স্বাধীনতা পুরস্কার বিজয়ীদের তালিকা (১৯৯০–৯৯)

(স্বাধীনতা পুরস্কার (১৯৯০–৯৯) থেকে পুনর্নির্দেশিত)

স্বাধীনতা পুরস্কার বাংলাদেশের জাতীয় এবং “সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরস্কার”।[১] দেশ ও জাতির কল্যাণে বিভিন্ন ক্ষেত্রে অনন্য অবদানের স্বীকৃতি প্রদানের উদ্দেশ্যে ১৯৭৭ সাল থেকে এই পুরস্কার প্রদাণ করা হচ্ছে।[২] এই তালিকাটি ১৯৯০ সাল থেকে ১৯৯৯ সাল পর্যন্ত বিভিন্ন ক্ষেত্রে স্বাধীনতা পুরস্কার প্রাপ্তদের সম্পর্কিত সার-সংক্ষেপণ।

স্বাধীনতা পুরস্কার
প্রথম পুরস্কৃত১৯৭৭
সর্বশেষ পুরস্কৃত২০২০
ওয়েবসাইটwww.cabinet.gov.bd

১৯৯০সম্পাদনা

১৯৯০ সালে ২ জন ব্যক্তিত্বকে জাতীয় জীবনে তাদের অসাধারণ অবদানের জন্য “স্বাধীনতা পুরস্কার” সম্মাননায় ভূষিত করা হয়।

প্রতিকৃতি প্রাপক ক্ষেত্র মন্তব্য
অধ্যাপক আমিনুল ইসলাম বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
মোহাম্মদ ইয়াছিন পল্লী উন্নয়ন

১৯৯১সম্পাদনা

১৯৯১ সালে ৩ জন ব্যক্তিত্বকে জাতীয় জীবনে তাদের অসাধারণ অবদানের জন্য “স্বাধীনতা পুরস্কার” সম্মাননায় ভূষিত করা হয়; যাদের মধ্যে ১ জনকে “মরণোত্তর” সম্মাননা প্রদান করা হয়।

প্রতিকৃতি প্রাপক ক্ষেত্র মন্তব্য
মরহুম নায়েব সুবেদার শাহ আলম ক্রীড়া মরণোত্তর বিজয়ী
কবি শামসুর রাহমান সাহিত্য
  প্রফেসর মো: ইন্নাস আলী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

১৯৯২সম্পাদনা

১৯৯২ সালে ২ জন ব্যক্তিত্ব এবং ১টি প্রতিষ্ঠানকে জাতীয় জীবনে তাদের অসাধারণ অবদানের জন্য “স্বাধীনতা পুরস্কার” সম্মাননায় ভূষিত করা হয়; যাদের মধ্যে ১ জনকে “মরণোত্তর” সম্মাননা প্রদান করা হয়।

প্রতিকৃতি প্রাপক ক্ষেত্র মন্তব্য
  বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান
অধ্যাপক কাজী জাকের হোসেন শিক্ষা
  মরহুম জহির রায়হান সাহিত্য মরণোত্তর বিজয়ী

১৯৯৩সম্পাদনা

১৯৯৩ সালে ৫ জন ব্যক্তিত্বকে জাতীয় জীবনে তাদের অসাধারণ অবদানের জন্য “স্বাধীনতা পুরস্কার” সম্মাননায় ভূষিত করা হয়; যাদের মধ্যে ১ জনকে “মরণোত্তর” সম্মাননা প্রদান করা হয়।

প্রতিকৃতি প্রাপক ক্ষেত্র মন্তব্য
অধ্যাপক একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরী চিকিৎসাবিদ্যা
  এস. এম. সুলতান সংস্কৃতি
(চারুকলা)
কাজী আবদুল আলীম ক্রীড়া
জাহানারা বেগম পল্লী উন্নয়ন
মরহুম প্রিন্সিপাল আবুল কাশেম শিক্ষা মরণোত্তর বিজয়ী

১৯৯৪সম্পাদনা

১৯৯৪ সালে ৩ জন ব্যক্তিত্ব এবং ২টি প্রতিষ্ঠানকে জাতীয় জীবনে তাদের অসাধারণ অবদানের জন্য “স্বাধীনতা পুরস্কার” সম্মাননায় ভূষিত করা হয়; যাদের মধ্যে ১ জনকে “মরণোত্তর” সম্মাননা প্রদান করা হয়।

