হার ওয়ার্ল্ড (ইংরেজি: Her World) হল সিঙ্গাপুরের একটি ইংরেজি ম্যাগাজিন যা প্রধানত পেশাজীবী নারীদের লক্ষ্য করে প্রকাশিত হয়ে থাকে। এটি মালয়েশিয়া এবং সিঙ্গাপুরে একত্রে প্রকাশিত প্রথম কোন ইংরেজি ভাষার ম্যাগাজিন। জুলাই, ১৯৬০ সাল থেকে এই ম্যাগাজিনটি প্রকাশিত হয়ে আসছে। মালয়েশিয়া ও সিঙ্গাপুর বাদে আরো ৩টি দেশে - ইন্দোনেশিয়া, থাইল্যান্ডভিয়েতনামে (অক্টোবর, ২০০৮ থেকে) প্রকাশিত হয় এই ম্যাগাজিন। মালয়েশিয়ার প্রকাশিত হার ওয়ার্ল্ড ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদ অন্যান্য দেশ থেকে ভিন্ন হয়।[১]

হার ওয়ার্ল্ড
ভিয়েতনামের সংখ্যার প্রচ্ছদ
প্রকাশকএসপিএইচ ম্যাগাজিনস
প্রতিষ্ঠার বছরজুলাই, ১৯৬০
ভাষাইংরেজি, ভিয়েতনামীয়, থাই, ইন্দোনেশীয়
ওয়েবসাইটherworldplus.com

ম্যাগাজিনটিতে মূলত ফ্যাশন, নারী পেশাজীবীদের মাথায় রেখে বিজ্ঞাপন, প্রশিক্ষণ বিষয়ক লেখনী, জীবনধারা, ব্যক্তিজীবন ও লক্ষ্য ইত্যাদি বিষয়ের উপর লেখা থাকে। সিঙ্গাপুর প্রেস হোল্ডিংস (এসপিএইচ) এর অঙ্গসংস্থা হিসেবে 'এসপিএইচ ম্যাগাজিনস' এই ম্যাগাজিনটি প্রকাশ করে থাকে এবং এটি সিঙ্গাপুরের সর্বাধিক বিক্রীত নারীদের ম্যাগাজিন। হার ওয়ার্ল্ডের ইন্দোনেশীয়, থাই ও ভিয়েতনামীয় সংস্করণে নিজ নিজ ভাষাতেই নিবন্ধসমূহ ছাপা হয়।[২]

জুলাই, ২০১০ সালের হার ওয়ার্ল্ড সিঙ্গাপুর সংখ্যার, (যা ছিল বিশেষ সংগ্রাহক সংখ্যা) প্রচ্ছদে কোনো নারীমূর্তি ছিল না, ম্যাগাজিনটির অর্ধশতবর্ষের মধ্যে প্রথমবারের মত।[৩]

এর মূল প্রতিদ্বন্দ্বি ম্যাগাজিন ফিমেইল ম্যাগাজিন। এটিও এসপিএইচএম ম্যাগাজিনের মালিকানাধী এবং ১৯৭৪ সাল থেকে প্রকাশিত হয়ে আসছে। এই ম্যাগাজিনটিও মালয়েশিয়া (১৯৭৪ থেকে) এবং ইন্দোনেশিয়ায় (২০০০ থেকে) প্রকাশিত হয়।

ভিয়েতনাম'স নেক্সট টপ মডেল প্রতিযোগিতার বিজয়ীকে অবশ্যই হার ওয়ার্ল্ড ইন্টারন্যাশনাল সমর্থিত হার ওয়ার্ল্ড ভিয়েতনাম-এর একটি সংখ্যার প্রচ্ছদে থাকতে পারেন।[৪]

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা
  1. "HER WORLD"। ৮ ডিসেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ নভেম্বর ২০১৫ 
  2. "Her World (SPH Magazine)" 
  3. "Her World launches special anniversary collector's edition in July"। ৫ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ নভেম্বর ২০১৫ 
  4. "Inside Vietnam's teenage model 'factories' – P2: The flip side"টক ভিয়েতনাম। ২৭ অক্টোবর ২০১৫। ১০ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ নভেম্বর ২০১৫ 

বহিঃসংযোগ

সম্পাদনা