স.ম আলাউদ্দীন

সাংবাদিক

স.ম আলাউদ্দীন ১৯৪৫ সালের ২৯ শে আগস্ট তালা উপজেলায় জন্ম গ্রহণ করেন। ১৯৭০ সালের নির্বাচনে প্রাদেশিক পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হন। তিনি প্রথমে দীর্ঘ সময় মুক্তিযুদ্ধের অস্ত্র সংগ্রহ যুক্ত ছিলেন। পরবর্তীতে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন।[১][২]

স.ম আলাউদ্দীন
স.ম আলাউদ্দিন যোদ্ধা.jpg
জন্ম২৯ আগস্ট, ১৯৪৫
তালা উপজেলা
মৃত্যু১৯ জুন ১৯৯৬(1996-06-19) (বয়স ৫০)
পেশাসাংবাদিক, অধ্যক্ষ(স্বাধীনতার পর)
জাতীয়তাবাংলাদেশী
নাগরিকত্ব পাকিস্তান (১৯৭১ সালের পূর্বে)
 বাংলাদেশ (১৯৭১ সালের পর)

জীবনীসম্পাদনা

স.ম আলাউদ্দীন নগরঘাটা ইউনিয়নে তালা উপজেলা মিঠাবাড়ী গ্ৰামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি এসএসসি পাশ‌ করেন ১৯৬২ সালে এবং এইচএসসি পাস করেন ১৯৬৪ সালে। ১৯৬৭-১৯৭৫ সালে বি এল কলেজ থেকে বিএ ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এম এ পাস করেন। পরবর্তীতে ১৯৬৭ সালে প্রথম ছাত্রলীগের যোগদান করেন। এরপর থেকে তিনি রাজনীতিতে জড়িয়ে যান। পরবর্তী সময়ে তিনি মুক্তিযুদ্ধে বিশাল অবদান রাখেন।তিনি অস্ত্র সরবরাহ এবং অস্ত্র প্রশিক্ষণ নিয়োজিত ছিলেন। এরপর থেকে তিনি মুক্তিযুদ্ধে অবদান রাখা শুরু করেন। অস্ত্র প্রশিক্ষণ এর সাথে সাথে তিনি এই মহান মুক্তিযুদ্ধে যুদ্ধ করেন। তিনি এই মহান মুক্তিযুদ্ধে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন। এই মহান মুক্তিযুদ্ধে স্বাধীন হওয়ার পরে তার জেলা সাতক্ষীরাই গণমানুষের উন্নয়নের স্বার্থে তিনি বিশেষ অবদান রেখেছেন। তিনি বিভিন্ন শাখা এবং বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সভাপতি ছিলেন। তার সাথে সাথে তিনি আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন এবং সাতক্ষীরা উন্নয়নের লক্ষ্যে তিনি কিছু প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা করেন।সাতক্ষীরা উন্নয়নের লক্ষ্যে তিনি আজীবন সংগ্রাম করে গিয়েছেন।[৩][৪][৫][৬]

শিক্ষাসম্পাদনা

স.ম আলাউদ্দীন এসএসসি পাশ‌ করেন ১৯৬২ সালে এবং এইচএসসি পাস করেন ১৯৬৪ সালে। ১৯৬৭-১৯৭৫ সালে বি এল কলেজ থেকে বিএ ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এম এ পাস করেন। পরবর্তীতে ১৯৬৭ সালে প্রথম ছাত্রলীগের যোগদান করেন। এরপর থেকে তিনি রাজনীতিতে জড়িয়ে যান।

প্রতিষ্ঠাতাসম্পাদনা

তিনি সাতক্ষীরা উন্নয়নে এবং গণ-মানুষের জন্য প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠিত করেন। তিনি আজীবন সাতক্ষীরা উন্নয়ন এবং গণ-মানুষের জন্য কাজ করে গিয়েছেন। তার সাথে সাথে তিনি মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে তিনি তার অবদান রেখেছেন। তিনি এই

  • আলাউদ্দীন ফুডস্ এন্ড কেমিক্যাল
  • বঙ্গবন্ধু পেশা ভিত্তিক স্কুল এন্ড কলেজ
  • সাতক্ষীরা চেম্বার অব কমার্সের প্রতিষ্ঠাতা
  • ভোমরা স্থলবন্দর
  • মুক্তিযোদ্ধা সংহতি পরিষদ
  • দৈনিক পত্রদূতের প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক

প্রতিষ্ঠান গুলোর প্রতিষ্ঠাতা।[২][৭]

হত্যাসম্পাদনা

স.ম আলাউদ্দিন সাতক্ষীরা থেকে নিজে পত্রিকা অফিসে কর্মরত অবস্থায় দুর্বৃত্তের গুলিতে নিহত হন ১৯৯৬ সালের ১৯ জুন রাত ১০:৩০ মি:।[৮][৯]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "শহীদ স.ম আলাউদ্দীন Archives"কলারোয়া নিউজ (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৮-০২-০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১২-১০ 
  2. "Daily Patradoot Satkhira || Frist Online Satkhira news paper || We Serve Latest Satkhira News, Satkhirar Khabor,Satkhirarkhabor, Khulna, Sundarban, sunderbon, সাতক্ষীরা জেলা, kalaroa, Debhata, Asasuni, Symnagar, kaligang, tala, patkelghata, khulna news, newspaper of khulna, jessore" (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৯-০৬-১৮। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১২-১১ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  3. দৈনিক, পত্রদূত (১৯ জুন ২০১৯)। "বীর মুক্তিযোদ্ধা স.ম আলাউদ্দীন ছিলেন সাতক্ষীরার উন্নয়নের পথিকৃৎ"দৈনিক পত্রদূত। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১১-১১ 
  4. সংবাদদাতা, সাতক্ষীরা জেলা। "সাতক্ষীরায় স.ম. আলাউদ্দীন হত্যার বিচার ও দোষীদের শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন"দৈনিক ইনকিলাব। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১২-১১ 
  5. ডেস্ক, দীপ্ত নিউজ। "বীর মুক্তিযোদ্ধা স.ম আলাউদ্দীনের সংক্ষিপ্ত জীবনী -মীর জিল্লুর রহমান | দীপ্ত নিউজ"। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১২-১১ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  6. "স ম আলাউদ্দিন হত্যার বিচার দাবিতে সাংবাদিকদের সোচ্চার হওয়ার আহ্বান"বাংলাদেশ প্রতিদিন। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১২-১১ 
  7. "শহীদ স.ম আলাউদ্দীন হত্যাকারীদের বিচার ও ফাঁসির দাবিতে সাতক্ষীরায় মানববন্ধন - লাল সবুজের কথা"লাল সবুজের কথা। Lal Sobujer Kotha (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৮-০৯-১৫। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১২-১১ 
  8. "S.M. Alauddin"Committee to Protect Journalists (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৭-০৪ 
  9. "পত্রদূত সম্পাদক হত্যাকাণ্ডের বিচার হয়নি ২৩ বছরেও"banglanews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৭-২৩