হরে রাম হরে কৃষ্ণ (১৯৭১-এর চলচ্চিত্র)

হিন্দি ভাষার চলচ্চিত্র

হরে রাম হরে কৃষ্ণ হচ্ছে ১৯৭১ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত একটি হিন্দি চলচ্চিত্র যেটা পরিচালনা করেন দেব আনন্দ, এবং মুখ্য ভূমিকায় তিনিসহ জিনাত আমান এবং মুমতাজ অভিনয় করেন। চলচ্চিত্রটি ব্যবসাসফল হয়েছিলো[১] এবং জিনাত আমান এর জন্য এটি ওপরে ওঠার মাধ্যম ছিলো, তিনি চলচ্চিত্রটিতে পশ্চিমা হিপি'র চরিত্রে অভিনয় করেন, এবং 'ফিল্মফেয়ার বেস্ট সাপোর্টিং এ্যাকট্রেস' পুরস্কার জেতেন,[২] এছাড়া সেরা অভিনেত্রী হিসেবে 'বেঙ্গল ফিল্ম জার্নালিস্টস এ্যাসোসিয়েশন এ্যাওয়ার্ড' (বিএফজেএ) পুরস্কারও পান।[৩] চলচ্চিত্রটিতে হিপি সংস্কৃতির নৈতিক অবক্ষয় দেখানো হয়েছে। চলচ্চিত্রটি একভাবে মাদক-বিরোধী প্রচারণা করেছে এবং পশ্চিমা সংস্কৃতির কিছু সমস্যা দেখিয়েছে যেমন বিয়ে বিচ্ছেদ হয়ে যাওয়া। চলচ্চিত্রটি ১৯৬৮ সালের আমেরিকান চলচ্চিত্র 'সাইক আউট' এর উপর হাল্কাভাবে ভিত্তি করে তৈরি। ভারতের গোয়া প্রদেশে কলিম আহমেদ খান নামের একজন হিপি ছিলেন, চলচ্চিত্রটির কাহিনী তার জীবন কাহিনী থেকেও কিছুটা নেওয়া হয়।

হরে রাম হরে কৃষ্ণ
হরে রাম হরে কৃষ্ণ (১৯৭১-এর চলচ্চিত্র).jpg
हरे रामा हरे कृष्णा
পরিচালকদেব আনন্দ
প্রযোজকদেব আনন্দ
রচয়িতাদেব আনন্দ
উৎসরিচার্ড রাশ কর্তৃক 
১৯৬৮ সালের চলচ্চিত্র 'সাইক আউট'
শ্রেষ্ঠাংশেদেব আনন্দ
জিনাত আমান
মুমতাজ
সুরকাররাহুল দেব বর্মণ
চিত্রগ্রাহকফলি মিস্ত্রি
সম্পাদকবাবু শেখ
মুক্তি
  • ৯ ডিসেম্বর ১৯৭১ (1971-12-09)
দৈর্ঘ্য১৪৯ মিনিট
দেশভারত
ভাষাহিন্দি

দেব আনন্দের মাথায় "হরে রাম হরে কৃষ্ণ" বানানোর চিন্তা নেপালের কাঠমান্ডুতে হিপিদের নৈতিক অবক্ষয় দেখে আসে, কোলকাতায় তাঁর পূর্বের ফিল্ম 'প্রেম পূজারী' (১৯৭০) নিয়ে আন্দোলন হয়েছিলো এরপর তিনি নেপালে আসেন। তার মন খারাপ হয়ে গিয়েছিলো কারণ কোলকাতায় তার 'প্রেম পূজারী' চলচ্চিত্রটির বিরোধিতা করে এর পোস্টার পোড়ানো হয়েছিলো।

অভিনয়েসম্পাদনা

  • দেব আনন্দ- প্রশান্ত জ্যাসওয়াল
  • জিনাত আমান – জ্যাসবির জ্যাসওয়াল/ জ্যান্সি
  • মুমতাজ – শান্তি
  • বেবী গুড্ডি – শিশু জ্যাসবির
  • সত্যজিৎ – শিশু প্রশান্ত (মাস্টার সত্যজিৎ)
  • প্রেম চোপড়া – দ্রোনাচার্য
  • রাজেন্দ্র নাথ – তুফান
  • মেহমুদ জুনিয়র – ম্যাশিনা
  • সুধীর – মাইকেল
  • কিশোর সাহু – শ্রীমান জ্যাসওয়াল
  • আঁচলা সাচদেব – শ্রীমতি জ্যাসওয়াল
  • মমতাজ বেগম – শান্তির মা
  • ইফতেখার – আইজিপি
  • রাজ কিশোর – সখী
  • গৌতম সরিন – দীপক
  • ইন্দ্রাণী মুখার্জী – শ্রীমতি জ্যাসওয়াল (২য়)
  • যশোধরা কাটজু – (যশোধরা কাটজু)

সঙ্গীতসম্পাদনা

হরে রাম হরে কৃষ্ণ
রাহুল দেব বর্মণ কর্তৃক সাউন্ডট্র্যাক অ্যালবাম
মুক্তির তারিখ৪ জুন ১৯৭১ (1971-06-04)
দৈর্ঘ্য৫১:০৮
ভাষাহিন্দি
সঙ্গীত প্রকাশনীসারেগামা
পরিচালকদেব আনন্দ
রাহুল দেব বর্মণ কালক্রম
হাঙ্গামা
(১৯৭১)
হরে রাম হরে কৃষ্ণ
(১৯৭১)
শ্যাহজাদা
(১৯৭১)

এই চলচ্চিত্রটির সঙ্গীত পরিচালনা করেছিলেন রাহুল দেব বর্মণ এবং গানের কথা লেখেন আনন্দ বকশী। 'দম মারো দম' এবং 'হরে রাম হরে কৃষ্ণ' তরুণদের মধ্যে অনেক জনপ্রিয়তা পেয়েছিলো এবং 'কাঞ্চি রে কাঞ্চি রে', 'দেখো ও দিওয়ানো' এবং 'ফুলো কা তারো কা' রাহুল দেব বর্মণের সংগীত মেধার প্রকাশ ঘটিয়েছিলো।[৪] গায়িকা আশা ভোঁসলে 'দম মারো দম' গানটির জন্য 'ফিল্মফেয়ার বেস্ট ফিমেইল প্লেব্যাক এ্যাওয়ার্ড' পুরস্কার জিতেছিলেন।

# গানের শিরোনাম গায়ক/গায়িকা(গণ) দৈর্ঘ্য
"হারে রামা হারে কৃষ্ণা (নারী সংস্করণ)" আশা ভোঁসলে, ঊষা উথুপ ৩ঃ৪৭
"দেখো ও দিওয়ানো" কিশোর কুমার ৪ঃ৩১
3 "দাম মারো দাম মিট জায়ে ঘাম পার্ট ১" আশা ভোসলে ২ঃ৩৬
"কাঞ্চি রে কাঞ্চি রে (পুনঃস্মরণ)" কিশোর কুমার, লতা মঙ্গেশকর ৫ঃ০৪
"হারে রামা হারে কৃষ্ণা, পার্ট ১ (নাচ সংস্করণ)" রাহুল দেব বর্মণ ২ঃ১৭
"হারে রামা হারে কৃষ্ণা, পার্ট ২ (নাচ সংস্করণ)" রাহুল দেব বর্মণ ১ঃ৩২
"রাম না কা নাম বাদনাম না কারো (পুনঃস্মরণ সংস্করণ)" কিশোর কুমার ৪ঃ২২
"দাম মারো দাম মিট জায়ে ঘাম (রিমিক্স সংস্করণ)" আকৃতি ৩ঃ১৫
"দাম মারো দাম মিট জায়ে ঘাম, পার্ট ২" আশা ভোসলে ৩ঃ৩৯
১০ "ঘুংরু কা বোলে" লতা মঙ্গেশকর ৫ঃ০২
১১ "ফুলো কা তারো কা" লতা মঙ্গেশকর, কিশোর কুমার ৬ঃ০০
১২ "রাম কা নাম বাদনাম না কারো" কিশোর কুমার ৪ঃ০৬
১৩ "কাঞ্চি রে কাঞ্চি" লতা মঙ্গেশকর, কিশোর কুমার ৪ঃ৫৭

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. BoxOffice India.com
  2. 1st Filmfare Awards 1953
  3. "69th & 70th Annual Hero Honda BFJA Awards 2007"। ৮ ফেব্রুয়ারি ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৮ এপ্রিল ২০১৮ 
  4. Lokapally, Vijay। "Hare Rama Hare Krishna (1971)"thehindu.com। The Hindu। সংগ্রহের তারিখ ১২ এপ্রিল ২০১৩ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা