হাড় হল একটি কঠিন অঙ্গ, যা মেরুদণ্ডী প্রাণীর কঙ্কাল তৈরি করে। হাড়গুলি দেহের বিভিন্ন অঙ্গকে সুরক্ষা দেয়, লোহিত এবং শ্বেত রক্তকণিকা তৈরি করে, খনিজ পদার্থ জমা রাখে, শরীরের কাঠামো তৈরি করে, এবং চলনে সহায়তা করে। দেহের হাড় বিভিন্ন আকারের হয় এবং এর একটি জটিল অভ্যন্তরীণ এবং বাহ্যিক কাঠামো থাকে। এগুলি হালকা হলেও শক্ত হয়, এবং একাধিক কাজ সম্পন্ন করে।

হাড়
Left femur of extinct elephant, Alaska, Ice Age Wellcome L0057714.jpg
বিলুপ্তপ্রায় প্রজাতির একটি হাতির প্লাইস্টোসিন বরফ যুগের একটি অস্থি
Bertazzo S - SEM deproteined bone - wistar rat - x10k.tif
একটি হাড়ের ১০,০০০ গুণ বিবর্ধিত স্ক্যানিং বৈদ্যুতিন অণুবীক্ষণচিত্র
শনাক্তকারী
টিএA02.0.00.000
টিএইচH3.01.00.0.00001
এফএমএFMA:30317
শারীরস্থান পরিভাষা

অস্থি কলা (অসেয়াস কলা) হল একটি শক্ত কলা, এক ধরনের ঘন যোজক কলা। অভ্যন্তরীণভাবে এটির একটি মৌচাকের মতো ছাঁচ রয়েছে, যা হাড়কে কাঠিন্য দেয়। অস্থি কলাগুলি বিভিন্ন ধরনের অস্থি কোষ দিয়ে গঠিত। অস্টিওব্লাস্ট এবং অস্টিওসাইট গুলি হাড়ের গঠন করে এবং হাড়ের খনিজায়ন ঘটায়; অস্টিওক্ল্যাস্ট গুলি অস্থি কলার পুনঃস্থাপনের (অস্টিওক্ল্যাস্টগুলি অস্থি কলাগুলি ভেঙে দেয় এবং খনিজগুলি মুক্ত করে, যার ফলে অস্থি কলা থেকে রক্তে ক্যালসিয়াম স্থানান্তরিত হয়)[১] কাজ করে। সংশোধিত (চ্যাপ্টা) অস্টিওব্লাস্টগুলি হাড়ের পৃষ্ঠের প্রতিরক্ষামূলক স্তর গঠনকারী আস্তরণের কোষে পরিণত হয়। অস্থি কলার খনিজযুক্ত খাঁচায় প্রধানত কোলাজেনের (এক ধরনের প্রোটিন) একটি জৈব উপাদান রয়েছে যার নাম ওসেইন এবং বিভিন্ন লবণের সমন্বয়ে গঠিত হাড়ের খনিজর একটি অজৈব উপাদান আছে। অস্থি কলা হল দুই প্রকারের খনিজযুক্ত কলা, সেগুলি হল কর্টিকাল অস্থি এবং ক্যান্সেলাস অস্থি। হাড়ের অন্য ধরনের কলাগুলির মধ্যে রয়েছে অস্থি মজ্জা, এন্ডোস্টিয়াম, পেরিওস্টিয়াম, স্নায়ু, রক্তনালীতরুণাস্থি

মানুষের পায়ের পাতার হাড়

জন্মের সময় মানবদেহে ৩০০ টিরও বেশি হাড় থাকে,[২] তবে এইগুলির মধ্যে অনেকগুলি বিকাশের সময় একসঙ্গে যুক্ত হয়ে যায়, এর ফলে প্রাপ্তবয়স্কদের দেহে, অসংখ্য ছোট সিসাময়েড অস্থি বাদ দিয়ে মোট ২১২ টি পৃথক হাড় থাকে।[৩] দেহের বৃহত্তম হাড় হল ঊর্বস্থি (ফিমার) বা উরুর হাড়, এবং সবচেয়ে ছোটটি হল মধ্যকর্ণের স্টেপিস

গ্রিক ভাষায় হাড় হল (" অস্টিওন "), এটিকে উপসর্গ হিসাবে ব্যবহার করে হাড় সম্বন্ধীয় কিছু বলা হয় - যেমন অস্টিওপ্যাথি

গঠনসম্পাদনা

 
হাড়ের প্রস্থচ্ছেদের চিত্র

হাড় সব জায়গায় একরকম কঠিন হয়না, তবে একটি নমনীয় খাঁচা (প্রায় ৩০%) এবং আবদ্ধ খনিজ (প্রায় ৭০%) নিয়ে গঠিত, যা জটিলভাবে বোনা এবং অন্তহীনভাবে বিশেষায়িত হাড়ের কোষগুলির একটি বিভাগ দ্বারা পুনঃনির্মিত হয়। তাদের অনন্য সৃষ্টি এবং নকশা, হালকা ওজন সত্ত্বেও হাড়কে তুলনামূলকভাবে কঠিন এবং শক্তিশালী করে তোলে।

হাড়ের ম্যাট্রিক্সটি ৯০% থেকে ৯৫% পর্যন্ত স্থিতিস্থাপক কোলাজেন তন্তু দ্বারা গঠিত, যাদের ওসেইন বলা হয়,[৪] এবং বাকিটি গ্রাউন্ড সাবস্টেন্স[৫] The elasticity of collagen improves fracture resistance.[৬] অজৈব খনিজ লবণ ক্যালসিয়াম ফসফেট, ক্যালসিয়াম হাইড্রোক্সিলাপাটাইট নামে পরিচিত রাসায়নিক ব্যবস্থায়, আবদ্ধ হবার ফলে খাঁচাটি শক্ত হয়ে যায়। এটি হল হাড়ের খনিজ যা হাড়কে শক্ত করে। অস্টিওব্লাস্টস এবং অস্টিওক্লাস্টস হিসাবে পরিচিত বিশেষ হাড়ের কোষগুলি দ্বারা দেহের হাড় সারা জীবন সক্রিয়ভাবে নির্মিত এবং পুনর্নির্মিত হয়। যে কোনও একটি হাড়ের মধ্যে, কলাগুলি দুটি প্রধান নমুনায় বোনা হয়, যাদের নাম কর্টিকাল এবং ক্যান্সেলাস হাড়। এদের প্রতিটির বিভিন্ন চেহারা এবং বৈশিষ্ট্য আছে।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Bone resorption"। সংগ্রহের তারিখ ১৭ ডিসেম্বর ২০১৯ 
  2. Steele, D. Gentry; Claud A. Bramblett (১৯৮৮)। The Anatomy and Biology of the Human Skeleton । Texas A&M University Press। পৃষ্ঠা 4আইএসবিএন 978-0-89096-300-5 
  3. Mammal anatomy : an illustrated guide.। New York: Marshall Cavendish। ২০১০। পৃষ্ঠা 129আইএসবিএন 9780761478829 
  4. "ossein"The Free Dictionary 
  5. Hall, John (২০১১)। Textbook of Medical Physiology (12th সংস্করণ)। Philadelphia: Elsevier। পৃষ্ঠা 957–960। আইএসবিএন 978-08089-2400-5 
  6. Schmidt-Nielsen, Knut (১৯৮৪)। Scaling: Why Is Animal Size So Important?। Cambridge: Cambridge University Press। পৃষ্ঠা 6। আইএসবিএন 978-0-521-31987-4 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা