সিরাজ উদদীন আহমেদ

সিরাজ উদদীন আহমেদ (জন্ম: ১৪ অক্টোবর ১৯৪১) বাংলাদেশের সাবেক সরকারি কর্মকর্তা, লেখক, রাজনীতিবিদ ও মুক্তিযোদ্ধা। স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধে অবদানের জন্য তিনি ২০২২ সালে স্বাধীনতা পুরস্কারে ভূষিত হন।[১][২][৩]

সিরাজ উদদীন আহমেদ
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম১৪ অক্টোবর ১৯৪১
আরজিকালিকাপুর, বাবুগঞ্জ, বরিশাল, ব্রিটিশ ভারত
(বর্তমান বাংলাদেশ)
জাতীয়তাব্রিটিশ ভারত (১৯৪৭ সাল পর্যন্ত)
পাকিস্তান (১৯৭১ সালের পূর্বে)
বাংলাদেশ
রাজনৈতিক দলবাংলাদেশ আওয়ামী লীগ
দাম্পত্য সঙ্গীবেগম ফিরােজা
সন্তান
পিতামাতাজাহান উদ্দীন ফকির (পিতা)
লায়লী বেগম (মাতা)
প্রাক্তন শিক্ষার্থীঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
ব্রজমোহন কলেজ
পুরস্কারস্বাধীনতা পুরস্কার (২০২২)

প্রাথমিক জীবনসম্পাদনা

সিরাজ উদদীন আহমেদ ১৪ অক্টোবর ১৯৪১ সালে বরিশালের বাবুগঞ্জের আরজিকালিকাপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম জাহান উদ্দীন ফকির ও মাতার নাম লায়লী বেগম। তিনি সায়েস্তাবাদ এম এইচ মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে ১৯৫৬ সালে ম্যাট্টিক, বরিশাল বিএম কলেজ থেকে উচ্চমাধ্যমিক ও বিএ এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৬২ সালে অর্থনীতিতে এমএ ও ১৯৬৮ সালে বিএল ডিগ্রি লাভ করেন। তার স্ত্রী বেগম ফিরােজা। এই দম্পতীর দুই সন্তান, শাহরিয়ার আহমেদ শিল্পী ও শাকিল আহমেদ ভাস্কর।[৪]

কর্মজীবনসম্পাদনা

সিরাজ উদদীন আহমেদ ১৯৭১ সালে মুক্তিযোদ্ধে তিনি বরগুনা জেলা সংগ্রাম কমিটির সমন্বয়কারী ছিলেন। ১৯৭৫ সালে তিনি ছিলেন বরগুনা মহকুমার এসডিও। অর্থ মন্ত্রণালয়ের উপসচিব, মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব, বিনিয়োগ বোর্ডের নির্বাহী চেয়ারম্যান এবং বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশনের সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা।[৫]

গ্রন্থ তালিকাসম্পাদনা

সিরাজ উদদীন আহমেদের প্রকাশিত বইঃ-[৬]

  • জননেত্রী শেখ হাসিনা
  • বরিশালের ইতিহাস
  • মুক্তিযুদ্ধে বরগুনা জেলা : একাত্তরের ডায়েরি
  • মাদারীপুর জেলার ইতিহাস
  • শেরে বাংলা এ কে ফজলুল হক
  • হােসেন শহীদ সােহরাওয়ার্দী
  • বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান
  • জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান
  • মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী
  • তাজউদ্দীন আহমেদ
  • একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধ- স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয়
  • স্বাধীনতা ঘােষণা বিজয় অতঃপর
  • ভারত বিভাগ-ঐতিহাসিক ভুল
  • বাংলাদেশ গড়লেন যারা

সম্মাননাসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "স্বাধীনতা পুরস্কার পাচ্ছেন ১১ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠান"চ্যানেল 24। ১৫ মার্চ ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ১৫ মার্চ ২০২২ 
  2. "স্বাধীনতা পুরস্কার পাচ্ছেন ১০ ব্যক্তি ও এক প্রতিষ্ঠান"দৈনিক কালের কণ্ঠ। ১৫ মার্চ ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ১৫ মার্চ ২০২২ 
  3. "১০ বিশিষ্টজন ও ১ প্রতিষ্ঠান পাচ্ছেন স্বাধীনতা পুরস্কার"দ্য ডেইলি স্টার। ১৫ মার্চ ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ১৫ মার্চ ২০২২ 
  4. সিরাজ উদদীন আহমেদ (২০১৯)। বরিশাল বিভাগের ইতিহাস। বাংলাদেশ: ভাস্কর প্রকাশনী। পৃষ্ঠা ৮৬০। 
  5. "স্বাধীনতা পুরস্কার পাচ্ছেন ১০ ব্যক্তি, এক প্রতিষ্ঠান"বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম। ১৫ মার্চ ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ১৫ মার্চ ২০২২ 
  6. সিরাজ উদদীন আহমেদ (২০২০)। ভারত বিভাগ-ঐতিহাসিক ভুল। বাংলাদেশ: ভাস্কর প্রকাশনী। পৃষ্ঠা ৪১৬। আইএসবিএন 9789843356796