প্রতিকৃতি প্রাপক ক্ষেত্র মন্তব্য
বাংলাদেশ ভূতাত্ত্বিক জরিপ অধিদপ্তর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান
  মরহুম আহসান হাবিব সাহিত্য মরণোত্তর বিজয়ী
আতিকুর রহমান ক্রীড়া
ওস্তাদ মোবারক হোসেন খান সংস্কৃতি
(সঙ্গীত)
  গ্রামীণ ব্যাংক পল্লী উন্নয়ন প্রতিষ্ঠান

১৯৯৫সম্পাদনা

১৯৯৫ সালে ৭ জন ব্যক্তিত্বকে জাতীয় জীবনে তাদের অসাধারণ অবদানের জন্য “স্বাধীনতা পুরস্কার” সম্মাননায় ভূষিত করা হয়; যাদের মধ্যে ৩ জনকে “মরণোত্তর” সম্মাননা প্রদান করা হয়।

প্রতিকৃতি প্রাপক ক্ষেত্র মন্তব্য
  ড. আবদুল্লাহ আল মুতী শরফুদ্দিন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
মরহুম মৌলভী কাজী আম্বার আলী শিক্ষা মরণোত্তর বিজয়ী
  মরহুম আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ সাহিত্য মরণোত্তর বিজয়ী
ফেরদৌসী রহমান সংস্কৃতি
(সঙ্গীত)
সৈয়দা ইকবাল মান্দ বানু সমাজসেবা
জাকারিয়া পিন্টু ক্রীড়া ও খেলাধুলা
মরহুম এস. এম. আলী সাংবাদিকতা মরণোত্তর বিজয়ী

১৯৯৬সম্পাদনা

১৯৯৬ সালে ৭ জন ব্যক্তিত্ব এবং ১টি প্রতিষ্ঠানকে জাতীয় জীবনে তাদের অসাধারণ অবদানের জন্য “স্বাধীনতা পুরস্কার” সম্মাননায় ভূষিত করা হয়; যাদের মধ্যে ২ জনকে “মরণোত্তর” সম্মাননা প্রদান করা হয়।

প্রতিকৃতি প্রাপক ক্ষেত্র মন্তব্য
অধ্যাপক এ এম জহুরুল হক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
মরহুম ডাঃ কাজী আবুল মনসুর চিকিৎসাবিদ্যা মরণোত্তর বিজয়ী
মরহুম মৌলভী আবুল হাশিম সাহিত্য মরণোত্তর বিজয়ী
  সফিউদ্দিন আহমেদ সংস্কৃতি
(চারুকলা)
  মোহাম্মদ আব্দুল জব্বার সংস্কৃতি
(সঙ্গীত)
  সাবিনা ইয়াসমিন সংস্কৃতি
(সঙ্গীত)
কাজী মোহাম্মদ সালাহ উদ্দিন ক্রীড়া ও খেলাধুলা
আঞ্জুমান মফিদুল ইসলাম জনসেবা প্রতিষ্ঠান

১৯৯৭সম্পাদনা

১৯৯৭ সালে ১০ জন ব্যক্তিত্বকে জাতীয় জীবনে তাদের অসাধারণ অবদানের জন্য “স্বাধীনতা পুরস্কার” সম্মাননায় ভূষিত করা হয়; যাদের মধ্যে ৪ জনকে “মরণোত্তর” সম্মাননা প্রদান করা হয়।

প্রতিকৃতি প্রাপক ক্ষেত্র মন্তব্য
ড. মুন্সী সিদ্দীক আহমদ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
অধ্যাপক ডাঃ নুরুল ইসলাম চিকিৎসাবিদ্যা
  অধ্যাপক কবীর চৌধুরী শিক্ষা
মরহুম অধ্যাপক আবদুল মতিন চৌধুরী শিক্ষা মরণোত্তর বিজয়ী
  কবি সুফিয়া কামাল সাহিত্য
শওকত ওসমান সাহিত্য
মরহুম আবদুল আলীম সংস্কৃতি
সঙ্গীত
মরণোত্তর বিজয়ী
  শহীদ জননী জাহানারা ইমাম সমাজসেবা
মরহুম বিচারপতি সৈয়দ মোহাম্মদ হোসেন সমাজসেবা মরণোত্তর বিজয়ী
  শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত বাংলা ভাষা মরণোত্তর বিজয়ী

