সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা

সিরাজগঞ্জ জেলার একটি উপজেলা

সিরাজগঞ্জ সদর বাংলাদেশের সিরাজগঞ্জ জেলার অন্তর্গত বাংলাদেশের একটি অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ প্রশাসনিক উপজেলা

সিরাজগঞ্জ সদর
উপজেলা
মানচিত্রে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা
মানচিত্রে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা
স্থানাঙ্ক: ২৪°২৭′১৭″ উত্তর ৮৯°৪১′৪৯″ পূর্ব / ২৪.৪৫৪৭২° উত্তর ৮৯.৬৯৬৯৪° পূর্ব / 24.45472; 89.69694 উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
দেশবাংলাদেশ
বিভাগরাজশাহী বিভাগ
জেলাচৌহালী উপজেলা
প্রতিষ্ঠা১৮০৯
সংসদীয়সিরাজগঞ্জ-২ (৬৩)
সরকার
 • উপজেলা চেয়ারম্যানমোহাম্মদ রিয়াজ উদ্দিন (বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ)
আয়তন
 • মোট৩২৫.৭৭ বর্গকিমি (১২৫.৭৮ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১)[১]
 • মোট৫,৭৮,৫৮৩
 • জনঘনত্ব১,৮০০/বর্গকিমি (৪,৬০০/বর্গমাইল)
সাক্ষরতার হার
 • মোট৯৮.০৯%
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
পোস্ট কোড৬৭০০ উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
প্রশাসনিক
বিভাগের কোড
৫০ ৮৮ ৭৮
ওয়েবসাইটদাপ্তরিক ওয়েবসাইট উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন

অবস্থান

সম্পাদনা

এই উপজেলার উত্তরে কাজীপুর উপজেলা, দক্ষিণে কামারখন্দ উপজেলাবেলকুচি উপজেলা, পূর্বে জামালপুর জেলার সরিষাবাড়ী উপজেলা, টাঙ্গাইল জেলার ভুঞাপুর উপজেলাকালিহাতি উপজেলা, পশ্চিমে কামারখন্দ উপজেলা, রায়গঞ্জ উপজেলাবগুড়া জেলার ধুনট উপজেলা

প্রশাসনিক এলাকা

সম্পাদনা

সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা ১০টি ইউনিয়ন পরিষদ নিয়ে গঠিত:

ইতিহাস

সম্পাদনা

বেলকুচি থানায় সিরাজউদ্দিন চৌধুরী নামক এক ভূস্বামী (জমিদার) ছিলেন। তিনি তাঁর নিজ মহালে একটি ‘গঞ্জ’ স্থাপন করেন। তাঁর নামানুসারে এর নামকরণ করা হয় সিরাজগঞ্জ। কিন্তু এটা ততটা প্রসিদ্ধি লাভ করেনি। যমুনা নদীর ভাঙ্গনের ফলে ক্রমে তা নদীগর্ভে বিলীন হয় এবং ক্রমশঃ উত্তর দিকে সরে আসে। সে সময় সিরাজউদ্দীন চৌধুরী ১৮০৯ সালের দিকে খয়রাতি মহল রূপে জমিদারী সেরেস্তায় লিখিত ভুতের দিয়ার মৌজা নিলামে খরিদ করেন। তিনি এই স্থানটিকে ব্যবসা বাণিজ্যের প্রধান স্থানরূপে বিশেষ সহায়ক মনে করেন। এমন সময় তাঁর নামে নামকরণকৃত সিরাজগঞ্জ স্থানটি পুনঃ নদীভাঙ্গণে বিলীণ হয়। তিনি ভুতের দিয়ার মৌজাকেই নতুনভাবে ‘সিরাজগঞ্জ’ নামে নামকরণ করেন। ফলে ভুতের দিয়ার মৌজাই ‘সিরাজগঞ্জ’ নামে স্থায়ী রূপ লাভ করে। পাকিস্তান আমলের মহুকুমা সিরাজগঞ্জকে জেলায় উন্নীত করা হ্য় ৩০শে জানুয়ারী, ১৯৮৪ সালে। সিরাজগঞ্জের জেলা ৯টি উপজেলায় বিভক্ত। এ গুলো হল বেলকুচি, কামারখন্দ, চৌহালি, কাজীপুর, রায়গঞ্জ, শাহজাদপুর, সিরাজগঞ্জ সদর, তাড়াশ, এবং উল্লাপাড়া। থানা ১২টিঃ বেলকুচি, কামারখন্দ, চৌহালি, কাজীপুর, রায়গঞ্জ, শাহজাদপুর, সিরাজগঞ্জ সদর, তাড়াশ, উল্লাপাড়া, সলঙ্গা, এনায়েতপুর ও যমুনা সেতু পশ্চিম। [২]

দর্শনীয় স্থানসমূহ

সম্পাদনা

ঐতিহাসিক স্থানসমূহ:

পার্ক, বিনোদন ও প্রাকৃতিক স্থানঃ বঙ্গবন্ধু সেতু ইকো পার্ক , শেখ রাসেল পৌর শিশু পার্ক

সেতুঃ বঙ্গবন্ধু যমুনা সেতু

স্মৃতিসৌধ ও স্মারকঃ


আধুনিক স্থাপত্যঃ

ব্রিজঃ ইলিয়ট ব্রিজ

জনসংখ্যার উপাত্ত

সম্পাদনা

শিক্ষা

সম্পাদনা
  1. বি এল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়
  2. ভিক্টোরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়, সিরাজগঞ্জ
  3. হেলালী কেজি স্কুল
  4. সালেহা ইসহাক সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়
  5. গৌরী আরবান বালিকা উচ্চবিদ্যালয়
  6. জুয়েলস ওক্সফোর্ড ইন্টা'ল বিদ্যালয় ও কলেজ, সিরাজগঞ্জ
  7. সিরাজগঞ্জ বহুমূখী ইউসিসিও বিদ্যালয়
  8. পিডিবি উচ্চবিদ্যালয়
  9. সবুজ কানন উচ্চবিদ্যালয় এবং কলেজ, সিরাজগঞ্জ
  10. সৈয়দ আকবার আলী মেমোরিয়্যাল উচ্চবিদ্যালয়, চন্ডিদাস গাতি, সিরাজগঞ্জ
  11. ধুকুরিয়্যা বহুমূখী উচ্চবিদ্যালয়, সিরাজগঞ্
  12. ধুকুরিয়া বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়, সিরাজগন্জ
  1. সিরাজগঞ্জ সরকারি কলেজ
  2. ইসলামিয়া সরকারি কলেজ
  3. শহীদ এম. মনসুর আলী মেডিকেল কলেজ, সিরাজগঞ্জ
  4. মওলানা ভাসানী কলেজ, সিরাজগঞ্জ।
  5. সবুজ কানন উচ্চবিদ্যালয় এবং কলেজ
  6. সরকারী টেকনিক্যাল উচ্চবিদ্যালয় এবং কলেজ, সিরাজগঞ্জ
  7. সিরাজগঞ্জ কালেক্টরয়্যাল উচ্চবিদ্যালয় এবং কলেজ
  8. রিভার ভিউ আইডিয়্যাল কলেজ,চন্ডিদাস গাতি, সিরাজগঞ্জ
  9. আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ মেমোরিয়াল হাই স্কুল এবং কলেজ

অর্থনীতি

সম্পাদনা

উল্লেখযোগ্য ব্যক্তিত্ব

সম্পাদনা

আরও দেখুন

সম্পাদনা

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা
  1. বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন (জুন ২০১৪)। "এক নজরে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা"। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। ২৬ মে ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ জুলাই ২০১৪ 
  2. ডেস্ক, বিনোদন। "আমাদের সিরাজগঞ্জ"আমাদের সিরাজগঞ্জ। সংগ্রহের তারিখ ১০ মে ২০২৩ 

বহিঃসংযোগ

সম্পাদনা