সৈয়দা বদরুন নাহার চৌধুরী

বাংলাদেশী চিকিৎসক ও সমাজ হিতৈষী

ডা. সৈয়দা বদরুন নাহার চৌধুরী (জন্ম ১৫ জানুয়ারি ১৯৫০)[১] একজন বাংলাদেশী চিকিৎসক ও সমাজ হিতৈষী। বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধা ও সাধারণ মানুষের সেবায় অনন্য অবদানের জন্য ২০১২ সালে তাকে স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধে স্বাধীনতা পুরস্কার প্রদান করা হয়।[২]

সৈয়দা বদরুন নাহার চৌধুরী
Syeda Badrun Nahar Chowdhury.jpg
জন্ম১৫ জানুয়ারি ১৯৫০
ময়মনসিংহ
নাগরিকত্ব বাংলাদেশ
পেশাচিকিৎসক
পুরস্কারস্বাধীনতা পুরস্কার (২০১২)

কর্মজীবনসম্পাদনা

মুক্তিযুদ্ধে অবদানসম্পাদনা

১৯৭১ সালে এমবিবিএস শেষ বর্ষের ছাত্রী থাকাকালীনই মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ১২০৪ সাব-সেক্টরের অধীনে জহিরুল হক পাঠানের নেতৃত্বাধীন মধুমতী কোম্পানিতে মেডিকেল কর্মকর্তা হিসেবে কুমিল্লা ও নোয়াখালীর ১১টি অঞ্চলে নৌকায় করে চিকিৎসা সেবা দিয়েছেন তিনি৷[১][৩] মুক্তিযোদ্ধে আহত ও নির্যাতিতা নারীদের চিকিৎসক হিসেবে কাজ করেছিলেন চাঁদপুরের শাহরাস্তি উপজেলার একেবারে প্রত্যন্ত অঞ্চলে।

পুরস্কার ও সম্মাননাসম্পাদনা

বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে অসাধারণ অবদানের জন্য ২০১২ সালে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরস্কার[৪][৫][৬] হিসাবে পরিচিত স্বাধীনতা পুরস্কার প্রদান করা হয় তাকে।[২]

ব্যক্তিগত জীবনসম্পাদনা

ডাঃ বদরুন নাহার চৌধুরী চাঁদপুর জেলার হাজীগঞ্জ উপজেলার সাবেক পৌর চেয়ারম্যান ও পৌর এলাকার ধেররা চৌধুরী বাড়ির সন্তান মুক্তিযোদ্ধা মরহুম তাফাজ্জল হায়দার নসু চৌধুরীর সহধর্মিণী।[৭]

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "চাঁদপুরের বীর সাহসী নারী মুক্তিযোদ্ধা বদরুন নাহার"ডয়েচ ভেল অনলাইন। ৬ জুন ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  2. "স্বাধীনতা পুরস্কারপ্রাপ্ত ব্যক্তি/প্রতিষ্ঠানের তালিকা"মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। ১ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  3. "স্বাধীনতা পুরস্কারপ্রাপ্ত ব্যক্তি/প্রতিষ্ঠানের পরিচিতি"মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। ১৮ অক্টোবর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  4. সানজিদা খান (জানুয়ারি ২০০৩)। "জাতীয় পুরস্কার: স্বাধীনতা দিবস পুরস্কার"। সিরাজুল ইসলাম[[বাংলাপিডিয়া]]ঢাকা: এশিয়াটিক সোসাইটি বাংলাদেশআইএসবিএন 984-32-0576-6। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ডিসেম্বর ২০১৭স্বাধীনতা দিবস পুরস্কার সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় পুরস্কার।  ইউআরএল–উইকিসংযোগ দ্বন্দ্ব (সাহায্য)
  5. "স্বাধীনতা পদকের অর্থমূল্য বাড়ছে"কালেরকন্ঠ অনলাইন। ২ মার্চ ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  6. "এবার স্বাধীনতা পদক পেলেন ১৬ ব্যক্তি ও সংস্থা"এনটিভি অনলাইন। ২৪ মার্চ ২০১৬। ১ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  7. Rahman, Mahfuzur (২০১৯-০৯-২০)। "পাঠ্যবইয়ে আসছে চাঁদপুরের সাহসী নারী মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ বদরুন নাহার চৌধুরী!"BD CURRENT NEWS24 (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৯-২৬