১৯৯৮সম্পাদনা

১৯৯৮ সালে ১০ জন ব্যক্তিত্বকে জাতীয় জীবনে তাদের অসাধারণ অবদানের জন্য “স্বাধীনতা পুরস্কার” সম্মাননায় ভূষিত করা হয়; যাদের মধ্যে ৯ জনকে “মরণোত্তর” সম্মাননা প্রদান করা হয়।

প্রতিকৃতি প্রাপক ক্ষেত্র মন্তব্য
শহীদ শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধ মরণোত্তর বিজয়ী
  শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধ মরণোত্তর বিজয়ী
75px শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধ মরণোত্তর বিজয়ী
  শহীদ ক্যাপ্টেন মনসুর আলী স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধ মরণোত্তর বিজয়ী
  শহীদ এ. এইচ. এম. কামরুজ্জামান স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধ মরণোত্তর বিজয়ী
শহীদ আবদুর রব সেরনিয়াবাত স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধ মরণোত্তর বিজয়ী
শহীদ শেখ ফজলুল হক মনি স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধ মরণোত্তর বিজয়ী
ড. আব্দুল মোছাব্বের চৌধুরী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
  শহীদ শহীদুল্লাহ কায়সার সাহিত্য মরণোত্তর বিজয়ী
শহীদ শেখ কামাল ক্রীড়া মরণোত্তর বিজয়ী

১৯৯৯সম্পাদনা

১৯৯৯ সালে ১১ জন ব্যক্তিত্বকে জাতীয় জীবনে তাদের অসাধারণ অবদানের জন্য “স্বাধীনতা পুরস্কার” সম্মাননায় ভূষিত করা হয়; যাদের মধ্যে ৫ জনকে “মরণোত্তর” সম্মাননা প্রদান করা হয়।

প্রতিকৃতি প্রাপক ক্ষেত্র মন্তব্য
আব্দুস সামাদ আজাদ স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধ
অধ্যাপক ডা. রশিদ উদ্দিন আহমদ চিকিৎসাবিদ্যা
মরহুম অধ্যাপক এ. কিউ. এম. বজলুল করিম শিক্ষা মরণোত্তর বিজয়ী
  অধ্যাপক এ এফ সালাহ্উদ্দীন আহমদ শিক্ষা
  সিকান্দার আবু জাফর সাহিত্য
  প্রফেসর মোহাম্মদ কিবরিয়া সংস্কৃতি
(চারুকলা)
মরহুমা বেগম বদরুন্নেসা আহমদ সমাজসেবা মরণোত্তর বিজয়ী
কলিম শরাফী সংস্কৃতি
(সঙ্গীত)
  ড. এফ আর খান সংস্কৃতি
(স্থাপত্য)
মরণোত্তর বিজয়ী
75px মাজহারুল ইসলাম সংস্কৃতি
(স্থাপত্য)
  প্রয়াত ব্রজেন দাস ক্রীড়া মরণোত্তর বিজয়ী

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. সানজিদা খান (২০১২)। "জাতীয় পুরস্কার"। ইসলাম, সিরাজুল; মিয়া, সাজাহান; খানম, মাহফুজা; আহমেদ, সাব্বীর। বাংলাপিডিয়া: বাংলাদেশের জাতীয় বিশ্বকোষ (২য় সংস্করণ)। ঢাকা, বাংলাদেশ: বাংলাপিডিয়া ট্রাস্ট, বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটিআইএসবিএন 9843205901ওসিএলসি 883871743। সংগ্রহের তারিখ ১৬ অক্টোবর ২০১৭ 
  2. "স্বাধীনতা পদকের অর্থমূল্য বাড়ছে"কালেরকন্ঠ অনলাইন। ২ মার্চ ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১৬ অক্টোবর ২০১৭ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা