স্বাভাবিক ভাষা উৎপাদন

স্বাভাবিক ভাষা উৎপাদন (ইংরেজি: Natural language generation, অথবা, সংক্ষেপে NLG) হচ্ছে স্বাভাবিক ভাষা প্রক্রিয়াজাতকরণের একটি কাজ যেখানে যন্ত্র উপস্থাপন ব্যবস্থা (জ্ঞানভিত্তিক অথবা যৌক্তিকরুপ) থেকে স্বাভাবিক ভাষা উৎপাদন করা হয়। মানসিক উপস্থাপনার (mental representations) জন্য যখন এরকম আনুষ্ঠানিক উপস্থাপনা (formal representations) আদর্শ হিসেবে ব্যাখ্যা করা হয়, মনোভাষাবিদরা তখন ভাষা উৎপাদন শব্দটিকে অগ্রাধিকার দেন।

যেহেতু স্বাভাবিক ভাষা উৎপাদন কম্পিউটার ভিত্তিক উপস্থাপনাকে স্বাভাবিক ভাষায় রূপান্তর করে উপস্থাপন করে, তাই একে একজন অনুবাদকও বলা যেতে পারে। তবে স্বাভাবিক ভাষার সহজাত স্পষ্টতার জন্য চূড়ান্ত ভাষা উৎপাদন পদ্ধতি সংকলনকারী (compiler) থেকে ভিন্ন। যদিও স্বাভাবিক ভাষা উৎপাদন অনেক আগে থেকেই বিদ্যমান ছিল, কিন্তু বর্তমানে এ প্রযুক্তির বাণিজ্যিক ব্যবহার অধিকহারে পরিলক্ষিত হচ্ছে।

এটা স্বাভাবিক ভাষা উপলব্ধির বিপরীত হিসেবে দেখা যেতে পারে: যেখানে স্বাভাবিক ভাষা উপলব্ধি পদ্ধতিকে মেশিন উপস্থাপিত (machine representation) ভাষা উৎপাদনে যোগান (input) বাক্যের দ্ব্যর্থতা নিরসন করতে হয়, সেথানে স্বাভাবিক ভাষা উৎপাদন পদ্ধতিকে কিভাবে একটি ধারণাকে শব্দের মাধ্যমে প্রকাশ করা যায় তার সিদ্ধান্ত নিতে হয়।

সহজ উদাহরণ হচ্ছে সেসব পদ্ধতি যেগুলো গঠন অক্ষর উৎপন্ন করে। এগুলো সাধারনত কোন ব্যাকরণের নিয়ম অন্তর্ভুক্ত করেনা, কিন্তু কোন ভোক্তার জন্য বার্তা উৎপন্ন করতে পারে, যেমন, ভোক্তার ক্রেডিট কার্ডের খরচের সীমা পার হয়ে গিয়েছে জানিয়ে দেওয়া। আরো জটিল স্বাভাবিক ভাষা উৎপাদন পদ্ধতি যোগাযোগের লক্ষ্য পূরণের জন্য পরিবর্তনশীলভাবে লিখন তৈরি করতে পারে। স্বাভাবিক ভাষা প্রক্রিয়াজাতকরণের অন্যান্য ক্ষেত্রে, হয় ভাষার স্পষ্ট নকশা (যেমন, ব্যাকরন) ও অন্যান্য কার্যক্ষেত্রের ব্যবহারের মাধ্যমে, অথবা, মানব-লিখিত লিখন বিশ্লেষণ করে আহরিত পরিসংখ্যানগত নকশা ব্যবহার করার মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করা যায়।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা