হাসান মাহমুদ খন্দকার

বাংলাদেশী কূটনীতিক

হাসান মাহমুদ খন্দকার এনডিসি একজন বাংলাদেশী পুলিশ কর্মকর্তা যিনি ৩১ আগস্ট ২০১০ থেকে ৩০ ডিসেম্বর ২০১৪ পর্যন্ত ২৬ তম বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি বাংলাদেশ পুলিশের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি সময় মহাপরিদর্শকের দায়িত্ব পালন করেছেন। তার সময়েই পুলিশ বাহিনী রাষ্ট্রীয় সম্মান ‘স্বাধীনতা পদক’ পায়। এছাড়া তিনি আইজিপি থাকাকালে পুলিশ প্রধানের র‌্যাঙ্কব্যাজ ২৭ বছর পর ফিরিয়ে দেওয়া হয় এবং লেফটেন্যান্ট জেনারেল পদমর্যাদার থ্রি স্টার জেনারেলের মর্যাদা দেয়া হয় আইজিপিকে। ২০১৫ সালের অক্টোবর মাসে স্পেন, উত্তর মেসোডোনিয়া ও মন্টিনেগ্রো এই তিন দেশের রাষ্ট্রদূত এবং আন্তর্জাতিক পর্যটন সংস্থার প্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন হাসান মাহমুদ খন্দকার। তিনি স্পেনে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ছিলেন ।[১][২][৩] দীর্ঘ সাড়ে পাঁচ বছর ধরে স্পেনে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত হিসেবে নিযুক্ত ছিলেন হাসান মাহমুদ খন্দকার। স্পেনে বাংলাদেশের বিদায়ী রাষ্ট্রদূত সাবেক পুলিশ মহাপরিদর্শক হাসান মাহমুদ খন্দকারকে ২০১৫ সালের ১৭ আগস্ট দেশটিতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত হিসেবে চুক্তিতে নিয়োগ দেয় সরকার। দুই বছর পর ২০১৭ সালের ১৮ ডিসেম্বর এক দফায় তার চুক্তির মেয়াদ বাড়ানো হয়। সবশেষ ২০২০ সালের শুরুর দিকে আরেক দফায় হাসান মাহমুদ খন্দকারের মেয়াদ বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ তার কার্যকাল শেষ হয়[৪]

হাসান মাহমুদ খন্দকার
২৬তম বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক
কাজের মেয়াদ
৩১ আগস্ট ২০১০ – ৩০ ডিসেম্বর ২০১৪
পূর্বসূরীনূর মোহাম্মদ
উত্তরসূরীএ কে এম শহীদুল হক
স্পেনে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত
কাজের মেয়াদ
অগাস্ট ২০১৫ – ফেব্রুয়ারী ২০২১
র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের মহাপরিচালক
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্মপীরগাছা, রংপুর
প্রাক্তন শিক্ষার্থীঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
পুরস্কারবাংলাদেশ পুলিশ পদক,
রাষ্ট্রপতি পুলিশ পদক,
বাংলাদেশ পুলিশ স্বাধীনতা দিবস পুরস্কার

জন্ম ও প্রাথমিক জীবন

সম্পাদনা

হাসান মাহমুদ খন্দকারের জন্ম রংপুর জেলার পীরগাছায়ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজিতে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেছেন।[৫] বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (বিসিএস পুলিশ) ক্যাডারের সদস্য হিসাবে পুলিশ বিভাগে যোগদান করেছিলেন।

কর্মজীবন

সম্পাদনা

১৯৮৬ সালে টাঙ্গাইলের সহকারী পুলিশ সুপারিনটেনডেন্ট (এএসপি) হিসাবে কর্মজীবন শুরু করেন। তিনি ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার, উপ-কমিশনার, সিলেটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপারিনটেনডেন্ট, টাঙ্গাইলের পুলিশ সুপারিনটেনডেন্ট, খুলনা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার, সারদা পুলিশ একাডেমির অধ্যক্ষ, পুলিশ সদরদপ্তরের উপ-মহা পরিদর্শক (ডিআইজি), অতিরিক্ত মহা-পরিদর্শক এবং পুলিশের বিশেষ শাখার (এসবি) অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক পদে দায়িত্ব পালন করেন।

তিনি ফেব্রুয়ারি ২০০৭ থেকে আগস্ট ২০১০ সাল পর্যন্ত র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের মহাপরিচালক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন।[৫][৬]

তিনি বাংলাদেশ পুলিশ পদক এবং রাষ্ট্রপতি পুলিশ পদক পেয়েছিলেন। আইজিপি থাকাকালীন বাংলাদেশ পুলিশ স্বাধীনতা দিবস পুরস্কার পেয়েছিল। [৭]

২০১৫ সালে স্পেনে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত হিসাবে নিযুক্ত হন। [৮][৯]

হাসান মাহমুদ খন্দকারের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক অপরাধী আদালতে (আইসিসি) মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ রয়েছে।[১০]

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা
  1. "Former police chief Hassan Mahmood Khandker made Bangladesh's Ambassador to Spain"bdnews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  2. প্রতিবেদক, নিজস্ব; ডটকম, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর। "সাবেক আইজিপি হাসান মাহমুদ স্পেনের রাষ্ট্রদূত"bangla.bdnews24.com। ২০১৯-০৮-২৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-২২ 
  3. "হাসান মাহমুদ খন্দকার নতুন আইজিপি"The Daily Sangram। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-২৩ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  4. "স্পেনের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের ভিডিও বার্তা"www.jugantor.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২৩-০৬-২১ 
  5. "New IGP vows pro-people police force"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১০-০৯-০১। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-১১-১০ 
  6. "New IGP, RAB DG, DMP commissioner named in a major police shake-up"। সংগ্রহের তারিখ ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  7. "Bangladesh's new police chief calls for camaraderie"bdnews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  8. "Ambassador Hassan Mahmood Khandker presents credential to the King of Spain"bdnews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  9. "Former police chief Hassan Mahmood Khandker made Bangladesh's Ambassador to Spain"। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-১১-১০ 
  10. "El embajador de Bangladesh, acusado de crímenes ante el TPI, presenta hoy sus credenciales al Rey"abc.es (স্পেনীয় ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