটের ধরনএকদিনের আন্তর্জাতিক
প্রতিযোগিতার ধরনরাউন্ড রবিন এবং নক-আউট
আয়োজক শ্রীলঙ্কা
বিজয়ী শ্রীলঙ্কা (৩য় শিরোপা)
রানার-আপ ভারত
অংশগ্রহণকারী দলসংখ্যা
খেলার সংখ্যা১৩
প্রতিযোগিতার সেরা খেলোয়াড়শ্রীলঙ্কা সনাথ জয়সুরিয়া
সর্বাধিক রান সংগ্রহকারীপাকিস্তান শোয়েব মালিক (৩১৬)
সর্বাধিক উইকেটধারীভারত ইরফান পাঠান (১৪)

দলের সদস্য

সম্পাদনা
  বাংলাদেশ[২]   হংকং   ভারত[৩]   পাকিস্তান[৪]   শ্রীলঙ্কা   সংযুক্ত আরব আমিরাত
হাবিবুল বাশার (অ) রাহুল শর্মা (অ) সৌরভ গাঙ্গুলী (অ) ইনজামাম-উল-হক (অ) মারভান আতাপাত্তু (অ) খুররম খান (অ)
জাভেদ ওমর মনোজ চেরুপারম্বিল রাহুল দ্রাবিড় (স.অউ.র) মোহাম্মদ ইউসুফ মাহেলা জয়াবর্ধনে আরশাদ আলী
রাজিন সালেহ ইলিয়াস গুল শচীন টেন্ডুলকার ইমরান ফরহাত সনাথ জয়াসুরিয়া আবদুল রেহমান
ফয়সাল হোসেন টিম স্মার্ট বীরেন্দ্র সেহবাগ ইয়াসির হামিদ সমন জয়ন্ত আলি আসাদ আব্বাস
মোহাম্মদ আশরাফুল তবারক দার ভিভিএস লক্ষ্মণ ইমরান নাজির কুমার সাঙ্গাকারা আসগর আলি
অলোক কাপালি আলেকজান্ডার ফ্রেঞ্চ যুবরাজ সিং ইউনুস খান তিলকরত্নে দিলশান আসিম সাঈদ
মুশফিকুর রহমান নাজিব আমর মোহাম্মদ কাইফ মঈন খান থিলিনা কাদম্বি ফাহাদ উসমান
খালেদ মাহমুদ রয় লামসাম পার্থিব প্যাটেল (উ.র) আব্দুল রাজ্জাক উপুল চন্দনা মোহাম্মদ তৌকির
খালেদ মাসুদ নাসির হামিদ অনিল কুম্বলে শোয়েব মালিক চামিন্দা ভাস মোহাম্মদ ফাওয়াদ
মোহাম্মদ রফিক শের লামা হরভজন সিং নাভেদ-উল-হাসান নুয়ান জয়সা নাঈমুদ্দিন
মানজারুল ইসলাম রানা খালিদ খান জহির খান মোহাম্মদ সামি মুত্তিয়া মুরালিধরন রামভীর রাই
তাপস বৈশ্য নাদিম আহমেদ লক্ষ্মীপতি বালাজি শোয়েব আখতার অভিষ্কা গুণবর্ধনে রিজওয়ান লতিফ
তারেক আজিজ আফজাল হায়দার ইরফান পাঠান শাব্বির আহমেদ লাসিথ মালিঙ্গা সমীর জিয়া
আব্দুর রাজ্জাক গ্রায়েম জার্ডিন আশীষ নেহরা দানিশ কানেরিয়া ফারভিজ মাহারুফ সৈয়দ মাকসুদ

ভেন্যু

সম্পাদনা
  শ্রীলংকা
পশ্চিমাঞ্চল প্রদেশ পশ্চিমাঞ্চল প্রদেশ মধ্যাঞ্চল প্রদেশ
কলম্বো কলম্বো ডাম্বুলা
রানাসিংহে প্রেমাদাসা স্টেডিয়াম সিংহলীজ স্পোর্টস ক্লাব ডাম্বুলা ক্রিকেট স্টেডিয়াম
ধারণক্ষমতা: ৩৫,০০০ ধারণক্ষমতা: ১০,০০০ ধারণক্ষমতা: ৩০,০০০
ম্যাচ: ৬ ম্যাচ: ৪ ম্যাচ: ৩
   

গ্রুপ পর্ব

সম্পাদনা

গ্রুপ এ

সম্পাদনা
দল খেলা টাই ফহ এনআরআর পয়েন্ট
  পাকিস্তান +২.৫৬৭ ১২
  বাংলাদেশ +০.৪০০
  হংকং -২.৯৭৯
১৬ জুলাই ২০০৪
স্কোরকার্ড
বাংলাদেশ  
২২১/৯ (৫০ ওভার)
  হংকং
১০৫ (৪৫.২ ওভার)
জাভেদ ওমর বেলিম ৬৮ (১১৩)
ইলিয়াস গুল ৩/৪৬ (১০ ওভার)

১৭ জুলাই ২০০৪
স্কোরকার্ড
পাকিস্তান  
২৫৭/৬ (৫০ ওভার)
  বাংলাদেশ
১৮১ (৪৫.২ ওভার)
জাভেদ ওমর বেলিম ৬২ (৮৭)
শোয়েব আখতার ৩/৩০ (১০ ওভার)

১৮ জুলাই ২০০৪
স্কোরকার্ড
পাকিস্তান  
৩৪৩/৫ (৫০ ওভার)
  হংকং
১৬৫ (৪৪.১ ওভার)
তবারক দার ৩৬ (৪৩)
শোয়েব আখতার ৪/১৯ (৯.৫ ওভার)

গ্রুপ বি

সম্পাদনা
দল খেলা টাই ফহ এনআরআর পয়েন্ট
  শ্রীলঙ্কা +১.২৮০ ১১
  ভারত +১.০৪০
  সংযুক্ত আরব আমিরাত -২.৩২০
১৬ জুলাই ২০০৪
স্কোরকার্ড
ভারত  
২৬০/৬ (৫০ ওভার)
  সংযুক্ত আরব আমিরাত
১৪৪ (৩৫ ওভার)

১৭ জুলাই ২০০৪
স্কোরকার্ড
শ্রীলঙ্কা  
২৩৯ (৫০ ওভার)
  সংযুক্ত আরব আমিরাত
১২৩ (৪৭.৫ ওভার)
অভিষ্কা গুণবর্ধনে ৭৩ (৮৯)
খুররম খান ৪/৩২ (১০ ওভার)
রামভীর রাই ৩৯ (১২৪)
উপুল চন্দনা ৪/২২ (৯.৫ ওভার)

১৮ জুলাই ২০০৪
স্কোরকার্ড
শ্রীলঙ্কা  
২৮২/৪ (৫০ ওভার)
  ভারত
২৭০/৮ (৫০ ওভার)
রাহুল দ্রাবিড় ৮২ (১০০)
নুয়ান জয়সা ৩/৪৯ (১০ ওভার)

সুপার ফোর

সম্পাদনা
দল খেলা টাই ফহ এনআরআর বোপ পয়েন্ট
  শ্রীলঙ্কা +১.১৪৪ ১৩
  ভারত +০.০২২ ১২
  পাকিস্তান +০.১৬২ ১০
  বাংলাদেশ -১.১৯০
২১ জুলাই ২০০৪
স্কোরকার্ড
বাংলাদেশ  
১৭৭ (৪৯.১ ওভার)
  ভারত
১৭৮/২ (৩৮.৩ ওভার)

২১ জুলাই ২০০৪
স্কোরকার্ড
পাকিস্তান  
১২২ (৩৯.৫ ওভার)
  শ্রীলঙ্কা
১২৩/৩ (৩২ ওভার)

২৩ জুলাই ২০০৪
স্কোরকার্ড
বাংলাদেশ  
১৯০/৯ (৫০ ওভার)
  শ্রীলঙ্কা
১৯১/০ (৩৩.৩ ওভার)

২৫ জুলাই ২০০৪
স্কোরকার্ড
পাকিস্তান  
৩০০/৯ (৫০ ওভার)
  ভারত
২৪১/৮ (৫০ ওভার)
শোয়েব মালিক ১৪৩ (১৩৭)
ইরফান পাঠান ৩/৫২ (১০ ওভার)
শচীন তেন্ডুলকর ৭৮ (১০৩)
শাব্বির আহমেদ ২/৩৮ (১০ ওভার)

২৭ জুলাই ২০০৪
স্কোরকার্ড
ভারত  
২৭১/৬ (৫০ ওভার)
  শ্রীলঙ্কা
২৬৭/৯ (৫০ ওভার)

২৯ জুলাই ২০০৪
স্কোরকার্ড
বাংলাদেশ  
১৬৬ (৪৫.২ ওভার)
  পাকিস্তান
১৬৭/৪ (৪১ ওভার)

ফাইনাল

সম্পাদনা
১ অগাস্ট ২০০৪
স্কোরকার্ড
শ্রীলঙ্কা  
২২৮/৯ (৫০ ওভার)
  ভারত
২০৩/৯ (৫০ ওভার)
শচীন তেন্ডুলকর ৭৪ (১০০)
উপুল চন্দনা ৩/৩৩ (১০ ওভার)

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা
  1. Wisden Cricinfo Staff (১২ মে ২০০৪)। "Sri Lanka to host the Asia Cup"ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৭ 
  2. "Javed Omar replaces Hannan Sarkar"ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৮-২৩ 
  3. "Agarkar and Kartik dropped"ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৮-২৩ 
  4. "Shoaib Akhtar picked in Asia Cup squad"ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৮-২৩ 

বহিঃসংযোগ

সম্পাদনা