কমরেড সুখেন ভট্টাচার্য (১৯২৮- ২৪ এপ্রিল, ১৯৫০) একজন ব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলনের কর্মী ও বাংলাদেশের সাম্যবাদী আন্দোলনের শহীদ। সুখেন ভট্টাচার্য ভিয়েতনাম দিবসে ময়মনসিংহে প্রচণ্ড ছাত্র আন্দোলন গড়ে তুলেছিলেন। বয়সের তুলনায় বেশ গম্ভীর ও স্বল্পভাষী ছিলেন।[১]

সুখেন ভট্টাচার্য
জন্ম১৯২৮
মৃত্যু২৪ এপ্রিল, ১৯৫০
রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগার, পূর্ব পাকিস্তান, (বর্তমান বাংলাদেশ বাংলাদেশ)
নাগরিকত্ব ব্রিটিশ ভারত (১৯৪৭ সাল পর্যন্ত)
 পাকিস্তান (১৯৫০ সাল পর্যন্ত)
পেশারাজনীতিবিদ
পরিচিতির কারণখাপড়া ওয়ার্ড গণহত্যার শিকার
রাজনৈতিক দলস্বাধীনতার পুর্বে ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি, স্বাধীনোত্তর কালে পাকিস্তানের কমিউনিস্ট পার্টি
আন্দোলনব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলন, সাম্যবাদী আন্দোলন

অনশন আন্দোলন

সম্পাদনা

সুখেন ভট্টাচার্য রাজশাহী সেন্ট্রাল জেলের খাপরা ওয়ার্ডে বন্দী থাকাকালীন অনশন ধর্মঘট করছিলেন আরো ছয় জন কমিউনিস্ট নেতা কর্মীর সাথে। তাদের টানা অনশনের ফলে দাবী দাওয়া কিছু পরিমানে মেনে নিতে বাধ্য হয় কারা কর্তৃপক্ষ। কমিউনিস্ট নেতৃবৃন্দকে আলাদা কনডেমড সেলে পাঠানোর চেষ্টা হলে তার বিরোধিতা করেন বিজন সেন ও অন্যান্যরা।[২][৩]

মৃত্যু

সম্পাদনা

২৪ এপ্রিল, ১৯৫০ তারিখে জেলার এডোয়ার্ড বিলে'র আদেশে বিনা প্ররোচনায় নিরস্ত্র বন্দীদের ওপর পুলিশ গুলি চালায়। অনেকের সাথে গুলিতে মৃত্যু ঘটে বিপ্লবী সুখেন ভট্টাচার্যের। নিহত বাকি কমিউনিস্ট নেতারা ছিলেন, দেলোয়ার হোসেন, হানিফ সেখ, সুধীর ধর, আনোয়ার হোসেন (শহীদ), বিজন সেনকম্পরাম সিং[২][৩][১]

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা
  1. দরজি আবদুল ওয়াহাব, ময়মনসিংহের চরিতাভিধান, ময়মনসিংহ জেলা দ্বিশতবার্ষিকী উদ্‌যাপন কর্তৃপক্ষ, ময়মনসিংহ, বাংলাদেশ, এপ্রিল ১৯৮৯, পৃষ্ঠা ৫১৪।
  2. Afzar Hussain (23 April 2016)। "The Khapra Ward Day"। The Daily Star। সংগ্রহের তারিখ 24.01.2017  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  3. "খাপরা ওয়ার্ড শহীদ দিবসের রাজনৈতিক গুরুত্ব"। ভোরের কাগজ। ২৪ এপ্রিল ২০১৬। ৩০ জুলাই ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬.০১.১৭  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)