হেডি লেমার

মার্কিন চলচ্চিত্র অভিনেত্রী

হেডি লেমার (ইংরেজি: Hedy Lamarr) একজন মার্কিন চলচ্চিত্র অভিনেত্রী। তিনি অস্ট্রিয়ার ভিয়েনাতে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি প্রাথমিক প্রযুক্তিক প্রসারিত বর্ণালি যোগাযোগের জন্য একটি কৌশল সহ-আবিষ্কার করেছিল, যা বেতার যোগাযোগ হিসেবে পরিচিত। হেডি লেমারকে তরুনী বয়সেই "বিশ্বের সর্বাপেক্ষা সুন্দরী মেয়ে" বলা হতো।তার অভিনয় করার ক্ষমতা ছিল সাধারন অভিনয় শিল্পীদের চেয়ে মনে হয় কয়েকশ গুন বেশি। তিনি ছিলেন রেড়িও কমিউনিকেশনে প্রকৌশল বিদ্যা অর্জনকারী। ২য় বিশ্বযুদ্ধের সময়কার দিনে রেড়িও কমিউনিকেশন জ্যামিং থেকে মুক্তি পেতে হেডি লেমার আবিস্কার করলেন ফ্রিকুয়েন্সী টু ফ্রিকুয়েন্সী জ্যাম্প পদ্ধতি। সুন্দরী লেমার তখনি ডিজাইন করলেন সেন্ডার আর রিসিভার জ্যাম্প ফ্রিকুয়েন্সী। যেটি ব্যবহার করলে শত্রু কখনো ফ্রিকুয়েন্সী ডিটেক্ট করতে পারবে না এবং জ্যাম ও করতে পারবে না। লেমার এটির নাম রাখলেন “ফ্রিকুয়েন্সী হোপিং” পরবর্তীতে এটির নাম করন করা হয় “স্প্রেড-স্পেকট্রাম কমিউনিকেশন” [১]

হেডি লেমার
Hedy Lamarr in The Conspirators.jpg
দ্য কানস্পিরাটারস তে লেমার (১৯৪৪)
জন্ম
Hedwig Eva Maria Kiesler
কর্মজীবন১৯৩০–১৯৫৮
দাম্পত্য সঙ্গীফ্রিটজ ম্যানডল (১৯৩৩–১৯৩৭) (তালাকপ্রাপ্ত)
জিন মারকী (১৯৩৯–১৯৪১) (তালাকপ্রাপ্ত) ১ শিশু
জন লোডার (১৯৪৩–১৯৪৭) (তালাকপ্রাপ্ত) ২ শিশু
Teddy Stauffer (১৯৫১–১৯৫২) (তালাকপ্রাপ্ত)
ডব্লিউ হাওয়ার্ড লী (১৯৫৩–১৯৬০) (তালাকপ্রাপ্ত)
Lewis J. Boies (১৯৬৩ –

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Movie Legend Hedy Lamarr to be Given Special Award at EFF's Sixth Annual Pioneer Awards" (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। Electronic Frontier Foundation। ১১ মার্চ ১৯৯৭। ১৮ মে ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৪ জুলাই ২০০৭ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা